গভর্নরকে সময় দেননি প্রধানমন্ত্রী, জরুরী বৈঠক বাতিল: সরে যেতে পারেন গভর্নর

Atiur_rahman-1428577529শেয়ারবাজার রিপোর্ট: অর্থমন্ত্রীর সাথে নির্ধারিত বৈঠক বাতিল করে প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা করতে গিয়েছিলেন দেশে নেমেই। কিন্তু সময় দেননি প্রধানমন্ত্রী। অন্যদিকে, কেন্দ্রীয় ব্যাংকে আজ নির্ধারিত জরুরী বৈঠকও বাতিল করা হয়েছে। তাই গভর্নরের ভাগ্য নির্ধারন হয়ে গেছে বলেই সরকারের উর্ধতন মহল দাবী করেছেন। সূত্রগুলো বলছে আজ দিনের মধ্যেই আনুষ্ঠানিক ঘোষণার মাধ্যেমে দায়িত্ব ছাড়তে পারেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান।

এদিকে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলছেন কেন্দ্রিয় ব্যাংকে বড় ধরনের পরিবর্তন আসতে পারে। এর অংশ হিসেবে এর মধ্যেই ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদে নতুন দুই বিশেষজ্ঞকে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দেওয়া হবে গভর্নরের সাথে আলোচনার পর। আজ এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। গতকাল সোমবারের মন্ত্রীসভা বৈঠকের পর থেকেই গভর্নরকে সরিয়ে দেওয়ার বিষয়টি আলোচনায় ছিল।

আজ অর্থ মন্ত্রনালয়ে জরুরী সংবাদ সম্মেলন হবে বলে জানানো হয়েছে। এ সংবাদ সম্মেলনেই গভর্নরের ভবিষ্যৎ জানানো হবে বলে জানা গেছে। কেন্দ্রিয় ব্যাংকের এমন দায়িত্ব অবহেলা এবং তা লুকিয়ে রাখার ব্যাপারে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন অর্থমন্ত্রী। এ ধরনের ‘স্পর্ধা’ দেখানো শাস্তি হিসেবে নির্বাহী পর্যায়ে পরিবর্তন করা হবে বলেও জানান তিনি। গতকাল সোমবার মন্ত্রিসভা বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলার পর সচিবালয়ে নিজের কার্যালয়ে ফিরলে সাংবাদিকরা বাংলাদেশ ব্যাংকের বিষয়ে কী পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে, তা অর্থমন্ত্রীর কাছে জানতে চান। এর জবাবে তিনি বলেন, ‘ডেফিনেটলি দেয়ার উড বি চেইঞ্জেস। এতো বড় একটা সিরিয়াস ব্যাপার। আই টেক ইট ভেরি সিরিয়াসলি।’

প্রধানমন্ত্রী কোনো নির্দেশনা দিয়েছেন কি-না জানতে চাইলে মুহিত নিজের মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ‘আই অ্যাম ওয়েটিং ফর আতিউর। আমি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করব বলেছিলাম, আলোচনা আমার হয়েছে।’ আর কোনো বিবৃতি দেওয়া হবে কি না- এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন ‘আর কোনো স্টেটমেন্ট নাই। গভর্নর ফিরে আসলে স্টেটমেন্ট দেব। সেটা আজও হতে পারে, কালও হতে পারে। কারণ সে কখন আসবে-তার কোনো ঠিক নাই।’ দুপুরে অর্থমন্ত্রী একথা বলার পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন,  ‘যে মুহূর্তে প্রধানমন্ত্রী বিরাট বিরাট প্রকল্প করছেন, রিজার্ভ রেকর্ড পরিমাণ, জিডিপি ৭ শতাংশ হবে বলে মনে করছি- সেই  মুহূর্তে বাংলাদেশ ব্যাংকের এই ঘটনা আমাদের জন্য দুর্ভাগ্যজনক। এটা আমরা কল্পনা করি নাই, আমরা চিন্তা করি নাই, এ ব্যাপারে অবশ্যই বাস্তব পদক্ষেপ গ্রহণ করব। ব্যাপারটা ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রী, অর্থমন্ত্রী- আমরা সকলেই গুরুত্ব সহকারে নিয়েছি ‘

দুপুরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার পর মুহিত তার কার্যালয়েই ছিলেন। গভর্নর আতিউর বিকালে  ঢাকায় ফেরার পর সচিবালয়ে গিয়ে অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করবেন বলেও গুঞ্জন ছড়ায়। তবে সচিবালয়ে যাননি তিনি। রাতে কার্যালয় থেকে বের হওয়ার সময়ও অর্থমন্ত্রী আজ এ বিষয়ে নিশ্চিত তথ্য জানানো হবে বলে আশ্বাষ দেন।

এদিকে গতকাল সোমবার রাতে সময় না পাওয়ার পর আজ মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রীর সময়ের জন্য আবেদন করেছেন গভর্নর। এ বিষয়ে নিশ্চিত হওয়ার জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক আ.ফ.ম আসাদুজ্জামানকে বারবার চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

শেয়ারবাজারনিউজ/ওহ/সা

আপনার মন্তব্য

Top