ব্র্যাডম্যানের উচ্চতায় সাঙ্গাকারা !

088920-kumar-sangakkaraস্পোর্টস ডেস্ক: বিশ্বকাপের পর ওয়ানডেকে বিদায় জানাবেন, এমন পরিকল্পনার কথা আগেই জানিয়েছিলেন। টেস্ট ক্যারিয়ারটাও খুব বেশি লম্বা করার ইচ্ছে হয়তো ছিল না কুমার সাঙ্গাকারার। এখন কি সেই ইচ্ছেটা হচ্ছে? হতেই পারে। স্যার ডন ব্র্যাডম্যানকে ছুঁতে গেলে যে টেস্ট ক্যারিয়ারটাকে আরেকটু লম্বা করতেই হয়। ওয়েলিংটনে টেস্ট ক্যারিয়ারের ১১তম ডাবল সেঞ্চুরিটি পেয়েছেন। আর একবার দুই শ করতে পারলেই ছুঁয়ে ফেলবেন ব্র্যাডম্যানের সবচেয়ে বেশি ডাবল সেঞ্চুরির রেকর্ড। চিন্তাটা সাঙ্গাকারার মাথায় উঁকি দিচ্ছে বলেই হয়তো বলেছেন, ‘ডনের পাশে বসতে পারলে ভালোই লাগবে। তবে এটা নির্ভর করছে বিশ্বকাপের পর সবকিছু কেমন যায়, তার ওপর। ভবিষ্যৎ নিয়ে আমার ভাবনা কী হবে, সেটা অনুমান করা খুব কঠিন। তবে আরও কয়েক মাস টেস্ট ক্রিকেট চালিয়ে যাওয়া যায় কি না এটা নিয়ে ভেবে দেখার প্রতিশ্রুতি আমি নির্বাচকদের দিয়েছি।’
দলের রান ৩৫৬, সাঙ্গাকারা একাই করেছেন ২০৩, বাকিদের অবদান ১৫৩। শ্রীলঙ্কা নয়, বেসিন রিজার্ভে নিউজিল্যান্ড বোলারদের প্রতিপক্ষ যেন শুধুই সাঙ্গাকারা। অথচ পরশু দিনটা যখন শুরু করেন, ৫ উইকেটে মাত্র ৭৮ রান নিয়ে শ্রীলঙ্কা ধুঁকছে। একপাশে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট পড়েছে কিন্তু হাল ছাড়েননি সাঙ্গাকারা। ষষ্ঠ উইকেটে দিনেশ চান্ডিমালের সঙ্গে ১৩০ রানের জুটি গড়ে দলকে নিয়ে যান সম্মানজনক জায়গায়। এরপর প্রসাদ, হেরাথ ও লাকমলের সঙ্গে তাঁর ৩৪, ৪৭ ও ৬৭ রানের জুটি প্রথম ইনিংসে ১৩৫ রানের লিডও দেয় শ্রীলঙ্কাকে। জবাব দিতে নেমে তৃতীয় দিন শেষে নিউজিল্যান্ড তুলেছে ৫ উইকেটে ২৫৩। ষষ্ঠ উইকেটে কেন উইলিয়ামসন ও বিজে ওয়াটলিংয়ের অবিচ্ছিন্ন ৯৪ রানের জুটি আশা জোগাচ্ছে তাদের।

দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুটা কিন্তু দারুণ করেছিল নিউজিল্যান্ড। টম ল্যাথাম ও হামিশ রাদারফোর্ডের ওপেনিং জুটিতে আসে ৭৫ রান। তবে এর পরই মাত্র ৩০ বলের ব্যবধানে ৩ উইকেট পড়ে গেলে ব্যাকফুটে চলে যায় কিউইরা। ল্যাথাম-রাদারফোর্ডের সঙ্গে ফিরে যান রস টেলরও। ওয়েলিংটনে এর আগের টেস্টেই ভারতের বিপক্ষে ৩০২ রানের অসাধারণ এক ইনিংস খেলেছিলেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। তবে এবার তিনি ব্যর্থ দুই ইনিংসেই। প্রথম ইনিংসে শূন্য রানে বোল্ড, কাল দ্বিতীয় ইনিংসে করেছেন ২২ রান। ম্যাককালাম ও নিশাম ফিরে যাওয়ার পর দলের পুরো দায়িত্ব যেন তুলে নেন উইলিয়ামসন। আর শ্রীলঙ্কা তো এমনিতেই তাঁর প্রিয় প্রতিপক্ষ। কালকের অপরাজিত ৮০ রানের আগে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তাঁর সর্বশেষ ৫টি ইনিংস ১৩৫, ১৮, ৫৪, ৩১* ও ৬৯। কালকের ইনিংসটার জন্য অবশ্য কিছুটা কৃতজ্ঞ থাকবেন শ্রীলঙ্কান ফিল্ডারদের কাছে। ২৯ ও ৬০ রানে তাঁর ক্যাচ পড়েছে। কে জানে তার জন্য আজও মূল্য দিতে হয় কি না শ্রীলঙ্কাকে! এএফপি, ক্রিকইনফো।

আপনার মন্তব্য

Top