১৬ কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ

Arthik Protibadon_আর্থিক প্রতিবেদনশেয়ারবাজার ডেস্ক: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ১৬ কোম্পানি তাদের অর্ধবার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করা কোম্পানিগুলো হল: বিএসআরএম স্টীলস লিমিটেড, শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানি, আনোয়ার গ্যালভানাইজিং, ইউনিক হোটেল, ন্যাশনাল টিউবস, আনলিমা ইয়ার্ন, মিরাকল ইন্ডাষ্ট্রিজ, এপেক্স ট্যানারি, এসিআই ফরমুলেশন, শাইনপুকুর সিরামিকস, বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস, বেক্সিমকো লিমিটেড, বেক্সিমকো সিনথেটিকস, বিএসআরএম লিমিটেড, জি কিউ বলপেন এবং এসিআই লিমিটেড। নিম্নে কোম্পানিগুলোর আর্থিক বিবরণীর তথ্য প্রকাশ করা হলো-

বিএসআরএম স্টীলস লিমিটেড জুলাই’১৬-ডিসেম্বর’১৬ এই ছয় মাসে কনসোলিডেটেড শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.৬৭ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৩.০৫ টাকা। সর্বশেষ তিন মাসে অক্টোবর’১৬-ডিসেম্বর’১৬ এই সময়ে কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ১.৪৬ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১.৩৪ টাকা।

এদিকে অর্ধবার্ষিকে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) দাঁড়িয়েছে ৮.০৮ টাকা (নেগেটিভ)। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৫.৫৪ টাকা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ অর্থবছর পর্যন্ত কোম্পানির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ৩৪.৪০ টাকা। ৩০ জুন, ২০১৬ পর্যন্ত কোম্পানির এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ৩০.৭২ টাকা।

শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানি  কোম্পানিটির সর্বশেষ ৬ মাসে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.৭৭ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ছিল ২.৩৩ টাকা। আলোচিত সময়ে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদমূল্য (এনএভি) হয়েছে ৩৫.৮৪ টাকা । যা আগের বছর একইসময় ছিল ৩২.৬ টাকা ।

শেষ ৩ মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর, ১৬) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৮৫ টাকা । যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ১.১৮ টাকা ।

আনোয়ার গ্যালভানাইজিং জুলাই’১৬-ডিসেম্বর’১৬ এই ছয় মাসে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৪৫ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ০.৩৫ টাকা। সর্বশেষ তিন মাসে অক্টোবর’১৬-ডিসেম্বর’১৬ এই সময়ে কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ০.২৩ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ০.১৭ টাকা।

এদিকে অর্ধবার্ষিকে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) দাঁড়িয়েছে ১.২১ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১.২৬ টাকা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ অর্থবছর পর্যন্ত কোম্পানির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ৮.৮৮ টাকা। ৩০ জুন, ২০১৬ পর্যন্ত কোম্পানির এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ৮.৪২ টাকা।

ইউনিক হোটেল দ্বিতীয় প্রান্তিকে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৯৫ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ০.৯৩ টাকা।  গত তিন মাসে অর্থাৎ অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত এই সময়ে কোম্পানির  ইপিএস হয়েছে ০.৬৯ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ০.২১ টাকা।

অর্ধবার্ষিকে কোম্পানির শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.২৪ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ০.৩৯ টাকা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ অর্থবছরে কোম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভা (এনএভিপিএস) হয়েছে ৯০.১৮ টাকা। ৩০ জুন ২০১৬ অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ৮৯.২৪ টাকা।

ন্যাশনাল টিউবস  অর্ধবার্ষিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ২.৭৪ টাকা । যা এর আগের বছর একই সময়ে লোকসান ছিল ০.৫৪ টাকা। এ সময় কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য(এনএভি) হয়েছে ২১৫.১১ টাকা এবং শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) ৪.০৮ টাকা । গত অর্থবছরের একই সময়ে এনওসিএফপিএস ছিল ৬.১১ টাকা।
এদিকে অর্ধবার্ষিকের শেষ তিন মাসে অর্থাৎ অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ১ টাকা ৪৪ পয়সা। যা এর আগের বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৫ পয়সা।

আনলিমা ইয়ার্ন অর্ধবার্ষিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয়(ইপিএস) হয়েছে ০.৫১ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ০.৪৫ টাকা। এ সময় কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য(এনএভি) হয়েছে ১০.৯৯ টাকা এবং শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) ০.৭০ টাকা।
এদিকে অর্ধবার্ষিকের শেষ তিন মাসে অর্থাৎ অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ০.৩৫ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ০.৩১ টাকা।

মিরাকল ইন্ডাষ্ট্রিজ  জুলাই’১৬-ডিসেম্বর’১৬ এই ছয় মাসে কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৫৪ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ০.৩৬ টাকা। সর্বশেষ তিন মাসে অক্টোবর’১৬-ডিসেম্বর’১৬ এই সময়ে কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ০.২৮ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ০.১৬ টাকা।

এদিকে অর্ধবার্ষিকে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) দাঁড়িয়েছে ০.৩০ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ০.৪৪ টাকা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ অর্থবছর পর্যন্ত কোম্পানির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ৪২.৮৫ টাকা। ৩০ জুন, ২০১৬ পর্যন্ত কোম্পানির এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ৪২.৩১ টাকা।

এপেক্স ট্যানারি  দ্বিতীয় প্রান্তিকে এপেক্স ট্যানারির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) (without fair valuation surplus) হয়েছে ১.৮৩ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ৪.২২ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৭২.৬৫ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৮২ টাকা,  এনওসিএফপিএস ছিল ১৯.৬১ টাকা (নেগেটিভ) এবং ৩০ জুন, ২০১৬ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ৭৪.৭২ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ১.০১ টাকা বা ১২৩.১৭ শতাংশ।

গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৬) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) (without fair valuation surplus) হয়েছে ১.৭৩ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ০.২৩ টাকা।

এসিআই ফরমুলেশন  দ্বিতীয় প্রান্তিকে এসিআই ফর্মূলেশনের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.৮৩ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ৩.৪৭ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.৩৬ টাকা বা ১০.৩৭ শতাংশ। একই সময়ে (জুলাই-ডিসেম্বর ২০১৬) কোম্পানির নিট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো হয়েছে ১০.৩৭ টাকা (নেগেটিভ), যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ৪.৯৯ টাকা (নেগেটিভ)।

এছাড়া আলোচিত সময়ে কোম্পানির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাড়িয়ে ৫২.৩৪ টাকা। যা ৩০ জুন ২০১৬ সমাপ্ত অর্থবছরে ছিল ৫০.৫০।

এদিকে, গত তিন মাসে  (অক্টোবর-ডিসেম্বর‘১৬) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.১৬ টাকা। যা এর আগের বছরের একই সময়ে ছিল ২.৫৮ টাকা।

শাইনপুকুর সিরামিকস দ্বিতীয় প্রান্তিকে শাইনপুকুর সিরামিকসের শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.২৯ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের (এনওসিএফপিএস) পরিমাণ হয়েছে ০.৩৯ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৭.৮০ টাকা। যা আগের বছরে একই শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.০৪ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ০.৯৪ টাকা এবং ৩০ জুন ২০১৬ পর্যন্ত এনএভিপিএস ছিল ২৮.৯৫ টাকা।

এদিকে, গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৬) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.১৩ টাকা ।

বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস দ্বিতীয় প্রান্তিকে বেক্সিমকো ফার্মাসিটিক্যালসের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৭৩ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ২.৫৬ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৫৯.০৭ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২.৩৩ টাকা,  এনওসিএফপিএস ছিল ৩.২৮ টাকা এবং ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৫ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ৫৮.২০ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.৪১ টাকা।

গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৬) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৪৭ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ১.২৯ টাকা।

বেক্সিমকো লিমিটেড এ কোম্পানির ৬ মাসে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৫৬ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ছিল ০.৪৪ টাকা। গত ৩ মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর, ১৬) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.২২ টাকা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ০.২৮ টাকা। অর্ধবার্ষিকে এ  কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদমূল্য (এনএভি) হয়েছে ৭৩.৬২ টাকা। ৩০ জুন, ২০১৬ অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ৮৩.৮৪ টাকা।

বেক্সিমকো সিনথেটিকস এ কোম্পানির ৬ মাসে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৯৯ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ছিল ০.৩৮ টাকা। গত ৩ মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর, ১৬) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৫৭ টাকা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ০.১৩ টাকা। অর্ধবার্ষিকে এ  কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদমূল্য (এনএভি) হয়েছে ২২.৩৪ টাকা। ৩০ জুন, ২০১৬ অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ২৩.৩৪ টাকা।

বিএসআরএম লিমিটেড ১০ শতাংশ অন্তবর্তীকালীন ক্যাশ ডিভিডেন্ড ঘোষণা করেছে। এছাড়া কোম্পানিটি অর্ধবার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানির ইপিএস কমেছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, জুলাই’১৬-ডিসেম্বর’১৬ এই ছয় মাসে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.০১ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৩.২৯ টাকা। সর্বশেষ তিন মাসে অক্টোবর’১৬-ডিসেম্বর’১৬ এই সময়ে কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ১.২৬ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ২.৫২ টাকা।

এদিকে অর্ধবার্ষিকে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) দাঁড়িয়েছে ২৯.৭৪ টাকা (নেগেটিভ)। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১৪.৮১ টাকা (নেগেটিভ)। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ অর্থবছর পর্যন্ত কোম্পানির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ৫৪.৮৬ টাকা। ৩০ জুন, ২০১৬ পর্যন্ত কোম্পানির এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ৫২.৮৪ টাকা। উল্লেখ্য, অন্তবর্তীকালীন ডিভিডেন্ডের রেকর্ড ডেট ১৬ ফেব্রুয়ারি নির্ধারণ করা হয়েছে।

জি কিউ বলপেনের অর্ধবার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদন অনুয়ায়ী কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে। জুলাই’১৬-ডিসেম্বর’১৬ এই ছয় মাসে এ কোম্পানির কনসোলিডেটেড শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.১৭ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি লোকসানের পরিমাণ ছিল ০.৩৫ টাকা।

৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ অর্থবছর পর্যন্ত কোম্পানির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৫৬.০৫ টাকা। এদিকে অর্ধবার্ষিকে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) দাঁড়িয়েছে ১.০৪ টাকা (নেগেটিভ)।

এসিআই লিমিটেডের দ্বিতীয় প্রান্তিকের  (জুলাই-ডিসেম্বর’১৬) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ওষুধ ও রসায়ন খাতের কোম্পানি এসিআই লিমিটেড। প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্রমতে, দ্বিতীয় প্রান্তিকে এসিআই লিমিটেডের শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ১২.৮৩ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ১০.৯৪ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ১.৮৯ টাকা বা ১৭.২৭ শতাংশ। একই সময়ে (জুলাই-ডিসেম্বর ২০১৬) কোম্পানির নিট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো হয়েছে ১.০৮ টাকা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ২৪.৫০ টাকা (নেগেটিভ)।

এছাড়া আলোচিত সময়ে কোম্পানির শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাড়িয়ে ২২৯.৩০ টাকা। যা ৩০ জুন ২০১৬ সমাপ্ত অর্থবছরে ছিল ২২১.৫৬ টাকা।

এদিকে, গত তিন মাসে  (অক্টোবর-ডিসেম্বর‘১৬) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮.৭৪ টাকা। যা এর আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৭.৫২ টাকা।

শেয়ারবাজারনিউজ/সো

আপনার মন্তব্য

Top