আজ: রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ইং, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৮ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

১১ জুন ২০১৬, শনিবার |



kidarkar

কীভাবে পাবেন ভারতীয় ভিসা? আর মাত্র ৫ দিন বাকী!

Indian visaশেয়ারবাজার ডেস্ক: বাংলাদেশী নাগরিকদের জন্য ভারতীয় দূতাবাস ‘ঈদ ভিসা ক্যাম্প’ চালু করার পর সেখানে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ ভীড় করছে। কীভাবে পাবেন এই ঈদ ভিসা? জেনে নিন।

কীভাবে পাবেন ভারতীয় ‘ঈদ ভিসা ক্যাম্পের’ সুবিধা?

মূলত পবিত্র ঈদ-উল ফিতর উপলক্ষে বাংলাদেশী নাগরিকদের জন্য সহজে ভারতের ভিসা পেতে শুরু করা হয়েছে এই ‘ঈদ ভিসা ক্যাম্প’। তবে এই ক্যাম্পের সুবিধা পেতে আগ্রহ থাকলেও নিয়ম-কানুন জানা নেই অনেকেরই।

ভারতীয় হাইক‌মিশন গত ৪ জুন সকালে রাজধানীর বারিধারায় ভারতীয় হাইক‌মিশনের নতুন চ্যান্সেরি কমপ্লেক্স ১-৩ জাতিসংঘ সড়কে (আমেরিকান দূতাবাস সংলগ্ন) কার্যালয়ে এই বিশেষ ক্যা‌ম্প চালু করে । ফিতা কেটে এই ক্যাম্পের উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। এ সময় উপস্থিত ছিলেন পররাষ্ট্র প্র‌তিমন্ত্রী ও ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইক‌মিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা।

৪ জুন চালু হওয়া এই কার্যক্রম (১০ জুন বাদে) ১৬ জুন পর্যন্ত প্র‌তি‌দিন সকাল ৮টা হতে দুপুর ২টা পর্যন্ত এ ক্যাম্পের কার্যক্রম চলবে।

ভিসা আবেদনকারীরা অগ্রিম সাক্ষাতের তারিখ বা ই-টোকেন ছাড়াই তাদের ট্যুরিস্ট ভিসার আবেদন সরাসরি এই ক্যাম্পের মাধ্যমে জমা দিতে পারবেন। ভারতীয় ভিসা প্রাপ্তির তারিখ ও ই-টোকেনের জন্য সাধারণ অন্য সময় খরচ করতে হতো দুই হতে তিন হাজার টাকা। এই ক্যাম্পের কারণে আর সে বিড়ম্বনা থাকছে না।

ট্যুরিস্ট ভিসা ক্যাম্প:

যেসব বাংলাদেশী নাগরিকের সাক্ষাতের তারিখ/ই-টোকেন নেই শুধুমাত্র তাদের ট্যুরিস্ট ভিসা আবেদনপত্র গ্রহণের জন্য এই ঈদ ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়েছে বলে জানা যায়। যেসব আবেদনকারীর সাক্ষাতের তারিখ রয়েছে তারা ঢাকার গুলশান, ধানমণ্ডি, উত্তরা ও মতিঝিল এবং ঢাকার বাইরে বরিশাল, ময়মনসিংহ ও খুলনায় আইভিএসি কেন্দ্রে গিয়ে ভিসা আবেদন জমা দিতে পারবেন। মেডিকেল, বিজনেস ও অন্যান্য ভিসা বিভাগের আবেদনপত্র সংশ্লিষ্ট আইভিএসি কেন্দ্রেই গ্রহণ করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

ক্যাম্পে কীভাবে যাবেন:

‘ঈদ ভিসা ক্যাম্প’ ভারতীয় হাই কমিশনের নতুন চ্যান্সেরি কমপ্লেক্স ১-৩ জাতিসংঘ সড়ক, বারিধারায়। ক্যাম্প চলবে ৪-১৬ জুন । পার্ক রোডের চ্যান্সেরি গেট দিয়ে এই ক্যাম্পে ঢুকতে হবে। ক্যাম্পের ভেতরে কোনো ব্যাগ এবং মোবাইল আনা যাবে না।

বর্তমানে ঢাকা, খুলনা, বরিশাল এবং ময়মনসিংহ বিভাগে বসবাসকারী বাংলাদেশী নাগরিকদের জন্য শুধুমাত্র এই ক্যাম্প খোলা থাকবে। আবেদনকারীদের স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে আবেদনপত্র জমা দিতে হবে। তবে একসঙ্গে ভ্রমণেচ্ছু পরিবারের সদস্যদের (পিতা-মাতা, ছেলে-মেয়ে কিংবা স্বামী-স্ত্রী) পক্ষে একজন আবেদনপত্র জমা দিলেই চলবে। আবেদনকারীর পাসপোর্টের মেয়াদ আবেদন করার তারিখে কমপক্ষে ৬ মাসের মেয়াদের হতে হবে এবং পাসপোর্টে কমপক্ষে দুইটি পৃষ্ঠা খালি থাকতে হবে।

আবেদনপত্র জমা দেওয়ার আগে সতর্কতার সঙ্গে নির্দেশাবলী পড়তে এই লিঙ্কে ক্লিক করে জেনে নিন: www.visacamp/hcidhaka.gov.in

ফি ৬০০ টাকা:

ভিসা আবেদন গ্রহণের জন্য ভারতীয় হাইকমিশনের আউটসোসিং এজেন্সি ইন্ডিয়ান ভিসা অ্যাপলিকেশন সেন্টারের ভিসা প্রসেসিং ফি মাত্র ৬০০ টাকা। ভিসা প্রসেসিং ফি ছাড়া আর কোনো ভিসা ফি দেওয়া লাগবে না। ভিসা প্রদানের ক্ষেত্রে ভারতীয় হাইকমিশনের কোনো এজেন্ট কিংবা মাধ্যম নেই। ভিসা করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দানকারী ব্যক্তিকে কোনো টাকা না দিতে বলা হয়েছে।

যেকোনো তথ্যের জন্য বিস্তারিত জানতে ফোন করুন:

আইভিএসি হেল্পলাইন- ০৯৬১২৩৩৩৬৬৬ ও ০৯৬১৪৩৩৩৬৬৬। এছাড়াও ভিজিট করতে পারেন ভারতীয় হাইকমিশনের ফেসবুক (https:// www.facebook.com/IndiaInBangladesh)

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.