সৌদিতে সন্তান জন্ম দিলে শিশু ও মায়ের নাগরিকত্ব মিলবে

shura-councilশেয়ারবাজার ডেস্ক: সৌদি আরবে শিশুর জন্ম দিলে শিশুর পাশাপাশি মায়েরও মিলবে সে দেশটির নাগরিকত্ব।  শূরা কাউন্সিল থেকে নেয়া এক সিদ্ধান্তে তা জানানো হয়েছে। সৌদি আরবের সংবাদ সংস্থা সৌদি গেজেটের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশিত হয়েছে।

সৌদি পুরুষ ও নারীদের মধ্যে বিয়ের নিষেধাজ্ঞা শিথিল হওয়ার পর নাগরিকত্ব শিথিলের এই আইনটি দেশটির সামাজিক মর্যাদাতে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে বলে মনে করছেন বোদ্ধারা। বর্তমানে সৌদি নাগরিকদের মধ্যে প্রবাসীদের বিয়ে করার হার বেড়েছে। একই সাথে সন্তান জন্মের পর সন্তানের নাগরিকত্ব হলেও, পিতামাতার বিশেষ করে মায়ের নাগরিকত্ব না থাকার কারণে অনেক রাষ্ট্রীয় সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয় । ফলে এ সংশোধনের পর নাগরিকত্ব ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধা পেতে সহজ হবে বলে মনে করছেন নীতি নির্ধারকরা।

গত ৬০ বছরের মধ্যে নাগরিকত্ব নিয়ে বড় ধরণের কোনো প্রকার সংশোধন করা হয়নি।  ২০০৪ ও ২০০৭ সালে ছোটখাটো কিছু পরিবর্তন আনলেও, এ সংশোধনীটি হবে তার চেয়ে বড় হবে বলে জানা গেছে। এতে মোট ৩টি অধ্যায়কে সংশোধন করতে হবে।

আল সালাহ নামের শূরা কাউন্সিলের একজন সদস্য জানান, ইতিমধ্যে দেশটির অর্থনৈতিক, প্রশাসনিক ও মর্যাদার দিক থেকে বেশ এগিয়ে গেলেও গত ৬০ বছরে  জাতীয় আইনের কোনো সংশোধন করা হয়নি। সৌদি নাগরিকত্ব না থাকার কারণে প্রবাসী পিতা-মাতারা অনেক সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত। তাই বিশ্বের উত্তরোত্তর উন্নতির সাথে আমাদেরও এগিয়ে যাওয়া উচিত।

সৌদি আরবের স্থানীয় নয় এমন পিতা কিংব মাতার সন্তানের নাগরিকত্ব পাওয়া খুবই কঠিন ব্যাপার। এর আগে গত এপ্রিল মাসে সৌদি সরকার প্রবাসীদের মধ্যে স্বল্প ও দীর্ঘকালীন মেয়াদে গ্রিন কার্ড সুবিধা চালু করে।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top