প্রিমিয়াম নিয়ে তালিকাভুক্তির ৫৪ শতাংশ শেয়ারই ইস্যুমূল্যের নিচে

IPO_SharebazarNewsশেয়ারবাজার রিপোর্ট: গত পাঁচ বছরে (২০১১ থেকে ২০১৫) প্রিমিয়াম নিয়ে আইপিও’তে আসা কোম্পানিগুলোর মধ্যে ৫৪ শতাংশ কোম্পানির শেয়ারদর এখন ইস্যু মূল্যের নিচে অবস্থান করছে। যার পিছনে দায়ী ইস্যু্ সংশ্লিষ্টরা। এমনটাই মনে করছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা।

এ বিষয়ে পুঁজিবাজার বিশেষজ্ঞ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আবু আহমেদ বলেন, বর্তমানে সূচকের অবস্থা খারাপ যাচ্ছে। তা গেলেও গত পাঁচ বছরে প্রিমিয়াম নিয়ে আইপিওতে আসা অধিকাংশ শেয়ারদর ইস্যুমূল্যের অনেক নিচে রয়েছে। যার জন্য আমি সূচককে দায়ী করব না। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এর পেছনে দায়ী ইস্যু সংশ্লিষ্টরা।

কোন ইস্যু আইপিওতে আসার আগে সংশ্লিষ্ট কোম্পানি, ইস্যু ম্যানেজার, আন্ডার রাইটার এবং সম্পদ মূল্যায়ন সংস্থা যোগ-সাজসে ইস্যুগুলার মূল্য বেশি দেখিয়ে বাজার থেকে অতিরিক্ত টাকা নিয়ে যায়। যা তালিকাভুক্তির পর প্রকৃত সম্পদ মূল্যের অবস্থানে চলে আসে এবং তা ইস্যুকৃত মূল্যের অনেক নিচে। এর সমাধান হিসেবে সংশ্লিষ্ট সকলকে প্রকৃত দায়িত্ব পালন করতে হবে এবং বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনকে (বিএসইসি) আরো তৎপর হতে হবে।

এই সময়ে প্রিমিয়াম নিয়ে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়েছে মোট ৩৯টি কোম্পানি। এর মধ্যে ২১টি কোম্পানিই ইস্যুমূল্যের নিচে অবস্থান করছে। এ ধরনের কোম্পানিগুলো হল: মবিল যমুনা, এমআই সিমেন্ট, রংপুর ডেইরী, জাহিনটেক্স, বারাকা পাওয়ার, আমরাটেক, ইউনিক হোটেল, সায়হাম কটন, জিবিবি পাওয়ার, জিপিএইচ ইস্পাত, জিএসপি ফাইন্যান্স, এ্যাপোলো ইস্পাত, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, ওরিয়ন ফার্মা, আর্গন ডেনিমস, হামিদ ফেব্রিক্স, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড, ফারইস্ট নিটিং, পেনিনসুলা, রিজেন্ট টেক্সটাইল এবং তশরিফা ইন্ডাস্ট্রিজ।

এরমধ্যে, ২০১১ সালে তালিকাভুক্ত হয় মবিল যমুনা, এমআই সিমেন্ট, রংপুর ডেইরী, জাহিনটেক্স, বারাকা পাওয়ার। ২০১২ সালে হয় আমরাটেক, ইউনিক হোটেল, সায়হাম কটন, জিবিবি পাওয়ার, জিপিএইচ ইস্পাত এবং জিএসপি ফাইন্যান্স। ২০১৩ সালে তালিকাভুক্ত হয় এ্যাপোলো ইস্পাত, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, ওরিয়ন ফার্মা, আর্গন ডেনিমস। ২০১৪ সালে তালিকাভুক্ত হয় হামিদ ফেব্রিক্স, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড, ফারইস্ট নিটিং, পেনিনসুলা। এবং ২০১৫ সালে তালিকাভুক্ত হয় রিজেন্ট টেক্সটাইল এবং তসরিফা ইন্ডাস্ট্রিজ।

এর মধ্যে বিদ্যুৎ ও জ্বালানী খাতের কোম্পানি মবিল যমুনা ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সাথে ১৪২ টাকা প্রিমিয়াম সহ ১৫২ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ১০২ টাকায়। এছাড়া সর্বশেষ অর্থ বছরে কোম্পানিটির আয় করেছে ১০৫ কোটি ৯০ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ৬৯ কোটি ৯৬ লাখ ৮০ হাজার টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় বেড়েছে ৩৫ কোটি ৪ লাখ ১০ হাজার টাকা।

সিমেন্ট খাতের এমআই সিমেন্ট ফেসভ্যালুর সাথে ১০১ টাকা প্রিমিয়াম সহ ১১১ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ৭৩.৯০ টাকায়। এছাড়া কোম্পানিটি সর্বশেষ অর্থ বছরে আয় করেছে ৬৪ কোটি ৮৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ৬৭ কোটি ৪৩ লাখ ৯০ হাজার টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় কমেছে ২ কোটি ৫৫ লাখ ৪০ হাজার টাকা।

রংপুর ডেইরী ১০ টাকার ফেসভ্যালুর সাথে ৮ টাকা প্রিমিয়াম সহ মোট ১৮ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ১২.৩০ টাকায়। এছাড়া সর্বশেষ অর্থ বছরে কোম্পানিটি আয় করেছে ৪ কোটি ১০ লাখ ৫০ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ৪ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় কমেছে ২৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

জাহিনটেক্স ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সাথে ১৫ টাকা প্রিমিয়াম সহ ২৫ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ২০.৬০ টাকায়। এছাড়া সর্বশেষ অর্থ বছরে কোম্পানিটির আয় করেছে ৭ কোটি ৫৭ লাখ ৮০ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ৪ কোটি ৬৮ লাখ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় বেড়েছে ২ কোটি ৮৯ লাখ ৮০ হাজার টাকা।

বারাকা পাওয়ার ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সাথে ৫০ টাকা প্রিমিয়াম সহ ৬০ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ২৮.৪০ টাকায়। এছাড়া সর্বশেষ অর্থ বছরে কোম্পানিটির আয় করেছে ৪২ কোটি ৪১ লাখ ১০ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ২৪ কোটি ৯৩ লাখ ৬০ হাজার টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় বেড়েছে ১৭ কোটি ৪৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

আমরাটেক ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সাথে ১৪ টাকা প্রিমিয়াম সহ ২৪ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ২২.৯০ টাকায়। এছাড়া সর্বশেষ অর্থ বছরে কোম্পানিটির আয় করেছে ৯ কোটি ১২ লাখ ৮০ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ৮ কোটি ৩৯ লাখ ৪০ হাজার টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় বেড়েছে ৭৩ লাখ ৪০ হাজার টাকা।

ইউনিক হোটেল ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সাথে ৬৫ টাকা প্রিমিয়াম সহ ৭৫ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ৪৪ টাকায়। এছাড়া সর্বশেষ অর্থ বছরে কোম্পানিটির আয় করেছে ৯৬ কোটি ২৮ লাখ টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ১০১ কোটি ৪০ লাখ ৭০ হাজার টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় কমেছে ৫ কোটি ১২ লাখ ৭০ হাজার টাকা।

সায়হাম কটন ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সাথে আরো ১০ টাকা প্রিমিয়াম সহ ২০ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ১২.৮০ টাকায়। এছাড়া সর্বশেষ অর্থ বছরে কোম্পানিটির আয় করেছে ১৮ কোটি ৯৬ লাখ ৩০ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ২০ কোটি ২ লাখ ৮০ হাজার টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় বেড়েছে ১ কোটি ৬ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

জিবিবি পাওয়ার ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সাথে ৩০ টাকা প্রিমিয়াম সহ ৪০ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ১৪.২০ টাকায়। এছাড়া সর্বশেষ অর্থ বছরে কোম্পানিটির আয় করেছে ১৩ কোটি ৪ লাখ ৬০ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ১৩ কোটি ৯২ লাখ ৬০ হাজার টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় কমেছে ৮৮ লাখ টাকা।

জিপিএইচ ইস্পাত ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সাথে ২০ টাকা প্রিমিয়াম সহ ৩০ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ৩৯ টাকায়। এছাড়া সর্বশেষ অর্থ বছরে কোম্পানিটির আয় করেছে ২৯ কোটি ২৪ লাখ ৬৯ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ২৭ কোটি ৮৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় বেড়েছে ১ কোটি ৩৬ লাখ ১৯ হাজার টাকা।

জিএসপি ফাইন্যান্স ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সাথে ১৫ টাকা প্রিমিয়াম সহ ২৫ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ১৩.১০ টাকায়। এছাড়া সর্বশেষ অর্থ বছরে কোম্পানিটির আয় করেছে ১৯ কোটি ৯১ লাখ ৭০ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ১১ কোটি ৫৮ লাখ ৬০ হাজার টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় বেড়েছে ৮ কোটি ৩৩ লাখ ১০ হাজার টাকা।

এ্যাপোলো ইস্পাত ১০ টাকা ফেবভ্যালুর সাথে ১২ টাকা প্রিমিয়াম সহ ২২ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ১৫.৬০ টাকায়। এছাড়া সর্বশেষ অর্থ বছরে কোম্পানিটির আয় করেছে ৫০ কোটি ৮৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ৩৭ কোটি ৩৫ লাখ ৬০ হাজার টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় বেড়েছে ১৩ কোটি ৪৮ লাখ ৯০ হাজার টাকা।

প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সাথে ১৮ টাকা প্রিমিয়াম সহ ২৮ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ১০.৬০ টাকায়। এছাড়া সর্বশেষ অর্থ বছরে কোম্পানিটির আয় করেছে ১৯ কোটি ৩৯ লাখ ৯০ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ১৮ কোটি ৬৯ লাখ ৭০ হাজার টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় বেড়েছে ৭০ লাখ ২০ হাজার টাকা।

ওরিয়ন ফার্মা ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সাথে ৫০ টাকা প্রিমিয়াম সহ ৬০ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ৩৭.২০ টাকায়। এছাড়া সর্বশেষ অর্থ বছরে কোম্পানিটির আয় করেছে ৯৯ কোটি ৪০ লাখ ৯০ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ৯০ কোটি ৮৮ লাখ ৬০ হাজার টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় বেড়েছে ৮ কোটি ৫২ লাখ ৩০ হাজার টাকা।

আর্গন ডেনিমস ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সাথে ২৫ টাকা প্রিমিয়াম সহ ৩৫ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ২৩.১০ টাকায়। এছাড়া সর্বশেষ অর্থ বছরে কোম্পানিটির আয় করেছে ২৮ কোটি ৭৪ লাখ ৬০ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ২২ কোটি ৬৮ লাখ ৪০ হাজার টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় বেড়েছে ৬ কোটি ৬ লাখ ২০ হাজার টাকা।

হামিদ ফেব্রিক্স ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সাথে ২৫ টাকা প্রিমিয়াম সহ ৩৫ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ২৬.৪০ টাকায়। এছাড়া সর্বশেষ অর্থ বছরে কোম্পানিটির আয় করেছে ১৩ কোটি ৫৫ লাখ ৭০ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ২৭ কোটি ২৫ লাখ ৯০ হাজার টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় কমেছে ১৩ কোটি ৭০ লাখ ২০ হাজার টাকা।

ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সাথে ২৫ টাকা প্রিমিয়াম সহ ৩৫ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ২৩.৪০ টাকায়। এছাড়া সর্বশেষ অর্থ বছরে কোম্পানিটির আয় করেছে ১৪ কোটি ৯৭ লাখ ৪০ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ১৩ কোটি ৪৮ লাখ ৯০ হাজার টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় বেড়েছে ১ কোটি ৪৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

ফারইস্ট নিটিং ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সাথে ১৭ টাকা প্রিমিয়াম সহ ২৭ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ২৩ টাকায়। এছাড়া সর্বশেষ অর্থ বছরে কোম্পানিটির আয় করেছে ৩১ কোটি ৪৬ লাখ ৬০ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ২৪ কোটি ১৮ লাখ ৭০ হাজার টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় বেড়েছে ৭ কোটি ২৭ লাখ ৯০ হাজার টাকা।

পেনিনসুলা ১০ টাকা ফেবভ্যালুর সাথে ২০ টাকা প্রিমিয়াম সহ ৩০ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ১৫.৩০ টাকায়। এছাড়া সর্বশেষ অর্থ বছরে কোম্পানিটির আয় করেছে ১৪ কোটি ৪০ লাখ ৪০ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ১৮ কোটি ২১ লাখ ৩০ হাজার টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় কমেছে ৩ কোটি ৮০ লাখ ৯০ হাজার টাকা।

রিজেন্ট টেক্সটাইল ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সাথে ১৫ টাকা প্রিমিয়াম সহ ২৫ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ১২.৮০ টাকায়। এছাড়া সর্বশেষ অর্থ বছরে কোম্পানিটির আয় করেছে ১৪ কোটি ৮৮ লাখ ৯০ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ১৭ কোটি ৪৯ লাখ ১০ হাজার টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় বেড়েছে ২ কোটি ৬০ লাখ ২০ হাজার টাকা।

এবং তসরিফা ইন্ডাস্ট্রিজ ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সাথে ১৬ টাকা প্রিমিয়াম সহ ২৬ টাকা ইস্যুমূল্যে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। বর্তমানে কোম্পানিটির শেয়ারদর অবস্থান করছে ২১.৪০ টাকায়। এছাড়া সর্বশেষ অর্থ বছরে কোম্পানিটির আয় করেছে ১০ কোটি ৪৪ লাখ ৩০ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ৮ কোটি ৫৮ লাখ ৯০ হাজার টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় বেড়েছে ১ কোটি ৮৫ লাখ ৪০ হাজার টাকা।

শেয়ারবাজারনিউজ/রু

আপনার মন্তব্য

Top