পুঁজিবাজারের জন্য শুভ লক্ষণ: বিদেশি বিনিয়োগ বেড়েছে ৮০০ কোটি টাকা

dseশেয়া্রবাজার রিপোর্ট: ধীরে ধীরে হারানো রুপে ফিরছে দেশের পুঁজিবাজার। ২০১০ সালের ধস পরবর্তী সময় থেকে টানা দর পতনে প্রায় সব শ্রেনীর বিনিয়োগকারীরাই বাজারের ওপর আস্থা হারিয়ে ফেলেছেন।কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে বিনিয়োগ সমন্বয় বিষয়ে জটিলতা কেটে যাওয়ার পাশাপাশি পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনসহ সরকারের আন্তরিক প্রচেষ্টায় যেন বিনিয়োগকারীদের মাঝে আশার সঞ্চার করেছে। ফলে বাজারের বর্তমান পরিস্থিতিতে প্রায় সব শ্রেনীর বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহন বাড়ছে। পিছিয়ে নেই বিদেশী বিনিয়োগকারীরাও। যার কারণে চলতি বছরের ১১ মাসে (জানুয়ারি-নভেম্বর) বিদেশী লেনদেন বেড়েছে প্রায় সাড়ে ৮০০  কোটি টাকা বা ৭৯৬ শতাংশ । ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

পুঁজিবাজারে বিদেশি বিনিয়োগ বাড়াকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা। তারা বলছেন, এটি আমাদের বাজারের জন্য একটি শুভ লক্ষন। আগামী দিনগুলোতে আমাদের বাজার আরো ভাল হবে। কেননা স্ট্যাবিলিটি বাড়ার ফলে বিদেশী প্রতিষ্ঠানগুলো ডিএসই’র স্ট্র্যাটেজিক পার্টনার হওয়ার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেছে। বিদেশীদের এ আগ্রহ প্রকাশ পুঁজিবাজারের জন্য শুভ লক্ষণ। পাশাপাশি বিদেশীরা অন্যান্য দেশের চেয়ে বাংলাদেশকে এখন বেশি লাভজনক মনে করে। তাই তাদের বিনিয়োগ বাড়াচ্ছে বলেও মনে করছেন তারা।

প্রাপ্ত তথ্য মতে, দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) চলতি বছরের ১১ মাসে ডিএসইতে বিদেশী ও প্রবাসী বিনিয়োগকারীরা ৭ হাজার ৭৯৭ কোটি ৩০ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন করেছেন। আগের বছরের একই সময়ে বিদেশীদের লেনদেনের পরিমাণ ছিল ৬ হাজার ৭৭২ কোটি ২০ লাখ টাকা। সে হিসেবে বৈদেশিক বিনিয়োগকারীদের (বিদেশী ও প্রবাসী) লেনদেন ১৫ দশমিক ১৪ শতাংশ বেড়েছে।

এ সময় বিদেশী ও প্রবাসী বিনিয়োগকারীরা ৪ হাজার ৩৭৬ কোটি ২৭ লাখ ৬৫ হাজার টাকার শেয়ার ও ইউনিট কিনেছেন বিপরীতে ৩ হাজার ৪২১ কোটি টাকার শেয়ার ও ইউনিট বিক্রি করেছেন। সে হিসেবে চলতি বছরের ১১ মাসে নীট বিনিয়োগ হয়েছে ৯৫৫ কোটি ২৫ লাখ টাকা।

এর আগের বছরের একই সময়ে বিদেশী ও প্রবাসী বিনিয়োগকারীরা ৩ হাজার ৪৩৯ কোটি ৩৭ লাখ ৩৪ হাজার টাকার শেয়ার ও ইউনিট কিনেছেন বিপরীতে ৩ হাজার ৩৩২ কোটি ৮৩ লাখ ৪৫ হাজার টাকার শেয়ার ও ইউনিট বিক্রি করেছেন। এই সময়ে নীট বিনিয়োগ ছিল ১০৬ কোটি ৫৩ লাখ ৮৮ হাজার টাকা। দেখা যাচ্ছে গতবছরের একই সময়ের তুলনায় চলতি বছরে বিদেশী বিনিয়োগ প্রায় ৮০০ কোটি টাকা বেড়েছে।

এদিকে, গতমাসে অর্থাৎ নভেম্বরে পুঁজিবাজারে বিদেশী বিনিয়োগকারীদের প্রকৃত বিনিয়োগ হয়েছে ১৫৪ কোটি ৭৭ লাখ ৭২ হাজার টাকা। এসময়ে বিদেশীরা মোট ৬৬৩ কোটি ৭১ লাখ ৯৭ হাজার টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন করেছেন। এর মধ্যে বিদেশীরা ৪০৯ কোটি ২৭ লাখ ৩৭ হাজার টাকার শেয়ার কিনেছেন বিপরীতে ২৫৪ কোটি ৪৭ লাখ ১২ হাজার টাকার শেয়ার বিক্রি করেছেন।

শেয়ারবাজারনিউজ/এম.আর

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top