আর এন স্পিনিংয়ের মামলা তুলে নিয়েছে বিএসইসি

RN_spiningশেয়ারবাজার রিপোর্ট: আর এন স্পিনিংয়ের বিরুদ্ধে শেয়ার ট্রন্সফার সংক্রান্ত মামলা তুলে নিয়েছে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি। পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) মঙ্গলবার (১৭ জনুয়ারী) এ মামলা প্রত্যাহার করে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্রমতে, বিএসইসি গত মঙ্গলবার এক নির্দেশনার মাধ্যমে জানায় আর এন স্পিনিংয়ের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে শেয়ার বিক্রয়, উপহার, বন্ধক অথবা অন্য ধরনের শেয়ার ট্রান্সফারের অভিযোগে করা মামলা প্রত্যাহার করেছে। যা গত ২০ অক্টোবর করা আরেক নির্দেশনার মাধ্যমে কোম্পানির বিরুদ্ধে মামলা করেছে বলে জানিয়েছিল।

উল্লেখ্য, আর এন স্পিনিংয়ের উদ্যোক্তা-পরিচালকদের বিরুদ্ধে রাইট শেয়ার নিয়ে জালিয়াতির অভিযোগে ২০১২ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর আর এন স্পিনিংয়ের উদ্যোক্তা-পরিচালদের শেয়ার বিক্রি, হস্তান্তর, বন্ধক ও উপহার দেওয়ার নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি। একই সঙ্গে রাইট শেয়ার সংক্রান্ত দাখিল করা কাগজপত্র জাল হওয়ায় আর এন স্পিনিংয়ের বিরুদ্ধে মামলা করে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। বিএসইসির মামলা চ্যালেঞ্জ করে উচ্চ আদালতে রিট করে কোম্পানি কর্তৃপক্ষ।

১০ জানুয়ারি ২০১২ তারিখে কমিশনের ৪১৫তম সভায় আর এন স্পিনিংকে ১টি সাধারণ শেয়ারের বিপরীতে ১টি রাইট শেয়ার ছেড়ে মূলধন বাড়ানোর অনুমতি দেয় বিএসইসি। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কোম্পানিটি ১৩ কোটি ৯১ লাখ ৪১ হাজার ২৩০টি সাধারণ শেয়ারের বিপরীতে রাইট শেয়ার ছেড়ে বাজার থেকে ২৭৮ কোটি ২৮ লাখ ২৪ হাজার ৬০০ টাকা উত্তোলন করার কথা ছিল। কিন্তু নির্ধারিত সময়ে এ কোম্পানির পরিচালকরা নিজ কোটায় রাইট শেয়ারের অর্থ জমা দিতে না পারায় বিএসইসি’র পক্ষ থেকে রাইটের আকার কমিয়ে ১২০ কোটি টাকা করতে বলা হয়।

এছাড়া, টাকা জমা দিতে না পারার কারণে কোম্পানিকে ১০ লাখ টাকা, পরিচালক শিরিন ফারুককে ২৫ লাখ টাকা এবং কোম্পানির বাকি পরিচালকদের প্রত্যেককে ৫০ লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়। দায়িত্বে অবহেলার কারণে এ কোম্পানির সচিবকে বরখাস্ত করা হয় এবং পরবর্তী ৫ বছর পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোনো কোম্পানিতে চাকরিতে যোগদানের বিষয়ে তার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। একই সাথে ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত আর এন স্পিনিংয়ের উদ্যোক্তা-পরিচালকদের শেয়ার বিক্রির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে বিএসইসি। একই সঙ্গে ব্যাংক হিসাবে কোম্পানির রাইট শেয়ারের ২৭৮ কোটি টাকার জাল কাগজপত্র দাখিলের অভিযোগে ২০১২ সালের ১০ অক্টোবর আর এন স্পিনিংয়ের চেয়ারম্যান, পরিচালকসহ মোট সাত ব্যক্তিকে আসামি করে মামলা করে বিএসইসি।

শেয়ারবাজারনিউজ/রু

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top