৮৮ কোম্পানিকে জুন ক্লোজিং করতে হবে

dse-cseশেয়ারবাজার রিপোর্ট: এখন থেকে ব্যাংক,বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান ছাড়া অন্যান্য সকল কোম্পানির হিসাব বছর জুন ক্লোজিং হতে হবে। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর), কর নীতি শাখা,পরিপত্র- ০১ (আয়কর)/২০১৫ তে এমন নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এদিকে এনবিআরের এরকম নির্দেশনা পাওয়ার পর থেকে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলো তাদের হিসাব বছর জুন ক্লোজিং করার জন্য কাজ করে যাচ্ছে। যদিও এখন পর্যন্ত পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) ও দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জ থেকে এরকম কোনো নির্দেশনা দেয়া হয়নি। অন্যদিকে ২০১৬-২০১৭ অর্থবছর থেকেই কোম্পানিগুলোকে তাদের হিসাব সমাপ্তির বছর অভিন্ন অর্থাৎ ৩০ জুন করতে হবে বলে এনবিআরের নির্দেশনা রয়েছে।

এনবিআরের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, আয়কর অধ্যাদেশের ধারা ২ এর উপ-ধারা (৩৫) এ Income year এর বিদ্যমান সংজ্ঞাটি অর্থ আইন,২০১৫ এর মাধ্যমে প্রতিস্থাপন করা হয়েছে। বিদ্যমান আইনের সংজ্ঞা অনুযায়ী একজন করদাতা বছরের যে কোন দিনকেই হিসাব সমাপ্তির তারিখ হিসেবে গণ্য করে হিসাবের খাতাপত্র সংরক্ষণ এবং সে অনুযায়ী হিসাব বিবরণী ও আয়কর রিটার্ন প্রস্তুত করতে পারেন। প্রতিস্থাপিত সংজ্ঞা অনুযায়ী ব্যাংক,বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান ব্যতীত অন্যান্য করদাতার ক্ষেত্রে হিসাব সমাপ্তির অভিন্ন তারিখ ৩০ জুন নির্ধারণ করা হয়েছে। অর্থ আইন,২০১৫ এর ধারা ১ এর উপ-ধারা (৩) মোতাবেক Income year  এর প্রতিস্থাপিত সংজ্ঞাটি ১ জুলাই,২০১৬ হতে আয়কর অধ্যাদেশের যথাস্থানে প্রতিস্থাপিত মর্মে গণ্য হবে যা ২০১৬-২০১৭ কর বছর হতে কার্যকর হবে।

জানা যায়, এনবিআরের নির্দেশনা অনুযায়ী পুঁজিবাজারের ৮৮টি কোম্পানিকে তাদের হিসাব জুন ক্লোজিং করতে হবে। ব্যাংক,বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান ছাড়া ডিসেম্বর ক্লোজিং রয়েছে এমন কোম্পানির সংখ্যা ৭৩টি। এছাড়া মার্চ ক্লোজিং ৫টি, এপ্রিল ক্লোজিং ২টি, জুলাই ক্লোজিং ১টি, আগস্ট ক্লোজিং ১টি, সেপ্টেম্বর ক্লোজিং ৫টি এবং অক্টোবর ক্লোজিং রয়েছে ১টি কোম্পানি। এসব কোম্পানির হিসাব বছর এখন থেকে জুন ক্লোজিং করতে হবে।

ডিসেম্বর ক্লোজিং ৭৩ কোম্পানি হলো: আরামিট সিমেন্ট, কনফিডেন্স সিমেন্ট, হাইডেলবার্গ সিমেন্ট, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, মেঘনা সিমেন্ট, আরএকে সিরামিক, শাইন পুকুর সিরামিক, আজিজ পাইপস, বিডি ল্যাম্পস, বিডি থাই, বিএসআরএম স্টীল, বিএসআরএম লিমিটেড, গোল্ডেন সন, কেএন্ডকিউ, কেডিএস এক্সেসরিজ, মুন্নু জুট, রংপুর ফাউন্ড্রি, সিঙ্গার বাংলাদেশ, ব্যাটবিসি, বিচ হ্যাচারী, ন্যাশনাল টি, আরডি ফুডস, বিডি ওয়েল্ডিং, জিবিবি পাওয়ার, খুলনা পাওয়ার, লিন্ডে বাংলাদেশ, মবিল যমুনা, সামিট পূর্বাঞ্চল পাওয়ার, সামিট পাওয়ার, ইউনাইটেড পাওয়ার, ইনটেক অনলাইন, ইনফরমেশন সার্ভিস, আরামিট, বার্জার পেইন্টস, বেক্সিমকো, জিকিউ বলপেন, ন্যাশনাল ফিড, সামিট এ্যালায়েন্স পোর্ট, এ্যাপেক্স ফুটওয়্যার, বাটা সু, লিগ্যাসী ফুটওয়্যার, গ্রামীণ ফোন, বিডি সার্ভিস, ইউনিক হোটেল, এসিআই, এসিআই ফর্মূলেশন, এ্যাকটিভ ফাইন কেমিক্যালস, এএফসি এগ্রো, এমবী ফার্মা, বেক্সিমকো ফার্মা, বেক্সিমকো সিনথেটিক, গ্লোবাল হ্যাভী কেমিক্যাল, গ্ল্যাক্সোস্মিথ ক্লাইন, ইবনে সিনা, জেএমআই সিরিঞ্জ, ওরিয়ন ফার্মা, রেকিট বেনকিজার, রেনেটা, সালভো কেমিক্যাল, ওয়াটা কেমিক্যাল, আর্গন ডেনিমস, সিএমসি কামাল, ফ্যামিলিটেক্স, জেনারেশন নেক্সট, রিজেন্ট টেক্সটাইল, আরএন স্পিনিং, সাফকো স্পিনিং, শাশা ডেনিমস, সোনার গাঁ টেক্সটাইল, স্কয়ার টেক্সটাইল, তসরিফা ইন্ডাষ্ট্রিজ, তুংহাই নিটিং এবং জাহিন স্পিনিং মিলস লিমিটেড।

এছাড়া মার্চ ক্লোজিং কোম্পানিগুলো হলো: নাভানা সিএনজি, ম্যারিকো, স্কয়ার ফার্মা, এ্যাপেক্স স্পিনিং, স্টাইল ক্রাফট। এপ্রিল ক্লোজিং জিপিএইচ ইস্পাত এবং সায়হাম কটন,জুলাই ক্লোজিং ইস্টার্ন হাউজিং, আগস্ট ক্লোজিং আফতাব অটো,সেপ্টেম্বর ক্লোজিং এস আলম কোল্ড রোল্ড, জেমিনি সী ফুড, এনভয় টেক্সটাইল, এইচ আর টেক্সটাইল এবং ম্যাকসন্স স্পিনিং। এছাড়া অক্টোবর ক্লোজিং কোম্পানিটি হলো সিনো বাংলা ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেড।

এদিকে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড, কর নীতি শাখা,পরিপত্র- ০১ (আয়কর)/২০১৫ তে হিসাব সমাপ্তির অভিন্ন তারিখ যে ৩০ জুন নির্ধারণ করা হয়েছে তার প্রতিস্থাপিত সংজ্ঞার উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট্যসমূহ নিম্নরুপ:

০১.ব্যাংক,বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান ব্যতীত অন্যান্য সকল করদাতার আয় বছরের হিসাব সমাপ্তির তারিখ হবে ৩০ জুন।

০২.ব্যাংক,বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে আয় বছর হবে ১ জানুয়ারি হতে শুরু করে পরবর্তী ১২ মাস। অর্থাৎ এক্ষেত্রে হিসাব সমাপ্তির তারিখ হবে সংশ্লিষ্ট বছরের ৩১ ডিসেম্বর।

০৩.নতুন ব্যবসার ক্ষেত্রে আয় আয় বছর হবে ব্যবসা শুরুর তারিখ হবে পরবর্তী ৩০ জুন পর্যন্ত সময়কাল।

প্রতিস্থাপিত উক্ত সংজ্ঞার ফলে ব্যাংক,বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান ব্যতীত অন্যান্য যে সকল করদাতার ৩০ জুন ভিন্ন অন্য কোন তারিখকে হিসাব সমাপ্তির কাল হিসেবে গণ্য করে আসছেন, সে সকল করদাতা কিভাবে নতুন প্রবর্তিত বিধান অনুসারে ৩০ জুন তারিখ হিসাব সমাপ্তির বা আয় বছর সমাপ্তির তাখির গণ্য করে হিসাব বিবরণী প্রস্তুত আয় বছর ‍ও কর বছর নির্ধারণ করবেন তা নীচের উদাহরণের মাধ্যমে স্পষ্ট করা হলো:

উদাহরণ:

ABC লিমিটেড কোম্পানির (যা ব্যাংক,বীমা বা আর্থিক প্রতিষ্ঠান নয়) হিসাব সমাপ্তির তারিখ ৩১ ডিসেম্বর। বিদ্যমান বিধান অনুযায়ী ৩১ ডিসেম্বর ২০১৫ তারিখে সমাপ্ত আয় বছর (income year) সংশ্লিষ্ট কর বছর (assessment year) ২০১৬-২০১৭। আয়কর অধ্যাদেশ,১৯৮৪ এর ৭৫ ধারার বিধান অনুযায়ী উক্ত কোম্পানি করদাতার ২০১৫-২০১৬ কর বছরের আয়কর রিটার্ন দাখিলের শেষ তারিখ ১৫ জুলাই,২০১৬। প্রতিস্থাপিত বিধান অনুযায়ী ৩০ জুন আয় বছরের হিসাব সমাপ্তির তারিখ বিধায় কর নির্ধারণে আয় বছরের ধারাবাহিকতার প্রয়োজনে ১ জানুয়ারি,২০১৬ হতে ৩০ জুন,২০১৬ পর্যন্ত সময়কালের জন্য ABC লিমিটেড কোম্পানিকে আরেকটি পৃথক হিসাব বিবরণী ও আয়কর রিটার্ন প্রস্তুত করতে হবে। এক্ষেত্রেও ABC কোম্পানির আয় বছর সংশ্লিষ্ট অভিন্ন কর বছর হবে ২০১৬-২০১৭। অর্থাৎ একই কর বছর ২০১৬-২০১৭ তে ABC কোম্পানির দুটি কর নির্ধারণ প্রক্রিয়া প্রযোজ্য হবে; প্রথমটি পূর্বের অনুসৃত হিসাব পদ্ধতি অনুযায়ী জানুয়ারি-ডিসেম্বর অর্থাৎ প্রথম ১২ মাসের জন্য এবং শেষোক্তটি নব প্রবর্তিত বিধানের আলোকে পরবর্তী জানুয়ারি থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত। একই কর বছরের জন্য দুটি হিসাবকাল অনুসরণের কারণে  এরূপ কোম্পানি করদাতাদের ক্ষেত্রে ৭৫ ধারায় আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময়সীমা হবে নিম্নরূপ:

০১. ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত আয় বছরের ক্ষেত্রে পরবর্তী বছরের ১৫ জুলাই; এবং

০২. ৩০ জুন তারিখে সমাপ্ত আয় বছরের ক্ষেত্রে পরবর্তী ৩১ ডিসেম্বর।

উল্লেখ্য, কোম্পানি ব্যতীত অন্যান্য শ্রেণীর করদাতাদের ক্ষেত্রে উপরোক্ত উদাহরণ অনুযায়ী দুটি হিসাবকালের জন্য অভিন্ন কর বছরের ক্ষেত্রে আয়কর অধ্যাদেশ,১৯৮৪ এর ৭৫ ধারা অনুযায়ী রিটার্ন দাখিলের শেষ সময় হবে ৩০ সেপ্টেম্বর।

অর্থাৎ পরিবর্তিত এ বিধানের প্রয়োগিকতা বিবেচনায় এ বিধান কার্যকর সংশ্লিষ্ট কর বছরের ক্ষেত্রে ১২ মাসের অধিক সময়কাল বিবেচনায় প্রথম বারের মত দু’টি পৃথক সময়কালের জন্য হিসাব বিবরণী ও আয়কর রিটার্ন দাখিল করার প্রয়োজন হবে পারে। পরবর্তী কর বছর থেকে যথানিয়মে জুলাই-জুন সময়কালের তথা ১২ মাস ভিত্তিক আয় বছরের জন্য হিসাব বিবরণী ও রিটার্ন দাখিল করতে হবে।

অর্থ আইন,২০১৫ এর ধারা ১ এর উপ-ধারা (৩) মোতাবেক Income year  এর প্রতিস্থাপিত সংজ্ঞাটি ১ জুলাই,২০১৬ হতে আয়কর অধ্যাদেশের যথাস্থানে প্রতিস্থাপিত মর্মে গণ্য হবে যা ২০১৬-২০১৭ কর বছর হতে কার্যকর হবে।

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

Tags , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , ,

আপনার মন্তব্য

One Comment;

  1. Dr. Altaf said:

    Good info. But could any expert say what impact by the year end closings upon the investors or price of stock movements?

Leave a Reply to Dr. Altaf Cancel reply

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top