বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার রিপোর্ট: ভারতের ৫৭ শতাংশই হাতুড়ে ডাক্তার

doctorশেয়ারবাজার ডেস্ক: ভারতের চিকিৎসা ব্যবস্থা নিয়ে প্রায়শই ক্ষোভ ঝাড়তে দেখা যায় ভুক্তভোগীদের। ভুল চিকিৎসায় প্রাণ যায় অনেক রোগীর। এইরকম পরিস্থিতিতে ভারতীয় ডাক্তারদের নিয়ে ওয়ার্ল্ড হেল্থ অর্গানাইজেশন (WHO) যে তথ্য প্রকাশ করল, সেটা পড়ে রীতিমত আঁতকে উঠবেন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা(WHO) বলছে,ভারতের অ্যালোপাথিক ডাক্তারদের মধ্যে ৫৭ শতাংশ ডাক্তারেরই কোনো ডাক্তারি যোগ্যতা নেই। আর ভয়ানক হলো দেশে প্রতি এক লাখ মানুষে ডাক্তারের সংখ্যা মাত্র ৩৬জন।

হেল্থ ওয়ার্কফোর্স ইন ইন্ডিয়া নামক ওই রিপোর্টে WHO বলছে, ২০০১ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী দেশের অ্যালোপ্যাথিক ডাক্তারদের মধ্যে ৩১ শতাংশের শিক্ষাগত যোগ্যতা সেকেন্ডারি লেভেল। আর বাকি ৫৭ শতাংশের তো কোনও ডাক্তারি যোগ্যতাই নেই।

গ্রামীণ ভারতে মাত্র ১৮ শতাংশ অ্যালোপ্যাথিক ডাক্তারের ঠিকঠাক ডাক্তারি যোগ্যতা রয়েছে। হোমিওপ্যাথির ক্ষেত্রেও ছবিটা ঠিক এতটাই করুণ যে সেখানে মোটে মাত্র ৪২ শতাংশের ডাক্তারি যোগ্যতা রয়েছে।

কাজেই বাংলাদেশীদের মধ্যে যারা উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারতে পাড়ি জমান তাদের উদ্দেশ্যে বলছি, আমাদের দেশে এখন অনেক ক্রিটিক্যাল রোগেরও সফলীকৃত চিকিৎসা হচ্ছে।তাই ভারতীয় হাতুড়ে মার্কা ডাক্তারবাবুদের শরণাপন্ন করে আপনার পরিবারে অসুস্থ মানুষটিকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিবেন না।

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top