আজ: মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১ইং, ২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২রা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২১ নভেম্বর ২০২১, রবিবার |



kidarkar

সাংবাদিককে মারধরে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা কারাগারে

জাতীয় ডেস্ক: ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রিশাদ হুদাকে মারধরের মামলায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতা নাজিম আহম্মেদকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। রিশাদ বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহম্মদ নূরুল হুদার ছেলে।

রোববার (২১ নভেম্বর) ঢাকার অ্যাডিশনাল চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আসাদুজ্জামান নূর জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে নাজিম আহম্মেদকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শাহবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (নিরস্ত্র) আলামিন আসামিকে আদালতে হাজির করে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন।

আসামির পক্ষে আসাদুজ্জামান খান রচিসহ কয়েকজন আইনজীবী জামিন চেয়ে শুনানি করেন। বাদীপক্ষে মাহমুদ হোসেন জাহাঙ্গীরসহ কয়েকজন জামিনের বিরোধিতা করেন।

উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত আসামির জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন বলে জানিয়েছেন বাদীপক্ষের আইনজীবী মাহমুদ হোসেন জাহাঙ্গীর।

মারধরের ঘটনায় শনিবার (২০ নভেম্বর) রাতে শাহবাগ থানায় মামলা করেন রিশাদ হুদা। মামলায় নাজিম আহম্মেদ এবং তার সহযোগী তানভীর ও ইউসুফসহ ১২ জনকে আসামি করা হয়।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, শনিবার বিকেল ৪টার দিকে রিশাদ মোটরসাইকেলে করে শাহবাগের দিকে যাচ্ছিলেন। একটি প্রাডো গাড়ি সড়কের বামের রাস্তা আটকায়। এ সময় রিশাদ হর্ন দিলে গাড়ি থেকে নাজিমসহ দুজন নেমে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং রিশাদের হেলমেট খুলে সেটা দিয়েই তাকে মারধর করে। লোকজন জড়ো হলে রিশাদের মোটরসাইকেলের চাবি নেন নাজিম। পরে দুঃখ প্রকাশ করে আসামি নাজিম মোটরসাইকেলের চাবি নিতে রিশাদকে আজিজ সুপার মার্কেটে যেতে বলে। চাবি আনার জন্য ওই মার্কেটের দোকান মালিক সমিতির কার্যালয়ে গেলে নাজিমের ১০-১৫ জন সহযোগী দ্বিতীয় দফায় রিশাদকে মারধর করে এবং তার মোবাইল ফোন ভেঙে ফেলে ও হত্যার হুমকি দেয়। এ সময় পুলিশ সেখানে উপস্থিত হয়ে নাজিম আহম্মেদকে গ্রেপ্তার করে।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.