কমেছে বাজার মূলধন

indexশেয়ারবাজার রিপোর্ট: সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে উভয় শেয়ারবাজারে সূচকের উর্ধ্বমুখী প্রবণতায় শেষ হয় লেনদেন। এর ফলে টানা ২ দিনের পতন শেষে উত্থানে বিরাজ করছে বাজার। বৃহস্পতিবার শুরুতে উত্থানে থাকলেও কিছুক্ষণ পর বিক্রয় চাপে ধীরে ধীরে পড়তে থাকে এবং শেষভাগে ক্রয় চাপে আবার বাড়ে সূচক। এদিন সূচকের পাশাপাশি বেড়েছে বেশীরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর। আর টাকার অংকেও উভয় বাজারে লেনদেন কিছুটা বেড়েছে। তবে আজ কমেছে ডিএসইর বাজার মূলধন।

ভাল মৌলভিত্তিসম্পন্ন কোম্পানির প্রতি বিনিয়োগকারীরা আগ্রহ হারিয়ে ফেলছেন। বিশেষ করে ব্যাংক ও আর্থিক খাতসহ অন্য খাতের মৌলভিত্তি শেয়ারে প্রাতিষ্ঠানিকদের কোন সক্রিয় অংশ গ্রহণ লক্ষ্য করা যায় না। তাই পুঁজিবাজারের স্থিতিশীলতা শক্তিশালী করতে হলে সকল প্রাতিষ্ঠানিকদের মৌলভিত্তি সম্পন্ন কোম্পানি প্রতি সক্রিয় ভুমিকা পালনের বিকল্প নেই বলে মনে করছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা।

দিনশেষে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ১ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৪৭৬০ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ০.২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১১৬৭ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ১৮১৪ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩২০টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৫৬টির, কমেছে ১১৭টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৭টি কোম্পানির শেয়ার দর। যা টাকায় লেনদেন হয়েছে ৪৪৮ কোটি ২৯ লাখ ৫২ হাজার টাকা।

আজ ডিএসইর বাজার মূলধন অবস্থান করছে ৩ লাখ ৩৩ হাজার ১৮৮ কোটি ১৬ লাখ ২১ হাজার টাকায়। এর আগের কার্যদিবসে যার অবস্থান ছিলো ৩ লাখ ৩৩ হাজার ৪০৯ কোটি ৯ লাখ ৯৫ হাজার টাকা। সে হিসবে আজ বাজার মূলধন কমেছে ২২০ কোটি ৯৩ লাখ ৭৪ হাজার টাকা বা ০.০৬ শতাংশ।

এর আগে বুধবার ডিএসই ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ২৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৪৭৫৮ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৭ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ১১৬৭ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ১৮১৫ পয়েন্টে। ওইদিন লেনদেন হয় ৪১৫ কোটি ৭৩ লাখ ১৪ হাজার টাকা। সে হিসেবে আজ ডিএসইতে লেনদেন কমেছে ৩২ কোটি ৫৬ লাখ ৩৮ হাজার টাকা বা ৭.৮৩ শতাংশ।

এদিকে দিনশেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাধারণ মূল্যসূচক ৭ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৮৮৭২ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২৫৬টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৯৮টির, কমেছে ১১৭টির ও দর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪১টির। যা টাকায় লেনদেন হয়েছে ৩১ কোটি ১ লাখ ৪৬ হাজার টাকা।

এর আগে সোমবার সিএসইর সাধারণ মূল্যসূচক ৩৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৮৮৬৭ পয়েন্টে। ওইদিন লেনদেন হয় ২৯ কোটি ৬১ লাখ ০৭ হাজার টাকা। সে হিসেবে আজ সিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ১ কোটি ৪০ লাখ ৩৯ হাজার টাকা বা ৪.৭৪ শতাংশ।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/

আপনার মন্তব্য

Top