বিহারে সাম্প্রদায়িক সংঘাতের আশঙ্কা

130910110643_india-curfewশেয়ারবাজার ডেস্ক: ভারতের বিহার রাজ্যের মুজাফফরপুরে হিন্দু ও মুসলিম গ্রামবাসীর মধ্যে সহিংসতা ও সংঘাতের পর ওই এলাকায় সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা তৈরী হয়েছে। একটি হিন্দু যুবকের মৃত্যুর বদলা নিতে মুসলিমদের গ্রামে অগ্নিসংযোগ ও তিনজন যুবককে পুড়িয়ে মারা হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠার পর পুলিশ এ পর্যন্ত মোট ১৪জনকে গ্রেফতার করেছে।

এই ঘটনার সূত্রপাত গত সপ্তাহে, যখন মুজফফরপুরের একটি গ্রাম থেকে একজন হিন্দু যুবক বেশ কিছুদিন ধরে নিখোঁজ ছিল। সে একটি মুসলিম মেয়েকে ভালবাসত বলে তার গ্রামবাসীরা জানাচ্ছেন – এবং তাদের সন্দেহ ওই মেয়েটির পরিবারের লোকজন বা তাদের ঘনিষ্ঠরাই ওই ছেলেটিকে অপহরণ করেছিল। শনিবার রাতে তার মৃতদেহ উদ্ধার হয় পাশের একটি গ্রাম থেকেই।

ওই যুবকের মৃত্যুর বদলা নিতে রবিবার হিন্দুরা মুসলিম এলাকায় গিয়ে অজিতপুর গ্রামে বাড়িঘরে আগুন ধরিয়ে দেয় বলে অভিযোগ – যাতে জীবন্ত পুড়ে মারা যান তিনজন মুসলিম যুবক। এর পর থেকেই এলাকায় তুমুল সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে, মুম্বই সফর কাঁটছাট করে দ্রুত পরিস্থিতি সরেজমিনে দেখতে ফিরে এসেছেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী জিতনরাম মানঝি। জেলায় সাম্প্রদায়িক উত্তেজনার পটভূমিতে প্রশাসন সতর্কাবস্থায় আছে।

এই ঘটনায় দ্রুত বিচারের ব্যবস্থা করে দোষীদের কঠোর সাজা দেওয়া হবে বলেও মুখ্যমন্ত্রী কথা দিয়েছেন। বিহার সরকার নিহতদের পরিবারকে পাঁচ লক্ষ টাকা ও আহতদের ৫০ হাজার টাকা করে আর্থিক সহায়তা দেবে বলেও ঘোষণা করেছে।

আপনার মন্তব্য

Top