পুঁজিবাজারে এই নোংরামির শেষ কোথায়

 

Editorialদেশে এখন কোন রাজনৈতিক অস্থিরতা নেই। নেই কোন বিরোধী দলের কর্ম তৎপরতা। দেশে কোথাও কোন জ্বালাও পোড়াও নেই। সরকারের ভাষ্য মনে দেশে এখন আইনের শাসন বিরাজমান। দেশ এখন বিদ্যুৎ গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের মুদ্রাস্ফীতি এখন পুরোপুরি সরকারের নিয়ন্ত্রণে। বাংলাদেশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি এখন ধারনা করা হচ্ছে ৭ এর কাছাকাছি হবে।

দেশে এখন কোন সমস্যা নেই। ডিজিটাল সরকারের উন্নয়নের ডিজিট গুলো বিদ্যুৎ গতিতে বেড়েই চলেছে। তাহলে পুঁজিবাজারের সমস্যাগুলো কোথায়? প্রতিদিন কেন পুঁজিবাজারের ইনডেক্সের ডিজিট গুলো কমে যাচ্ছে।

গত ৩-০১-২০১৬ তারিখে ৪৬২৯ ইনডেক্স দিয়ে পুঁজিবাজার এই বছরের কার্য দিবস শুরু করে। অথচ মাত্র ৪ মাসেই আজ ২৭-০৪-২০১৬ তারিখে ইনডেক্স গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৪২৩৮ পয়েন্টে। প্রায় ১০% ইনডেক্স পড়ে গেছে।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের ইনডেক্স যেখানে গত ৪ মাসে প্রায় ১০% পড়ে গেছে সেখানে কিছু কিছু কোম্পানির শেয়ার, যে গুলো বাজারে জুয়াড়ি কোম্পানির শেয়ার বলেই অনেকে চেনেন, সেই সকল কোম্পানির শেয়ার গুলো ১০০% থেকে ৪০০% পর্যন্ত বৃদ্ধি পেয়েছে। মুষ্টিমেয় এই সকল কোম্পানির শেয়ার সংখ্যাও অত্যন্ত নগণ্য অর্থাৎ স্বল্প মূলধনি কোম্পানি এবং এদের P/E ratio অনেক গুলোই ৩০০ থেকে ১৫০ এর কাছাকাছি। কিছু কোম্পানির শেয়ার রয়েছে  যেগুলো দেখলেই বোঝা যায় যে এই শেয়ার গুলোর ৪ মাসের ব্যবধানে কি পরিমান মূল্য বৃদ্ধি পেয়ে কি দামে অবস্থান করছে।

যেমন ইস্টার্ন লুব্রিক্যান্টস (EASTRNLUB) কোম্পানিটির শেয়ার দর ৪ মাসে ৩০৪ টাকা থেকে বৃদ্ধি পেয়ে ১২৯৫ টাকায় উন্নীত হয়েছে। জেমিনি সী ফুড (GEMINISEA) এর শেয়ার দর গত ৪ মাসে ৩১৫ টাকা থেকে ১০৭৩ টাকায় উন্নীত হয়েছে। লিবরা ইনফিউশনের (LIBRAINFU) শেয়ার দর ৪ মাসে ২৯০ টাকা থেকে ৬৩০.৩০ টাকায় উন্নীত হয়েছে। মুন্নু জুটি স্ট্যাফলারসের ( MONNOSTAF) শেয়ার দর ৪ মাসে ২৮০ টাকা থেকে ৪৩১ টাকায় উন্নীত হয়েছে। এছাড়া ইস্টার্ন ক্যাবলসের (ECABLES) শেয়ার দর মাত্র ২০ দিনে ১০৩ টাকা থেকে  টাকা ১৫৬.৭০ টাকায় উন্নীত হয়েছে।

বাজারের লেনদেনের অবস্থা এমনিতেই করুন। তার উপর কিছুদিন যেতে না যেতেই একটার পর একটা IPO’র মাধ্যমে বাজারে নুতন কোম্পানির শেয়ার তালিকাভুক্ত হচ্ছে যার মাধ্যমে বাজার থেকে বের হয়ে যাচ্ছে টাকা। এইসব কিছু সামাল দিতে দিতেই বিনিয়োগকারীদের অবস্থা করুন। এখন স্বল্প মূলধনি জাঙ্ক শেয়ারগুলো যেন “মরার উপর খাড়ার ঘা”।

এই স্বল্প মূলধনি জাঙ্ক কোম্পানির শেয়ার নিয়ে যে ধরনের নোংরামি হচ্ছে তাতে বিনিয়োগকারীরা আরও হতাশার মধ্যে পড়ে যাচ্ছে। তাদের মনে এখন একটাই প্রশ্নঃ মৌল ভিত্তিক কোম্পানির শেয়ারে বিনিয়োগ করে কি এই বাজারে সত্যিই মুনাফা অর্জন করা যায় ? পরিশেষে একটি কথাই বলতে হয়, সত্যিই এই বাজার বড়ই অভাগা। অভিভাবকহীন একটি বাজার। দেখার কেউ নেই।

আপনার মন্তব্য

১১ Comments

  1. রানা said:

    এই সত্য কথা গুলো কে বলবে, কথা বলার লোক কি বাংলাদেশে একজন নেই —————অভিভাবকহীন কি এই বাংলাদেশ

  2. বিশু said:

    বাজার ত নয় যেন অঝোরা বাঁশ, ক্রমশ পশ্চাতে ধাবমান !!

  3. Rizvy said:

    Yes, We are বড়ই অভাগা, আজকের বাজারের এই অবস্থার জন্য Government ই দায়ী , সুতারাং তারই কিছু করা উচিত।

  4. মাসুদ said:

    দেশের পুঁজি বাজারে কি বিনিয়োগকারী থাকবে? এই পুজি বাজারের যে অবস্থা তাতে মনে হচ্ছে এটা একটা ভাসমান পতিতালয় কোম্পানি গুলির দর যার যার ইচ্ছা মত কমছে বা বাড়ছে।

  5. শহিদুল said:

    বাজার উত্থান এর সময় বাহবা নেয়া, এখন শুধু পতন আর পতন দেখার কোন কেউ নেই- আজব দেশের পুজিবাজার?

  6. zahid al mammun said:

    এতদিন পর আপ্ নাদের চোখে পড়ল, তা এখন কি কমাতে চান ? তাই এ নিউজ দিলেন । দাম কমলে আবার নিবেন । আপনারা কাদের সাহায্য করেন ? দাম কমলে যারা এ শেয়ার নিয়েছে তাদের কি হবে??

  7. Muhammad Mustafa said:

    It seems there is no bottom line. Our BSEC is just good for nothing. Role of Bangladesh Bank has been totally detrimental to the interest of Capital Market, and for that matter, to industrialization of the country. These crucially important organizations are being run by inefficient people who do not have required knowledge about the subject they are dealing. BSEC has turned the Capital Market to a place of looting money by the ISSUERS. Bangladesh Bank, in the name of adjustment excess EXPOSURE of banks in capital market has created a panic situation without properly defining the term Exposure. BB should immediately define a “bank’s exposure in capital market” meaningfully; and simultaneously announce that adjustment period is extended by at least 5 more years from July 2016.

  8. wel wisher said:

    The prostitute market is better then this market.here every person who take monthly salary from this market they all are brokkerer of prostitute.

  9. sumon said:

    akn o manus er baccara kothai aco .
    akn bazar kon dike jacce din din sei
    kew dekar nai.bazar jodi 10 point bar to ta hoile paper er prtam e cole asto.
    komar ta karo coke pore na.sorkar akn kno cup hoiye ace?

  10. Faruque Ahmed said:

    Amar mone hoy Hazar ar modde akjon profit kortase baki 999 jon manus loser ata share na onno kisu

  11. sirajul said:

    VAI ATA TO BAZAR NOY ATA AKTA LICANCE DEYA POTETALOY… JAR CLIENT BSEC CHAIRMAN, BB GOVERNOR, DSE CHAIRMAN, FINANCE MENESTER, FINANCE ADV. R BORTOMAN ONERBACETO SORKAR…. AI BSEC CHAIRMAN BEYADOP,BUSTARD, MERTHA BADE IPO SOMRAT KHAIRUL JOTO DIN CHAIRMAN THAKBE TOTO DIN AI POTETALOY VALO HOBENA……

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top