৩১ কোম্পানির দ্বিতীয় প্রান্তিক প্রকাশ

Arthik Protibadon_আর্থিক প্রতিবেদনশেয়ারবাজার ডেস্ক: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ৩১ কোম্পানির দ্বিতীয় প্রান্তিক আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। নিম্নে কোম্পানিগুলোর আর্থিক প্রতিবেদনের চিত্র তুলে ধরা হলো:

কাশেম ড্রাইসেল

দ্বিতীয় প্রান্তিকে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৪৮ টাকা। আগের বছর একই সময় ছিল ১.৩৩ টাকা (Diluted)।

এছাড়া শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ২.৫৯ টাকা  এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৪৪.১৯ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে এনওসিএফপিএস ছিল ২.৯৯ টাকা এবং এনএভিপিএস ছিল ৪৭.৭৬ টাকা।

গ্লোবাল হেভি কেবিক্যালস লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৫০ টাকা। যা আগের বছর একই সময় ছিল ০.২৭ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.০৩ টাকা।

এছাড়া শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ১.২৫ টাকা  এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৫৩.২৩ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে এনওসিএফপিএস ছিল ০.৮৫ টাকা এবং এনএভিপিএস ছিল ৫৩.২০ টাকা।

এদিকে, গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৬) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.২৭ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ০.৩৫ টাকা (নেগেটিভ)।

বিডি কম্পউটার্সের

দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৭১ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ১.০৫ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৬.১৭ টাকা।

যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৭৯ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ১.৫৩ টাকা এবং ৩০ জুন, ২০১৬ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ১৫.০৫ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে ০.০৮ টাকা বা ১০.১৩ শতাংশ।

গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৬) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.২৯ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ০.৪০ টাকা।

আরামিট সিমেন্ট

দ্বিতীয় প্রান্তিকে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.৬৬ টাকা। আগের বছর একই সময় শেয়ার প্রতি আয় ছিল ০.০৪ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির লোকসানে রয়েছে।

এছাড়া শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ৩.২৯ টাকা (নেগেটিভ) এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৩.৪৬ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে এনওসিএফপিএস ছিল ৩.৭৩ টাকা (নেগেটিভ) এবং এনএভিপিএস ছিল ১৪.৩৩ টাকা।

বঙ্গজ লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.৩০ টাকা। যা আগের বছর একই সময় শেয়ার প্রতি আয় ছিল ০.৯৬ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটি লোকসানে রয়েছে।

এছাড়া শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ২.২৪ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২২.৪৬ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে এনওসিএফপিএস ছিল ০.৯৪ টাকা (নেগেটিভ) এবং এনএভিপিএস ছিল ২২.৭৬ টাকা।

এদিকে, গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৬) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.১৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ০.১৯ টাকা।

আরামিট লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.০২ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ১১.৪৪ টাকা (নেগেটিভ) এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৪৯.০৪ টাকা।

যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৪.৯০ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ৫.২০ টাকা এবং ৩০ জুন, ২০১৬ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ১৪৩.১০ টাকা।

গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৬) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৫৩ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ২.৩৭ টাকা।

জুট স্পিনার্স

দ্বিতীয় প্রান্তিকে জুট স্পিনার্সের শেয়ার প্রতি আয় লোকসান হয়েছে ২৩.৪৩ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ৭.৫৪ টাকা (নেগেটিভ) এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৭০.৮৭ টাকা (নেগেটিভ)। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১৭.২৪ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ১০.৮৯ টাকা এবং ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৬ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ১২২.৪২ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির লোকসান ৬.১৯ টাকা।

গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৬) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় লোকসান হয়েছে ১৩.২৬ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে লোকসান ছিল ৭.৫৪ টাকা।

জাহিন স্পিনিং মিলস লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৮৮ টাকা। আগের বছর একই সময় ছিল ০.৪০ টাকা (restated)।

এছাড়া শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ০.৪৭ টাকা  এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৩.৫৬ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে এনওসিএফপিএস ছিল ১.৪২ টাকা (restated) এবং এনএভিপিএস ছিল ১৪.৫৮০ টাকা।

এদিকে, গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৬) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৪২ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ০.১০ (নেগেটিভ) টাকা (restated) ।

অলিম্পিক ইন্ডা: লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪.১৯ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ২.৮১ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৩ টাকা।

যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৩.৮০ টাকা,  এনওসিএফপিএস ছিল ৬.৫৯ টাকা এবং ৩০ জুন, ২০১৬ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ১৯.২৪ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.৩৯ টাকা বা ১০.২৬ শতাংশ।

গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৬) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.১১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ২.০৭ টাকা।

জিপিএইচ ইস্পাত লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৮৯ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ০.৯৯ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৬.২৭ টাকা।

যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১.২৬ টাকা,  এনওসিএফপিএস ছিল ২.৫৮ টাকা এবং ৩০ জুন, ২০১৬ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ১৫.৪৫ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে ০.৪৪ টাকা বা ৩৫ শতাংশ।

গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৬) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৪৫ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ০.৬১ টাকা।

প্রাইম টেক্সটাইল

দ্বিতীয় প্রান্তিকে প্রাইম টেক্সটাইল শেয়ার প্রতি আয় (without unrealized gain) (ইপিএস) হয়েছে ০.৪৭ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ২.৭৮ টাকা (নেগেটিভ) এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৫০.৬৯ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৪৮ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ০.৬৬ টাকা এবং ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৬ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ৫১.০৭ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে ০.০১ টাকা।

গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৬) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (without unrealized gain)  (ইপিএস) হয়েছে ০.২১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ০.২৬ টাকা।

সালভো কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রি লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৪১ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ০.১৪ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১১.৫৩ টাকা।

যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.২৯ টাকা (restated),  এনওসিএফপিএস ছিল ০.৯৮ টাকা (restated) এবং ৩০ জুন, ২০১৬ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ১১.১২ টাকা (restated)। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.১২ টাকা বা ৪১.৩৮ শতাংশ।

গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৬) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.১৮ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ০.১০ টাকা।

রংপুর ডেইরী এন্ড ফুড প্রোডাক্টস লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.২২ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ০.৪৪ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৬.৩৯ টাকা।

যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.২৪ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ০.৫১ টাকা এবং ৩০ জুন, ২০১৬ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ১৭.৭৯ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.০২ টাকা বা ৮.৩৩ শতাংশ।

গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৬) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.০৬ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ০.০৮ টাকা।

ফারইস্ট নিটিং অ্যান্ড ডাইং ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে ফারইস্ট নিটিংয়ের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) (fully diluted) হয়েছে ০.৯৮ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ০.১৩ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) (With Revaluation surpius) হয়েছে ১৯.৯৬ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) (fully diluted) ছিল ০.৭৭ টাকা,  এনওসিএফপিএস ছিল ১.৩৯ টাকা (নেগেটিভ) এবং ৩০ জুন, ২০১৬ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস (With Revaluation surpius) ছিল ২১.৩৭ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.২১ টাকা।

গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৬) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) (fully diluted) হয়েছে ০.৬১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ০.৪৩ টাকা।

ফার্মা এইডস লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪.৯০ টাকা। আগের বছর একই সময় ছিল ৪.০১ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.৮৯ টাকা।

এছাড়া শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ১.০৩ টাকা (নেগেটিভ)  এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৪৪.৩৫ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে এনওসিএফপিএস ছিল ১.৩৩ টাকা এবং ৩০ জুন ২০১৬ পর্যন্ত এনএভিপিএস ছিল ৪২.৪৫ টাকা।

আরএন স্পিনিং

কোম্পানিটির সর্বশেষ ৬ মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর,২০১৬) শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.৮ টাকা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ০.১৭ টাকা। এ হিসেবে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান কমেছে ০.০৯ টাকা। অর্ধবার্ষিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) ২৪.২৯ টাকা এবং শেয়ার প্রতি নগদ কার্যকর প্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ২.৮৯ টাকা।

এদিকে, শেষ ৩ মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর, ১৬) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৩২ টাকা। যা আগের বছরের একই সময়ে শেয়ার প্রতি লোকসান ছিল ০.২০ টাকা। ফলে শেষ তিন মাসে লোকসান কাটিয়ে মুনাফায় ফিরেছে আরএন স্পিনিং।

অলটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.৭৬ টাকা। যা আগের বছর একই সময় শেয়ার প্রতি আয় ছিল ১.৩৩ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির লোকসানে রয়েছে।

এছাড়া শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ০.১১ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৬.৮৯ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে এনওসিএফপিএস ছিল ০.৭০ টাকা এবং ৩০ জুন ২০১৬ পর্যন্ত এনএভিপিএস ছিল ২৭.৬৪ টাকা।

এদিকে, গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৬) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.৩৮ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ০.৮৬ টাকা।

এ্যাপোলো ইস্পাত লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে এ্যাপোলো ইস্পাতের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) (Basice) হয়েছে ১.৩৬ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ০.২২ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) (Including Revaluation surpius) হয়েছে ২৮.২৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) (Basice) ছিল ১.৮২ টাকা,  এনওসিএফপিএস ছিল ১.৫৭ টাকা এবং ৩০ জুন, ২০১৬ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস (Including Revaluation surpius) ছিল ২৩.৩৮ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে ০.৪৬ টাকা বা ৩৩.৮২ শতাংশ।

গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৬) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) (Basice) হয়েছে ০.৬৯ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ১.১০ টাকা।

কোহিনূর কেমিক্যালস লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫.৫৯ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে ইপিএস ছিল ৪.১৫ টাকা। অর্থাৎ ইপিএস বেড়েছে ৩৫ শতাংশ।

এদিকে শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৩২.৬২ টাকা এবং শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৩৯ টাকা।

সিনোবাংলা ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৬১ টাকা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ০.৫৩ টাকা । এ হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.০৮ টাকা। শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) ২৫.২৫ টাকা এবং শেয়ার প্রতি নগদ কার্যকর প্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ১.৩৯ টাকা।

এদিকে, শেষ ৩ মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর, ১৬) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৪১ টাকা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ০.২০ টাকা।

ডোরিন পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড সিস্টেমস লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.৬৬ টাকা। যা আগের বছর একই সময় ছিল ০.৪১ টাকা (restated)। এছাড়া শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ২.২৭ টাকা  এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৩২.০৬ টাকা (With revaluation)। যা আগের বছরে একই সময়ে এনওসিএফপিএস ছিল ১.৩৬ টাকা এবং ৩০ জুন ২০১৬ পর্যন্ত এনএভিপিএস ছিল ৩৪.৩৪ টাকা (With revaluation)।

এদিকে, গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৬) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৮১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ০.১৮ টাকা (restated)।

রহিমা ফুড কর্পোরেশন লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.২৬ টাকা। এদিকে শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৫.৫২ টাকা এবং শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২.৮২ টাকা।

কনফিডেন্স সিমেন্ট লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে কনফিডেন্স সিমেন্টের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪.৬ টাকা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৩.৮৬ টাকা।কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদমূল্য (এনএভি) হয়েছে ৭৪.২৩ টাকা। যা আগের বছর একইসময় ছিল ৭৩.৭৫ টাকা।

শেষ ৩ মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর, ১৬) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৭৬ টাকা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ২.৪৯ টাকা।

সিমটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.১৫ টাকা। আগের বছর একই সময় ছিল ০.৯৫ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ০.২০ টাকা।

এছাড়া শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ১.৭০ টাকা  এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২২.৫০ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে এনওসিএফপিএস ছিল ০.১৭৪ টাকা (নেগেটিভ) এবং এনএভিপিএস ছিল ২৩.২৯ টাকা।

এম.আই সিমেন্ট ফ্যাক্টরী লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.২১ টাকা। যা আগের বছর একই সময় শেয়ার প্রতি আয় ছিল ২.০০ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় বেড়েছে ০.২১ টাকা।

এছাড়া শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ৪.৭২ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৪৫.৫২ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে এনওসিএফপিএস ছিল ৩.৮০ টাকা এবং এনএভিপিএস ছিল ৩৯.১০ টাকা।

বিচ হ্যাচারী লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ০.২২ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ০.০১ টাকা (নেগেটিভ) এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১১.০৪ টাকা।

যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.০১ টাকা,  এনওসিএফপিএস ছিল ০.০৩ টাকা এবং এনএভিপিএস ছিল ১১.২৬ টাকা।

বিকন ফার্মা লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির বিকন ফার্মার শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.১৪ টাকা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ০.১২ টাকা। শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদমূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৩.১৩ টাকা এবং শেয়ার প্রতি নগদ কার্যকর প্রবাহ (এনওসিএফপিএস) ১.১৬ টাকা।

পদ্মা অয়েল

দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১০.৯৪ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ২৪.১৩ টাকা (নেগেটিভ) এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১০৩.৮৬ টাকা।

যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৭.৫০ টাকা,  এনওসিএফপিএস ছিল ৩০.৭১ টাকা এবং ৩০ জুন, ২০১৬ সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ৯২.৯২ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ৩.৪৪ টাকা বা ৪৫.৮৭ শতাংশ।

গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর ১৬) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫.১৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ৩.১৪ টাকা।

প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল

অর্ধবার্ষিকী শেষে (জুলাই-ডিসেম্বর, ২০১৬) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৭৫ টাকা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ০.৮০ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির ইপিএস কমেছে ০.০৫ টাকা।

তাছাড়া ৩ মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর, ২০১৬) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ০.৩৩ টাকা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ০.৪৬ টাকা। শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদমূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৯.৮৮ টাকা।

এপেক্স ফুটওয়্যার লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস)  হয়েছে ১৩.২৬ টাকা। যা আগের বছর একই সময় শেয়ার প্রতি আয় ছিল ১৬.৯৬ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় কমেছে ৩.৭০ টাকা।

এছাড়া শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ৫৯.৬৮ টাকা  এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৩৩.৪৯ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে এনওসিএফপিএস ছিল ২১.৯৮ টাকা এবং এনএভিপিএস ছিল ২২০.২২ টাকা।

এদিকে, গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৬) কোমানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস)  হয়েছে ১.৫৪ টাকা। যা আগের বছর একই সময় শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৩.২৯ টাকা।

আমান ফিড লিমিটেড

দ্বিতীয় প্রান্তিকে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস)  হয়েছে ২.৬০ টাকা (বেসিক)। যা আগের বছর একই সময় শেয়ার প্রতি আয় ছিল ২.১৬ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির আয় বেড়েছে ০.৪৪ টাকা।

এছাড়া শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ৪.২০ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে এনওসিএফপিএস ছিল ০.৬৫ টাকা।

এদিকে, গত তিন মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৬) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস)  হয়েছে ১.৩১ টাকা (বেসিক)। যা আগের বছর একই সময় শেয়ার প্রতি আয় ছিল ১.১২ টাকা।

শেয়রাবাজারনিউজ/সো

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top