ইন্টারনেট ব্যবসায় অনিয়ম: গ্রামীণফোন ও অগ্নি সিস্টেমকে কারণ দর্শানোর নোটিশ

gpশেয়ারবাজার রিপোর্ট: বাংলাদেশে আইএসপি লাইসেন্স ছাড়া কোন প্রতিষ্ঠান বা কোম্পানি ব্রডব্যান্ড (তারযুক্ত) ইন্টারনেট ব্যবসা করতে পারে না। অথচ বিটিআরসি’র অনুমোদন না নিয়ে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত গ্রামীণফোন জিও ব্রডব্যান্ডের আড়ালে আইন লঙ্ঘন করে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট ব্যবসা করছে। আর গ্রামীণফোনের এমন অবৈধকাজে সহযোগিতা করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত আরেক প্রতিষ্ঠান অগ্নি সিস্টেমস লিমিটেড। তাই এ দুই প্রতিষ্ঠানকে কারন দর্শানোর নোটিশ দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

গতকাল সোমবার (১৩ জুন) বিটিআরসি’র চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কমিশন সভায় এমন সিদ্ধান্ত হয়। বিটিআরসি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এ দুই প্রতিষ্ঠান ছাড়া জিও ব্রডব্যান্ডের অপর সহযোগী এএনডি টেলিকম লি:-কেও এ প্রসঙ্গে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হবে বলে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে বিটিআরসি’র এক উর্ধ্বতন কর্মকর্তা শেয়ারবাজারনিউজ ডটকমকে বলেন, শিগগিরই এ তিনটি প্রতিষ্ঠানকে অবৈধভাবে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট ব্যবসা করায় কারন দর্শানোর নোটিশ দেয়া হবে। প্রতিষ্ঠানগুলোর পক্ষ থেকে জবাব পাওয়ার পর এদের বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা নেয়া যায় পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

এর আগে ফেব্রুয়ারি মাসে ইন্টারনেট সরবরাহকারীদের সংগঠন জিও ব্রডব্যান্ডের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট ব্যবসা করার অভিযোগ করেছিল। এর প্রেক্ষিতে জিও ব্রডব্যান্ডের বিরুদ্ধে তদন্ত করে বিটিআরসি। বিটিআরসি’র তদন্তে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত এ দুটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট ব্যবসায় গুরুতর অনিয়মের প্রমাণ পাওয়া যায়।

সূত্র জানায়, জিও ব্রডব্যান্ড গ্রামীণফোনেরই একটি প্রতিষ্ঠান। আর এতে পার্টনার হিসেবে রয়েছে অগ্নি সিস্টেমস লি: এবং এএনডি টেলিকম লিমিটেড। জিও ব্রডব্যান্ড এর নামে গ্রামীনফোন রাষ্ট্রায়ত্ত্ব সোনালী ব্যাংকের ৫০০টিরও বেশী শাখায় ব্রডব্যান্ড (তারযুক্ত)ইন্টারনেট সরবরাহ করছে।

বিটিআরসি’র এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, মোবাইল অপারেটর শুধুমাত্র ওয়্যারলেস ইন্টারনেট সংযোগ দিতে পারে। কিন্তু গ্রামীণফোন আইন লঙ্ঘন করে ব্রডব্যান্ড (তারযুক্ত) ইন্টারনেট ব্যবসা করছে।

এ কর্মকর্তা আরও বলেন, আইন অনুযায়ী আইএসপি লাইসেন্সধারীরা ন্যাশনওয়াইড টেলিকমিউনিকেশন ট্রান্সমিশন নেটওয়ার্ক (এনটিটিএন) অপারেটরের সহায়তায় ব্রডব্যান্ড (তারযুক্ত) ইন্টারনেট সহায়তা দিতে পারে। অথচ গ্রামীণ ফোনের আইএসপি লাইসেন্স নেই। অথচ সোনালী ব্যাংকের সাথে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সরবরাহ করার জন্য গ্রামীণফোনের চুক্তি হয়েছে। এনটিটিএন কিংবা গ্রামীণ ফোনের অন্য দুটি পার্টনার যাদের আইএসপি লাইসেন্স আছে তাদের সাথে সোনালী ব্যাংকের চুক্তি হয়নি।

এ বিষয়ে গ্রামীণফোনের অফিসে টিএনটি’র মাধ্যমে যোগাযোগ করা হলে নাম প্রকাশ না করে এক কর্মকর্তা বলেন, বিটিআরসি’র কারন দর্শানোর নোটিশ আমরা এখনও পাইনি। এদিকে অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি এ বিষয়ে কোন মন্তব্য করবেন না বলে জানিয়েছেন।

শেয়ারবাজারনিউজ/আ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

Top