আজ: বুধবার, ০৪ অগাস্ট ২০২১ইং, ২০শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

২২ ফেব্রুয়ারী ২০১৫, রবিবার |



kidarkar

পদ্মায় কার্গোর ধাক্কায় লঞ্চ ডুবি

lonchশেয়ারবাজার রিপোর্ট: পদ্মায় কার্গোর ধাক্কায় যাত্রীবাহী একটি লঞ্চ ডুবে গেছে। নদীর মাঝখানে সার ভর্তি কার্গোর ধাক্কায় এমভি মোস্তফা-৩ নামে ওই লঞ্চটি ডুবে যায় বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।

আজ রোববার বেলা পৌনে ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।

জানাযায়, লঞ্চ ডুবির পরপরই শতাধিক যাত্রী সাঁতরে নৌকা ও লঞ্চের সহায়তায় তীরে উঠতে সক্ষম হয়। পরে যাত্রীদের উদ্ধারে নৌপুলিশের পাশাপাশি স্থানীয় ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা উদ্ধার কাজ শুরু করে। ইতোমধ্যে ৪০ যাত্রীকে উদ্ধার করা হয়েছে। আরও শতাধিক যাত্রী নিখোঁজ রয়েছেন বলে জানান পাটুরিয়া নৌপুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দুলাল সরকার।

ডুবে যাওয়া লঞ্চ থেকে উদ্ধার পাওয়া যাত্রী হাফিজুর রহমান শেখের ভাষ্য, বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পাটুরিয়া ঘাট থেকে লঞ্চটি দৌলতদিয়ার উদ্দেশে ছাড়ে। রওনা হওয়ার ১৫ মিনিট পরে আড়াআড়িভাবে আসা একটি কার্গো জাহাজ লঞ্চটির মাঝখান বরাবর আঘাত করে। এতে লঞ্চটি উল্টে যায়। তিনি লঞ্চের ডেকে ছিলেন। ধাক্কায় তিনি নদীতে পড়ে যান।

পাটুরিয়া লঞ্চঘাট শাখার সুপারভাইজার আব্দুল হাই ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আড়াইশ যাত্রী নিয়ে পাটুরিয়া থেকে ‘এমভি মোস্তফা’ দৌলতদিয়া যাচ্ছিল। পদ্মার মাঝখানে যেতেই বাঘাবাড়ী থেকে আসা একটি ইউরিয়া সারভর্তি কার্গো ওই লঞ্চকে ধাক্কা দেয়। এতে আড়াইশ যাত্রী নিয়ে লঞ্চটি ডুবে যায়।

এ ঘটনার পরপরই লঞ্চটির শতাধিক যাত্রী সাঁতরে নৌকা ও লঞ্চের সহায়তায় তীরে উঠতে সক্ষম হয়। পরে নৌপুলিশের পাশাপাশি স্থানীয় ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা আরও ৪০ যাত্রীকে উদ্ধার করে। তবে লঞ্চের ভেতরে থাকা শতাধিক যাত্রী বের হতে পারেননি বলে জানান তিনি।

এদিকে ডুবে যাওয়া লঞ্চটি উদ্ধারে মাওয়া থেকে রওনা দিয়েছে উদ্ধারকারী জাহাজ রুস্তম। তবে কখন ঘটনাস্থলে উদ্ধারকারী জাহাজটি পৌঁছবে এ ব্যপারে কিছু জানাতে পারেননি তিনি।

 

শেয়ারবাজার/মু

 

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.