৯ হাজার ১৫৮ কোটি টাকা ব্যয়ে চার বিদ্যুৎ প্রকল্প

powerশেয়ারবাজার রিপোর্ট: বিদ্যুৎ উৎপাদনে(২৫৮ মেগাওয়াট) টাঙ্গাইল, পঞ্চগড়, বাগেরহাট, নীলফামারি ও লালমনিরহাটে চারটি প্রকল্পে সম্মতি দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি, যেখানে ২০০ মেগাওয়াট বিদ্যুতের দাম কিলোওয়াটপ্রতি ১১ টাকার বেশি দামে সরকার ক্রয় করবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। আর এ চারটি প্রকল্পে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৯ হাজার ১৫৮ কোটি টাকা।

বুধবার সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সভাপতিত্বে কমিটির সভায় এ অনুমোদন দেয়া হয়। চারটি প্রকল্পেই বাস্তবায়নকারি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ২০ বছর মেয়াদি চুক্তি করবে সরকার। বিদ্যুৎ উৎপাদনের পর নির্ধারিত দামে সেই বিদ্যুৎ সরকার ক্রয় করবে বলে প্রস্তাবে বলা হয়েছে।

এর মধ্যে ৫০ মেগাওয়াটের একটি কেন্দ্র হবে টাঙ্গাইলে। এটি বাস্তবায়ন করবে কনসোর্টিয়াম অব হানওয়া ৬৩ সিটি কোম্পানি লিমিটেড, বিজে পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড এবং সোলার সিটি বাংলাদেশ লিমিটেড।

এই বিদ্যুৎ প্রতি কিলোওয়াট ১৩ মার্কিন সেন্ট দরে ক্রয় করবে সরকার। যা বাংলাদেশি টাকায় পড়বে ১০ টাকা ৪০ পয়সা। ২০ বছরে সরকারের আনুমানিক মোট ব্যয় হবে ১ হাজার ৬৮৪ কোটি টাকা।

পঞ্চগড়ের কেন্দ্রে উৎপাদন হবে ৮ মেগাওয়াট। এটি বাস্তবায়ন করবে বাংলাদেশের জেভি অব প্যারাগন পোল্ট্রি লিমিটেড ও প্যারাসোল এনার্জি লিমিটেড এবং হংকংয়ের সিম্বোইর সোলার সিয়াম লিমিটেড। একই দরে বিদ্যুৎ ক্রয়ে ২০ বছরের সরকারের মোট আনুমানিক ব্যয় হবে ২৬৮ কোটি টাকা।
বাগেরহাটের ১০০ মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন কেন্দ্র তৈরি করবে সংযুক্ত আরব আমিরাতের এনারগন টেকনোলজিজ এফজেডই এবং চায়না সানারজি কোম্পানি লিমিটেড। প্রতি কিলোওয়াট ১৩ দশমিক ৮ সেন্ট দরে ক্রয় করবে সরকার। যা বাংলাদেশি টাকায় পড়বে ১১ টাকা ৪ পয়সা। ২০ বছরে আনুমানিক ৩৫৭৮ কোটি টাকা পরিশোধ করতে হবে।

নীলফামারি ও লালমনিরহাটের অপর বিদ্যুৎ কেন্দ্র দুটিও ১০০ মেগাওয়াট উৎপাদন ক্ষমতা সম্পন্ন। বাস্তবায়ন করবে কনসোর্টিয়াম অব ঝেজিয়াং ডান্যান নিউ এনার্জি কোম্পানি লিমিটেড, চায়না ন্যাশনাল মেশিনারি ইম্পোর্ট অ্যান্ড এক্সপোর্ট করপোরেশন, সোলার টেক পাওয়ার লিমিটেড, এমিটি সোলার লিমিটেড।

প্রতি কিলোওয়াট বিদ্যুৎ ১৪ মার্কিন সেন্ট বা ১১ টাকা ২০ পয়সা করে ক্রয় করবে সরকার। ২০ বছরে সরকারের মোট ব্যয় হবে ৩৬২৮ কোটি টাকা।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/আ

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top