বিশ্ব শেয়ারবাজারে বছরের বড় পতন

Stock exchangeশেয়ারবাজার ডেস্ক: টানা দ্বিতীয় দিনের মতো গতকাল বিশ্বের শেয়ারবাজারে দরপতন হয়েছে। দিনশেষে যুক্তরাষ্ট্রের শেয়ারবাজারের তিন শতাংশেরও বেশি দরপতন হয়েছে। ইউরোপ আর এশিয়ার প্রধান বাজারগুলোতেও একই প্রবণতা দেখা গেছে। সূত্র: বিবিসি বাংলা।

শুক্রবার ছিল লন্ডন শেয়ারবাজারের বছরের সবচেয়ে বেশি লোকসান ও মন্দার দিন লন্ডনের ফাইনান্সিয়াল টাইমস স্টক এক্সচেঞ্জ এর সূচক অনুযায়ী, গত সোমবারের পর থেকে শুক্রবার পর্যন্ত সূচক পড়েছে ৫ শতাংশেরও বেশি।

ডলারের বিপরীতে চীনের মুদ্রা ইউয়ানের বিনিময় মূল্য হ্রাস করার পর থেকেই এই পতন শুরু হয় বলে অনেকেই মনে করছেন। চীনের মত এত বড় পুঁজিবাজারের এই মন্দা এখন দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে এর সংগে বানিজ্যিক সম্পর্কযুক্ত দেশগুলোর কাছে। আমেরিকা থেকে শুরু করে ইউরোপ ও এশিয়ার অন্য সব বড় বাজারের জন্যও এর প্রভাব পড়তে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বিবিসির অর্থনীতি বিষয়ক সম্পাদক রবার্ট পেস্টন বলছেন, পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ চীনে দেখা দিয়েছে ধীর গতি, হয়তো এটি বিপজ্জনকভাবেই ধীর। জাপানও খুব ভালো অবস্থায় নেই। ফ্রান্সেও চিত্রটা খারাপ হয়ে আসছে। অন্যদিকে, ইউরোজোনের ছবিটা যতটা আশা করা হয়েছিল তার চেয়েও খারাপ। আর ব্রাজিলের মত উদীয়মান অর্থবাজারও ইতোমধ্যেই টানাপোড়েনে পড়েছে।

চীনা অর্থবাজারের প্রভাবে মার্কিন শেয়ারের দাম পড়েছে তিন শতাংশেরও বেশি। দেশটির ডো জোন্স ইনডেক্স-এর সূচক বলছে, গত চার বছরের মধ্যেই তাদের জন্য এটিই ছিল সবচেয়ে খারাপ সপ্তাহ।

অনেক জায়গায় তেলের চাহিদা ও দামও কমে গেছে। তবে, স্বর্ণের দাম কিছুটা বেড়েছে। এই অবস্থায়, ২০০৮-এর অর্থ সংকট মনে করে অনেকেই আশংকা করতে শুরু করেছেন যে, আরেকটা বিশ্ব মন্দা এলো কিনা?

শেয়ারবাজারনিউজ/রু

আপনার মন্তব্য

Top