বিএসইসির নজরদারিতে ১২ কোম্পানি

BSECশেয়ারবাজার রিপোর্ট: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ১২ কোম্পানি বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সেচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) নজরদারিতে রয়েছে। কোম্পানিগুলো হলো: আইসিবি, বেক্সিমকো, ন্যাশনাল টি, রংপুর ফাউন্ড্রী, কে অ্যান্ড কিউ, সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্স, মালেক স্পিনিং, মোজাফফর হোসেন স্পিনিং, সোনারগাঁও টেক্সটাইল, জিবিবি পাওয়ার, এ্যাপোলো ইস্পাত, এবং নাভানা সিএনজি লিমিটেড। সাম্প্রতিক সময়ে এসব কোম্পানির শেয়ার দর অস্বাভাবিক বৃদ্ধি হওয়ার কারণ খতিয়ে দেখবে নিয়ন্ত্রক সংস্থা। বিএসইসি সূত্রে জানা গেছে।

জানা যায়, সাম্প্রতিক সময়ে আইসিবির ৬২.৪২ শতাংশ, বেক্সিমকোর ৩৯.২৭ শতাংশ, ন্যাশনাল টির ৩৩.৪৮ শতাংশ, রংপুর ফাউন্ড্রীর ২১.৪৬ শতাংশ, কে অ্যান্ড কিউয়ের ৩৫.৮২ শতাংশ, সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্সের ২৪.৩০ শতাংশ, মালেক স্পিনিংয়ের ২৯.৪১ শতাংশ, মোজাফফর হোসেন স্পিনিংয়ের ৪৮.৭৩ শতাংশ, সোনারগাঁও টেক্সটাইলের ৪২.২৬ শতাংশ, জিবিবি পাওয়ারের ১৮.৫০ শতাংশ, এ্যাপোলো ইস্পাতের ১৯.২৭ শতাংশ এবং নাভানা সিএনজির ২০.৮২ শতাংশ শেয়ার দর বেড়েছে।

এর আগে শেয়ার দরে অস্বাভাবিক উল্লম্ফনের পেছনে কারসাজি বা বিধি বহির্ভূতভাবে মূল্য সংবেদনশীল তথ্য প্রকাশ হয়েছে কিনা জানতে চেয়ে কোম্পানিগুলোকে গত সপ্তাহে (১ জানুয়ারি থেকে ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত) শোকজ করেছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)। কিন্তু কোম্পানিগুলোর পক্ষ থেকে দর বাড়ার পেছনে কোনো মূল্য সংবেদনশীল তথ্য নেই বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষরা।

কোম্পানিগুলোর বিষয়ে বিএসইসি’র সার্ভিলেন্স বিভাগের এক ঊর্ধতন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে শেয়ারবাজারনিউজ ডটকমকে বলেন, যেহেতু কোম্পানিগুলোর পক্ষ থেকে কোন মূল্য সংবেদনশীল তথ্য প্রকাশ হয়নি তাই এখানে অন্য কোন পক্ষ থেকে কারসাজি হয়েছে কিনা আমরা খতিয়ে দেখবো। কারসাজির ঘটনা ঘটে থাকলে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আইসিবি: আর্থিক খাতের এ কোম্পানির শেয়ার দর গত কয়েক কার্যদিবস ধরে বাড়ছে। গত ২১ ডিসেম্বর ২০১৬ এ কোম্পানিটির শেয়ার দর ছিল ৯৯ টাকা।  যা ১২ জানুযারি ২০১৭ তারিখে বেড়ে দাঁড়ায় ১৬০.৮০ টাকায়। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ৬১.৮০ টাকা বা ৬২.৪২ শতাংশ।

বেক্সিমকো: বিবিধ খাতের এ কোম্পানির শেয়ার দর গত কয়েক কার্যদিবস ধরে বাড়ছে। গত ২১ ডিসেম্বর ২০১৬ এ কোম্পানিটির শেয়ার দর ছিল ২৪.৭০ টাকা।  যা ১২ জানুযারি ২০১৭ তারিখে বেড়ে দাঁড়ায় ৩৪.৪০ টাকায়। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ৯.৭০ টাকা বা ৩৯.২৭ শতাংশ।

ন্যাশনাল টি: খাদ্য ও আনুষাঙ্গিক খাতের এ কোম্পানির শেয়ার দর গত কয়েক কার্যদিবস ধরে বাড়ছে। গত ২১ ডিসেম্বর ২০১৬ এ কোম্পানিটির শেয়ার দর ছিল ৬৫০.২০ টাকা।  যা ১২ জানুযারি ২০১৭ তারিখে বেড়ে দাঁড়ায় ৮৬৭.৯০ টাকায়। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ২১৭.৭০ টাকা বা ৩৩.৪৮ শতাংশ।

রংপুর ফাউন্ড্রী: প্রকৌশল খাতের এ কোম্পানির শেয়ার দর গত কয়েক কার্যদিবস ধরে বাড়ছে। গত ২১ ডিসেম্বর ২০১৬ এ কোম্পানিটির শেয়ার দর ছিল ১১০.৪০ টাকা।  যা ১২ জানুযারি ২০১৭ তারিখে বেড়ে দাঁড়ায় ১৩৪.১০ টাকায়। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ২৩.৭০ টাকা বা ২১.৪৬ শতাংশ।

কে অ্যান্ড কিউ: প্রকৌশল খাতের এ কোম্পানির শেয়ার দর গত কয়েক কার্যদিবস ধরে বাড়ছে। গত ২১ ডিসেম্বর ২০১৬ এ কোম্পানিটির শেয়ার দর ছিল ৩২.১০ টাকা।  যা ১২ জানুযারি ২০১৭ তারিখে বেড়ে দাঁড়ায় ৪৩.৬০ টাকায়। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ১১.৫০ টাকা বা ৩৫.৮২ শতাংশ।

সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্স: বিমা খাতের এ কোম্পানির শেয়ার দর গত কয়েক কার্যদিবস ধরে বাড়ছে। গত ২১ ডিসেম্বর ২০১৬ এ কোম্পানিটির শেয়ার দর ছিল ১৮.১০ টাকা।  যা ১২ জানুযারি ২০১৭ তারিখে বেড়ে দাঁড়ায় ২২.৫০ টাকায়। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ৪.৪০ টাকা বা ২৪.৩০ শতাংশ।

মালেক স্পিনিং: বস্ত্র খাতের এ কোম্পানির শেয়ার দর গত কয়েক কার্যদিবস ধরে বাড়ছে। গত ২১ ডিসেম্বর ২০১৬ এ কোম্পানিটির শেয়ার দর ছিল ১৬.৩০ টাকা।  যা ১২ জানুযারি ২০১৭ তারিখে বেড়ে দাঁড়ায় ২১.১০ টাকায়। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ৪.৮০ টাকা বা ২৯.৪৪ শতাংশ।

মোজাফফর হোসেন স্পিনিং: বস্ত্র খাতের এ কোম্পানির শেয়ার দর গত কয়েক কার্যদিবস ধরে বাড়ছে। গত ২১ ডিসেম্বর ২০১৬ এ কোম্পানিটির শেয়ার দর ছিল ১৫.৮০ টাকা।  যা ১২ জানুযারি ২০১৭ তারিখে বেড়ে দাঁড়ায় ২৩.৫০ টাকায়। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ৭.৭০ টাকা বা ৪৮.৪৩ শতাংশ।

সোনারগাঁও টেক্সটাইল: বস্ত্র খাতের এ কোম্পানির শেয়ার দর গত কয়েক কার্যদিবস ধরে বাড়ছে। গত ২১ ডিসেম্বর ২০১৬ এ কোম্পানিটির শেয়ার দর ছিল ৯.৭০ টাকা।  যা ১২ জানুযারি ২০১৭ তারিখে বেড়ে দাঁড়ায় ১৩.৮০ টাকায়। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ৪.১০ টাকা বা ৪২.২৬ শতাংশ।

জিবিবি পাওয়ার: বিদ্যুৎ ও জ্বালানী খাতের এ কোম্পানির শেয়ার দর গত কয়েক কার্যদিবস ধরে বাড়ছে। গত ২১ ডিসেম্বর ২০১৬ এ কোম্পানিটির শেয়ার দর ছিল ২০ টাকা।  যা ১২ জানুযারি ২০১৭ তারিখে বেড়ে দাঁড়ায় ২৩.৭০ টাকায়। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ৩.৯০ টাকা বা ১৮.৫০ শতাংশ।

এ্যাপোলো ইস্পাত: প্রকৌশল খাতের এ কোম্পানির শেয়ার দর গত কয়েক কার্যদিবস ধরে বাড়ছে। গত ২১ ডিসেম্বর ২০১৬ এ কোম্পানিটির শেয়ার দর ছিল ১৯.২০ টাকা।  যা ১২ জানুযারি ২০১৭ তারিখে বেড়ে দাঁড়ায় ২২.৯০ টাকায়। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ৩.৯০ টাকা বা ১৯.২৭ শতাংশ।

নাভানা সিএনজি লিমিটেড: প্রকৌশল খাতের এ কোম্পানির শেয়ার দর গত কয়েক কার্যদিবস ধরে বাড়ছে। গত ২১ ডিসেম্বর ২০১৬ এ কোম্পানিটির শেয়ার দর ছিল ৬৩.৪০ টাকা।  যা ১২ জানুযারি ২০১৭ তারিখে বেড়ে দাঁড়ায় ৭৬.৬০ টাকায়। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির দর বেড়েছে ১৩.২০ টাকা বা ২০.৮২ শতাংশ।

শেয়ারবাজারনিউজ/এম.আর

আপনার মন্তব্য

Top