শাশা ডেনিমসের আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ: লেনদেন শুরু

Shasha-Denimsশেয়ারবাজার রিপোর্ট: তৃতীয় প্রান্তিক (জুলাই- সেপ্টেম্বর ২০১৪) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা শাশা ডেনিমস। এদিকে আগামীকাল দেশের উভয় শেয়ার বাজারে আনুষ্ঠানিক শুরু হবে এ কোম্পানির লেনদেন। ডিএসই সূত্র এ তথ্য জানা গেছে।

তৃতীয় প্রান্তিকে শাশা ডেনিমসের কর পরিশোধের পর মুনাফা করেছে ৮ কোটি ৯০ লাখ ৫০ হাজার টাকা। কোম্পানির বেসিক শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৮৫ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে লোকসানের পরিমান ছিল ৪ কোটি ২০ লাখ ৮০ হাজার টাকা এবং শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ০.৮৮ টাকা।

উল্লেখ্য, শেয়ারপ্রতি আয় ওয়েটেড এভারেজ আইপিও-পূর্ববর্তী পরিশোধিত শেয়ারের ওপর ভিত্তি করে হিসাব করা হয়েছে যা ২০১৩ এবং ২০১৪ উভয় সালে ছিল ৪৮,০৭৬,২০০ সংখ্যক শেয়ার। আর ২০১৪ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর তারিখে সমাপ্ত ৩ মাস সময়ের জন্য আইপিও-পরবর্তী ৯ কোটি ৮০ লাখ ৭৬ হাজার ২০০ সংখ্যক শেয়ারের ওপর ভিত্তি ধরে হিসাব করলে বেসিক ইপিএস হয় ০.৯১ টাকা।

এদিকে গত নয় ৯ মাসে (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর ১৪ ) এ কোম্পানির কর পরিশোধের পর মুনাফার পরিমাণ দাঁড়ায় ৯ কোটি ৬৫ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং বেসিক ইপিএস ২.০১ টাকা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ১০ কোটি ৭৮ লাখ ৬০ হাজার টাকা এবং বেসিক ইপিএস ২.২৪ টাকা। তবে আইপিও-পরবর্তী ইপিএস হয়েছে ০.৯৮ টাকা এবং শেয়ারপ্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়ায় ৪৫.৬৮ টাকা।

এদিকে আগামীকাল বৃহস্পতিবার দেশের উভয় শেয়ারবাজারে শুরু করবে কোম্পানিটি। ‘এন’ ক্যাটাগরির আওতায় শুরু করা শাশা ডেনিমসের কোম্পানি কোড-SHASHADNIM এবং ডিএসইতে কোম্পানি কোড-১৭৪৬৬ ও সিএসইতে কোম্পানি কোড হচ্ছে: ১২০৫৪।  এর আগে গত ১৮ ফেব্রুয়ারি  ডিএসইতে তালিকাভুক্ত হয় কোম্পানিটি।

জানা যায়, গত ১৮ জানুয়ারি আইপিও লটারি ড্র সম্পন্ন করে কোম্পানিটি । শাশা ডেনিমসের চাহিদার তুলনায় ৫ দশমিক ৫০ গুণ বেশি আবেদন জমা পড়েছে । এই কোম্পানির আইপিওতে মোট ৯৬৩ কোটি ২৭ লাখ টাকার আবেদন জমা পড়েছে। কোম্পানিটি পুঁজিবাজার থেকে ১৭৫ কোটি টাকা সংগ্রহের লক্ষ্যে শেয়ার ইস্যু করেছিল।

এর মধ্যে প্রতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা জমা দিয়েছেন ৭২০ কোটি ২১ লাখ ৪ হাজার টাকার আবেদন। সাধারণ বিনিয়োগকারীরা ৮০ কোটি ৭৯ লাখ ৫ হাজার টাকা, প্রবাসী বিনিয়োগকারীরা ৫০ কোটি ৯০ লাখ ৪৭ হাজার টাকা এবং মিউচ্যুয়াল ফান্ডের কাছ থেকে ১১১ কোটি ৩৬ লাখ ৫১ হাজার টাকার আবেদন জমা পড়েছে।

এর আগে ১৪ ডিসেম্বর এই কোম্পানির আইপিও আবেদন শুরু হয়। স্থানীয় বিনিয়োগকারীরা ২১ ডিসেম্বর পর্যন্ত আবেদন করার সুযোগ পেয়েছেন। আর প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের জন্য ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত আবেদনের সুযোগ ছিল। কোম্পানিটি ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের সাথে ২৫ টাকা প্রিমিয়ামসহ ৩৫ টাকা মূল্যে শেয়ার ইস্যু করেছে।

গত বছরের ১৪ অক্টোবর বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৫২৯তম সভায় শাশা ডেনিমসের আইপিও অনুমোদন দেয়া হয়।

আইপিওর মাধ্যমে সংগৃহীত অর্থে কোম্পানিটি ব্যবসা সম্প্রসারণ ও ব্যংক ঋণ পরিশোধে ব্যয় করবে। কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে এএফসি ক্যাপিটাল ও ইম্পেরিয়াল ক্যাপিটাল লিমিটেড।

শেয়ারবাজার/অ

আপনার মন্তব্য

Top