সরকারের ঋণ বাড়ছেই

gov and bbশেয়ারবাজার রিপোর্ট: চলতি অর্থবছরের মার্চেও তুলনায় এপ্রিলে এসে সরকারের ঋণের পরিমান বেড়েছে। এসব ঋণ দেশের বিভিন্ন ব্যাংকিং চ্যানেল থেকে উত্তোলন করা হয়েছে। চলতি অর্থবছরের জুলাই’১৫ থেকে এপ্রিল’১৬ পর্যন্ত সরকারের ঋণ নেওয়ার পরিমান বেড়েছে। এ সময় সরকার দেশি বিভিন্ন ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যেমে মোট ১৩ হাজার ৬৮৫ কোটি টাকা ঋণ নিয়েছে। আগের মাস পর্যন্ত সরকারের এ ঋণের পরিমান ছিল ১১ হাজার ৪৬৭ কোটি টাকা।
এসব অর্থ ব্যাংকিং চ্যানেলের অন্তর্ভুক্ত বিভিন্ন ট্রেজারি বন্ড বা ট্রেজারি বিলের বাইরে এসব ঋণ নেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের এক সমীক্ষায় এসব তথ্য উঠে আসে।
তথ্য অনুযায়ী, উল্লেখিত সময়ে সরকারী বিভিন্ন খাতের মাধ্যেমে আগের ঋণ ও দেনা পরিশোধ করা হয়েছে ২ হাজার ৬৬৬ কোটি টাকা। মার্চ মাস পর্যন্ত দেনা পরিশোধ করা হয়েছিল ৪ হাজার ৮৭৬ কোটি টাকা। ব্যাংকিং চ্যানেলের বাইরেও সরকারী বিভিন্ন উৎসের মাধ্যেমে আরো ২৬ হাজার ৭৭৮ কোটি টাকা সংগ্রহ করা হয়েছে। সরকারী বিভিন্ন উৎসের মধ্যে রয়েছে ট্রেজারি বন্ড, ট্রেজারি বিল ও জাতীয় সঞ্চয় বিভাগের মাধ্যেমে সঞ্চিত অর্থ। এর ফলে সর্বশেষ অর্থবছরে সরকারের লক্ষ্যেও তুলনায় অধিক পরিমান ঋণ নিতে হয়েছে সরকারকে। এ সময় চাহিদার অতিরিক্ত অর্থের যোগান আসায় সঞ্চয়পত্রের সুদের হারও এক দফা কমানো হয়।
ব্যাংকিং চ্যানেল ও ব্যাংকিং চ্যানেলের বাইরের দুই উৎস মিলিয়ে সরকারের মোট ঋণের পরিমান দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৯২ কোটি টাকা। বিভিন্ন খাতের অর্থপ্রদানের পরিমান সমন্বয়ের পর ঋণের এ পরিমান দাঁড়িয়েছে। এ ঋণের মাধ্যেমেই জাতীয় বাজেটের ২৩.২ শতাংশ পূরণ করা হচ্ছে। আগের মাসের একই সময়ে সরকারের এ ঋণের পরিমান ছিল ১১ হাজার ৭১৮ কোটি টাকা যা ওই সময়ের জাতীয় বাজেটের ২০.৭ শতাংশ ছিল।

শেয়ারবাজারনিউজ/ওহ

আপনার মন্তব্য

Top