কুবি অর্থনীতি বিভাগে শিক্ষার্থীদের তালা

cuশেয়ারবাজার ডেস্ক: কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) অর্থনীতি বিভাগের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে পরীক্ষার নম্বরে গড়মিলের অভিযোগে বিভাগটি তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে শিক্ষার্থীরা।

বুধবার বিভাগের শ্রেণি কক্ষে ও বিভাগের সভাপতির কক্ষে তালা ঝুলিয়ে দেয়া হয়।

জানা যায়, বিভাগের শিক্ষক মঞ্জুর মোরশেদ মাস্টার্স ১ম সেমিস্টারের  একটি কোর্সে ৪০ নম্বরের ইনকোর্সে যে নম্বর প্রদান করেন তার সঙ্গে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের কাছে যে তালিকা দেওয়া হয়েছে তাতে গড়মিল রয়েছে বলে অভিযোগ উঠে। গড়মিলের বিষয়ে বিভাগের সভাপতির নিকট লিখিত আবেদন করেও কোন ফল না হওয়ায় বিভাগের তালা ঝুলিয়ে দেয় বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীরা।

মাস্টার্সের শিক্ষার্থী মানিক দাস ও মহিউদ্দিন ইনকোর্সের ফলাফল জানতে ওই শিক্ষকের কাছে গেলে তাদের নম্বর যথাক্রমে ৩১ ও ৩০ জানিয়ে দেওয়া হয়। পরবর্তীতে সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষার ফলাফলে জানা যায়, তাদেরকে ২৬ ও ২৩ নম্বর দেয়া হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখার বিভাগের প্রধান মোহ. আমিনুল ইসলাম আকন্দের নিকট লিখিত আবেদন করলে তিনি আবেদন পত্র গ্রহণ করেননি।

নিয়মানুযায়ী ইনকোর্সের ফলাফল নোটিশ বোর্ডে দেয়ার কথা থাকলেও মঞ্জুর মোরশেদ নোটিশ বোর্ডে ইনকোর্সের নম্বরের তালিকা  দেননি বলে অভিযোগ পাওয়া যায়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন শিক্ষার্থী জানান, তার কোর্সে আরো অনেক শিক্ষার্থীর ফলাফলেই গড়মিল রয়েছে।

সকল অভিযোগ অস্বীকার  করে অভিযুক্ত শিক্ষক মঞ্জুর মোর্শেদ বলেন, ‘তারা আমার কাছে পরীক্ষার নম্বর জানতে আসলে  তারা যে নম্বর পেয়েছে আমি সেই নম্বরের কথাই তাদের বলেছি। আমার কাছে নস্বরের কপি রয়েছে। পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের কার্যালয়েও সে তালিকা জমা দেওয়া হয়েছে। নোটশবোর্ডে নম্বর না দেয়ার বিষয়ে তিনি বলেন আমি আমার কোর্সের সকল পরীক্ষার নম্বর বোর্ডে দিয়ে দেই।

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেও তার বিরুদ্ধে পিএইচডি ডিগ্রির সনদ জালিয়াতির অভিযোগ উঠে। এ নিয়ে একটি জাতীয় দৈনিকে প্রতিবেদনও ছাপা হয়।

সার্বিক বিষয় নিয়ে অর্থনীতি বিভাগের সভাপতির কাছে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের কাছে কোন মন্তব্য করেননি।

 

শেয়ারবাজার/অ

আপনার মন্তব্য

Top