২৪ কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ

Arthik Protibadon Reportশেয়ারবাজার ডেস্ক: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ২৪ কোম্পানি সমাপ্ত প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। এর মধ্যে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) বেড়েছে ১২ টি কোম্পানির। বাকি ১২ কোম্পানির মধ্যে একটি লোকসানী কোম্পানির লোকসান বেড়েছে এবং আরেকটি লোকসানী কোম্পানি লোকসান কমিয়েছে। এছাড়া ১০টি কোম্পানির ইপিএস আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় কমেছে।

কোম্পানিগুলোর প্রান্তিক প্রতিবেদন তুলে ধরা হল:

গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্স:

তৃতীয় প্রান্তিকে গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৮৫ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ০.৪৪ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১২.৭৩ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ০.৭৬ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ০.২১ টাকা এবং এনএভিপিএস ছিল ১২.৭৫ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.০৯ টাকা।

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.১১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে সমন্বিত আয় ছিল ০.০২ টাকা।

পূবালী ব্যাংক:

তৃতীয় প্রান্তিকে পূবালী ব্যাংকের শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৩২ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের সমন্বিত পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ০.৭৪ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৬.৪৫ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ১.৮৭ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ২.৩২ টাকা এবং এনএভিপিএস ছিল ২৩.৪৮ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.৪৫ টাকা বা ২৪.০৬ শতাংশ।

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৯০ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে সমন্বিত আয় ছিল ০.০১ টাকা।

ডাচ-বাংলা ব্যাংক:

তৃতীয় প্রান্তিকে ডাচ-বাংলা ব্যাংকের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮.৮১ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ১০৮.২১ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৭৭.২৮ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৭.২৭ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ২৬৬.১২ টাকা এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ৬৮.৫০ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ১.৫৪ টাকা বা ২১. ১৮ শতাংশ।

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.২৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে সমন্বিত আয় ছিল ২.৬৩ টাকা।

প্রিমিয়ার ব্যাংক:

তৃতীয় প্রান্তিকে প্রিমিয়ার ব্যাংকের শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৪১ টাকা, শেয়ার প্রতি সমন্বিত কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ১.২১ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৫.৫৮ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) ছিল ০.২৪ টাকা, সমন্বিত এনওসিএফপিএস ছিল ১.৪৪ টাকা এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ১৫.৮৯ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.১৭ টাকা।

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি সমন্বিত লোকসান হয়েছে ০.২১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে সমন্বিত লোকসানের ছিল ০.৩৬ টাকা।

লিগ্যাসি ফুটওয়্যার:

প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.১১ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ০.১৫ টাকা। অর্থাৎ গত অর্থবছরের তুলনায় এ কোম্পানির ইপিএস কমেছে ০.০৪ টাকা।

এছাড়া শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৭.৭৩ টাকা ও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ ০.০৭ টাকা

এদিকে তিন মাসের (জুলাই’১৫-সেপ্টেম্বর’১৫) প্রতিবেদন অনুযায়ী, এ কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ০.০১ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ০.০২ টাকা।

ন্যাশনাল টি:

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ন্যাশনাল টি’র তৃতীয় প্রান্তিক (জানুয়ারি’১৫-সেপ্টেম্বর’১৫) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.২৮ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৪.৮৭ টাকা।

এছাড়া শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১২৪.৩৫ টাকা ও শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ ৭.৬২ টাকা

এদিকে তিন মাসের (জুলাই’১৫-সেপ্টেম্বর’১৫) প্রতিবেদন অনুযায়ী, এ কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ১২.২৫ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৮.৯৭ টাকা।

ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক:

তৃতীয় প্রান্তিকে ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৫৯ টাকা, শেয়ার প্রতি সমন্বিত কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ১২.০৪ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৩.৬২ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) ছিল ০.৫৪ টাকা, সমন্বিত এনওসিএফপিএস ছিল ২৮.২১ টাকা এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ৯.৭০ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.০৫ টাকা।

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.১৫ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে সমন্বিত আয় ছিল ০.০৯ টাকা।

লিবরা ইনফিউশন:

প্রথম প্রান্তিকে লিবরা ইনফিউশনের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.৪৪ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৬.১৫ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৫৭৩ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ৫.৯২ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ১৩.৭৪ টাকা (মাইনাস) এবং এনএভিপিএস ছিল ১৫৬৯ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে ২.৪৮ টাকা বা ৪১.৮৯ শতাংশ।

আরগন ডেনিমস:

তৃতীয় প্রান্তিকে আরগন ডেনিমসের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.২৭ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ২.৫৮ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ পুনর্মূল্যায়নসহ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৪.৭৭ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২.৮৪ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ৪.১১ টাকা এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরে পুনর্মূল্যায়নসহ এনএভিপিএস ছিল ২৭.০০ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে ০.৫৭ টাকা।

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৮৮ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে সমন্বিত আয় ছিল ০.৮৬ টাকা।

পপুলার লাইফ ইন্স্যুরেন্স:

প্রাপ্ত তথ্যমতে, চলতি বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির লাইফ ফান্ড ১ কোটি ২১ লাখ ৯০ হাজার টাকা কমে ফান্ডের আকার সর্বমোট ২ হাজার ৮০০ কোটি ৫১ লাখ ৭০ হাজার টাকা হয়েছে। যা আগের বছর একই সময়ে লাইফ ফান্ড ২৪০ কোটি ১২ লাখ ৭০ হাজার টাকা বেড়ে ফান্ডের আকার হয়েছিলো ২ হাজার ৭১৯ কোটি ৫৪ লাখ ১০ হাজার টাকা।

এদিকে গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানিটির প্রিমিয়াম আয় কমেছে ৩৬ কোটি ৪২ লাখ ১০ হাজার টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে প্রিমিয়াম আয় বেড়েছিলো ৯২ কোটি ১২ লাখ ৪০ হাজার টাকা।

এমজেএল বিডি লিমিটেড:

তৃতীয় প্রান্তিকে এমজেএল বিডির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৩১ টাকা, শেয়ার প্রতি সমন্বিত কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ৩.৬৭ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৩৩.০৮ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) ছিল ৩.৩৩ টাকা, সমন্বিত এনওসিএফপিএস ছিল ৪.০৫ টাকা এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ৩১.২৬ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে ১.০২ টাকা বা ৪৪.১৬ শতাংশ।

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৫৯ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে সমন্বিত আয় ছিল ১.১৪ টাকা।

স্কয়ার টেক্সটাইল:

তৃতীয় প্রান্তিকে স্কয়ার টেক্সটাইলের শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.৭৩ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের সমন্বিত পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ৬.২২ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৪১.৮৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ৪ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ৫.৭২ টাকা এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ৩৯.৯৩ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে ০.২৭ টাকা।

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.২৬ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে সমন্বিত আয় ছিল ১.০৯ টাকা।

জিবিবি পাওয়ার:

তৃতীয় প্রান্তিকে জিবিবি পাওয়ারের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.১০ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ১.০৩ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২০.৬৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ০.৯৬ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ০.৫১ টাকা এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ২২.৬৮ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.১৪ টাকা।

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.২৩ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে সমন্বিত আয় ছিল ০.২৮ টাকা।

স্কয়ার ফার্মাসিটিক্যালস:

দ্বিতীয় প্রান্তিকে স্কয়ার ফার্মার শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬.০৯ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের সমন্বিত পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ৬.৮৭ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৫৩.৩৭ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ৪.৩২ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ৩.৯৪ টাকা এবং ৩১ মার্চ ২০১৫ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ৪৯.৮৬ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ১.৭৭ টাকা বা ৪০.৯৭ শতাংশ।

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.১৮ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে সমন্বিত আয় ছিল ২.০৯ টাকা।

আইসিবি ইসলামী ব্যাংক:

তৃতীয় প্রান্তিকে আইসিবি ইসলামী ব্যাংকের শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.২৩ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) (মাইনাস) ০.৫৩ টাকা এবং শেয়ার প্রতি দায় হয়েছে ১৪.৭২ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ০.৫৩ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ১.৪২ টাকা এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরে শেয়ার প্রতি দায় ছিল ১৪.৪৯ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির লোকসান কমেছে ০.৩০ টাকা।

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.০৯ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে লোকসান ছিল ০.১৩ টাকা।

বিডি ল্যাম্পস:

তৃতীয় প্রান্তিকে বিডি ল্যাম্পসের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৩৯ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ২.৯৯ টাকা (মাইনাস) এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৬৬.৮০ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৮৫ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ২.৫৩ টাকা এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ৬৭.৩১ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ১.৫৪ টাকা বা ১৮১. ১৮ শতাংশ।

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.২৩ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ০.২৯ টাকা।

সাউথইস্ট ব্যাংক:

তৃতীয় প্রান্তিকে সাউথইস্ট ব্যাংকের শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৫৬ টাকা, শেয়ার প্রতি সমন্বিত কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ১.৫৬ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৮.৭১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ২.৪৬ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ৮.০৮ টাকা এবং এনএভিপিএস ছিল ২৫.০১ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.১০ টাকা বা।

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৭৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ০.৬৯ টাকা।

আরএন স্পিনিং মিলস:

তৃতীয় প্রান্তিকে আরএন স্পিনিংয়ের শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.২৭ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ০.৩৪ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৫.৬৫ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ১.৬৪ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ৩.৭১ টাকা এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরের এনএভিপিএস ছিল ২৫.৩৮ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে ১.৩৭ টাকা বা ৮৩. ৫৪ শতাংশ।

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.০৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ০.২৭ টাকা।

ইউনিয়ন ক্যাপিটাল:

তৃতীয় প্রান্তিকে ইউনিয়ন ক্যাপিটালের শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৭৬ টাকা, শেয়ার প্রতি সমন্বিত কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ৫.২৩ টাকা (মাইনাস) এবং শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৮.১১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) ছিল ০.৬১ টাকা, সমন্বিত এনওসিএফপিএস ছিল ০.২১ টাকা এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ১৩.৫৯ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.১৫ টাকা বা ২৪.৫৯ শতাংশ।

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৪৭ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে সমন্বিত আয় ছিল ০.৩০ টাকা।

ন্যাশনাল ব্যাংক:

তৃতীয় প্রান্তিকে ন্যাশনাল ব্যাংকের শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৯০ টাকা, শেয়ার প্রতি সমন্বিত কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ৬.২৭ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৭.৯০ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) ছিল ০.৭৭ টাকা, সমন্বিত এনওসিএফপিএস ছিল ০.২৫ টাকা (মাইনাস) এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ১৬.৩৭ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.১৩ টাকা।

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.২৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে সমন্বিত আয় ছিল ০.০৮ টাকা।

ইউনাইটেড কর্মাসিয়াল ব্যাংক:

তৃতীয় প্রান্তিকে ইউসিবিএলের শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৫৪ টাকা, শেয়ার প্রতি সমন্বিত কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ১০.৯১ টাকা (মাইনাস) এবং শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৪.২৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) ছিল ২.৩৬ টাকা, সমন্বিত এনওসিএফপিএস ছিল ১৩.৫৪ টাকা (মাইনাস) এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ২৫.১৪ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.১৮ টাকা।

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৪৭ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে সমন্বিত আয় ছিল ০.৪৩ টাকা।

সোনারগাঁও টেক্সটাইল:

তৃতীয় প্রান্তিকে সোনারগাঁও টেক্সটাইলের শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ১.৫৩ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) (মাইনাস) ০.০৭ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সমন্বিত (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৯.৩৫ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ০.৬৩ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ১.০৭ টাকা এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ৩১.৫৩ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান বেড়েছে ০.৯০ টাকা।

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.৫২ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে লোকসান ছিল ০.১৮ টাকা।

এপেক্স ফুটওয়্যার:

তৃতীয় প্রান্তিকে এপেক্স ফুটওয়্যারের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৩৬ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ৭৬.৬৩ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৩০.২৯ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১৫.৩৬ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ২৯.৬৭ টাকা এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ২৩৪.২৯ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে ১৪.০০ টাকা বা ১১.২৯ গুণ।

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৩.৩৬ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে সমন্বিত আয় ছিল ১৯.০৬ টাকা।

ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস:

তৃতীয় প্রান্তিকে ইন্টারন্যাশনাল লিজিংয়ের শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ১.৩৬ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ৫.৭৩ টাকা (মাইনাস) এবং শেয়ার প্রতি দায় হয়েছে ১০.৭৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ০.০৭ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ২.৩৯ টাকা (মাইনাস) এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ১২.৬১ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে ১.২৯ টাকা বা ১ হাজার ৮৪২.৮৬ শতাংশ।

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর ১৫) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি সমন্বিত লোকসান হয়েছে ১.০০ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে সমন্বিত আয় ছিল ০.৩১ টাকা।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ওহসি/অ

আপনার মন্তব্য

Top