ব্যাংকের নিরাপত্তায় নীতিমালার পরিবর্তন

bangladeshbankশেয়ারবাজার রিপোর্ট: নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ব্যাংকের সব শাখায় সিসিটিভি, স্পাই অথবা আইপি ক্যামেরা বসানোর নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর পাশাপাশি ভল্টের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিতকরণ এবং সশস্ত্র নিরাপত্তারক্ষী নিয়োগের নির্দেশনাও দেয়া হয়েছে।

রবিবার বাংলাদেশ ব্যাংক পূর্বের সকল শর্ত পরিবর্ধন ও পরিমার্জন করে এ সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করে।

দেশের সকল ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠানকে সার্বক্ষনিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য নয়টি নির্দেশনা দেয়া হয়। ব্যাংকের প্রতিটি স্থানে সিসিটিভি ক্যামেরা বসানো এবং তা সার্বক্ষণিকভাবে সচলের ব্যবস্থা রাখার পাশাপাশি আইটি রুমের যথাযথ নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য, একসেস কন্ট্রোলের দায়িত্ব নির্ধারিত কর্মকর্তার হাতে রাখেতে হবে। এবং সকল ধরনের ফুটেজ এক বছরের জন্য সংরক্ষণ করতে হবে।

প্রতিটি ব্যাংক শাখায় ‘এন্টি থেফট এলার্ম’ এবং ভল্টের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কাঠামোগত, প্রযুক্তিগত, অর্থ সংরক্ষণের সীমা নির্ধারণ ও বীমা নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে নির্দেশনা দেয়া হয়।

ব্যাংকে নিরাপত্তারক্ষী নিয়োগের পূর্বে তাদের ব্যাপারে যথাযথ তথ্য সংগ্রহ ও সংরক্ষণ করতে হবে। এর পাশাপাশি বর্তমানের তুলনায় অধিক সংখ্যক সশস্ত্র নিরাপত্তা প্রহরী নিয়োগ দিতে হবে। আর সকল নিরাপত্তা প্রহরীকে যথাযথ সশস্ত্র প্রশিক্ষণের ব্যবস্থাও করতে হবে।

ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠানগুলোতে যে কোনো ধরণের চুরি, ডাকাতি ও অনাকাঙ্খিত ঘটনা এড়াতে ও প্রতিরোধ করতে ‘অটো এলার্ট সিস্টেম’। এ অটো সিস্টেমে পুলিশ, র‌্যাব ও ব্যাংকের প্রধাণ অফিসের ১০টি গুরুত্বপূর্ণ নাম্বার সংযোগ থাকবে।

এমনকি, এলাকাভিত্তিক অনাকাঙ্খিত ঘটনা এড়াতে ব্যাংকের শাখার আশেপাশের সকল বাসিন্দাদের তথ্য ব্যাংকের কাছে রাখতে হবে। এমনকি সামাজিক সম্পর্ক জোরদার করে ব্যাংকের স্বার্থ রক্ষা করতে হবে।

আর কেন্দ্রিয় ব্যাংকের এসব নির্দেশনা সঠিকভাবে পরিপালন করা হচ্ছে কি না তা পরিদর্শনের জন্য দিনে বা রাতে যেকোনো সময় বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিনিধি শাখা পরিদর্শনে আসবেন।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ও সি/অা তু

আপনার মন্তব্য

Top