বন্ডের তালিকাভুক্তি ও লেনদেন পুঁজিবাজারে নয়

DSE-CSEশেয়ারবাজার রিপোর্ট: সরকারের ট্রেজারি বন্ডের তালিকাভুক্তি এবং লেনদেন  পুঁজিবাজারে আর হবে না।  এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জারি করেছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। গত ২৫ জানুয়ারি এ নির্দেশনা জারি করে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি । সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

নির্দেশনায় বলা হয়, পুঁজিবাজারের বৃহত্তর স্বার্থে এবং বিনিয়োগকারীর পুঁজির নিরাপত্তার লক্ষ্যে পুঁজিবাজারে সরকারের ৫ বছর ও ১০ বছর মেয়াদী ট্রেজারি বন্ড তালিকাভুক্তি ও লেনদেন সংক্রান্ত পূর্বের নির্দেশনা নাকোচ করে দেওয়া উচিত বলে বিএসইসি মনে করে। এরই অংশ হিসাবে সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন অধ্যাদেশ ১৯৬৯ (XVII) এর ২০-এ ক্ষমতাবলে কমিশন এসইসি/সিএমআরআরসিডি/২০০৪-১২৯-৩৭৮, তারিখ ১৯ ডিসেম্বর ২০০৪ জারিকৃত নির্দেশনা বাতিল বলে ঘোষণা করেছে।

জানা যায়, পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ট্রেজারি বন্ডগুলোর ইউনিট বিগত নয় বছর ধরে লেনদেন হয় না। বিশ্বব্যাংকের পরামর্শে ২০০৫ সালের ১ জানুয়ারি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ৭টি সরকারি ট্রেজারি বন্ড তালিকাভুক্ত করা হয়। তালিকাভুক্তির দিন ১ লাখ টাকায় একটি বন্ডের ইউনিটের উদ্বোধনী লেনদেন হয়। এরপর থেকে আর কোনো বন্ডের লেনদেন হয়নি। ইতোমধ্যে পুঁজিবাজারে চার মেয়াদের, অর্থাৎ ৫ বছর, ১০ বছর, ১৫ বছর এবং ২০ বছরমেয়াদী ২২১টি বন্ড তালিকাভুক্ত হয়েছে। এগুলোর বর্তমান পরিশোধিত মূলধন ৫৫ হাজার ৫৬৩ কোটি টাকা।

উল্লেখ্য, শেয়ারবাজারে সর্বশেষ ২০১১ সালের ৩০ অক্টোবর একটি বন্ড তালিকাভুক্ত করা হয়।

শেয়ারবাজার/অ

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top