খালেদার ওয়ারেন্ট থানায় গেলেই ব্যবস্থা

hasinaশেয়ারবাজার রিপোর্ট: বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জারিকৃত গ্রেফতারি ও তার কার্যালয়ে তল্লাশির ওয়ারেন্ট গুলশান থানায় পৌঁছালেই পুলিশ ব্যবস্থা নেবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার দশম জাতীয় সংসদের পঞ্চম অধিবেশনে সংসদ সদস্য এএম আউয়ালের এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে সংসদকে এ তথ্য জানান প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আদালত নির্দেশ দিয়েছে খালেদা জিয়ার গুলশানের অফিস তল্লাশি করার জন্য। এ নির্দেশনামা যখন গুলশান থানায় পৌঁছাবে তখন পুলিশ তল্লাশির ব্যবস্থা করবে। এটা করা একান্ত প্রয়োজন কারণ কেন তিনি বাড়ি ছেড়ে অফিসে বসে আছেন সেটা এখানো রহস্য রয়ে গেছে। যে মুহূর্তে এ তল্লাশির আদেশ থানা পৌঁছাবে তখনই খালেদার কার্যালয়ে তল্লাশি করা হবে। এবং যখন তার গ্রেফতারে ওয়ারেন্ট পৌঁছাবে তখনই তাকে গ্রেফতার ব্যবস্থা করা হবে।’

শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি নেত্রী এখন আর কোনো রাজনৈতিক দলের নেত্রী নয়, তিনি এখন জঙ্গি নেত্রী। তিনি যে কাজ করছেন সেটা জঙ্গিবাদী কাজ। কোনো সুস্থ মানুষ অন্য মানুষকে পুড়িয়ে মারতে পারেন না।

তিনি বলেন, যেদিন খালেদা জিয়া পুত্র মারা গেছেন এবং যেদিন লাশ দেশে এসেছে সেদিন ও তিনি হরতাল অবরোধ তুলে নাই। নিজের ছেলের প্রতি যার এতটুকু দরদ নাই তার কাছ থেকে দেশবাসী কী আশা করতে পারে! মনে হয় তিনি এ দেশে জঙ্গিবাদী শাসন কায়েক করতে চান। মানুষকে পুড়িয়ে মারা, রাষ্ট্রীয় সম্পদ ক্ষতি করাই মনে হয় তার একমাত্র কাজ।’

সঙ্কট নিরসনে খালেদা জিয়ার দেয়া সাত দফা প্রস্তাব বিবেচনা করা হবে কি না- একই সংসদ সদস্যের এমন প্রশ্নের উত্তরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াত নেত্রী যে দাবি-দাওয়া দিয়েছেন তা সবই তার নিজের ও তার পুত্রের জন্য। দেশের মানুষের কল্যাণের জন্য তার চিন্তাও নেই, দাবিও নেই। তাই জনগণ এখন তাকে একেবারেই সমর্থন করে না এবং জনগণ তার প্রতি ক্ষুব্ধ। মানুষ ঘৃণাভরে জ্বালাও-পোড়াও এবং পেট্রোল ঢেলে মানুষ হত্যা প্রত্যাখ্যান করেছে।

শেয়ারবাজার/অ

আপনার মন্তব্য

Top