ফিন্যান্সিয়াল লিটারেসি-পর্ব ৬: পুঁজিবাজারের কিছু মৌলিক শব্দের ব্যাখ্যা

Financial-Litaracy-1শেয়ারবাজার রিপোর্ট: বিনিয়োগ শিক্ষা অর্জনের জন্য ফিন্যান্সিয়াল লিটারেসির কার্যক্রম শুরু করেছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। ফিন্যান্সিয়াল লিটারেসির মাধ্যমে বিনিয়োগকারীরা যেন সঠিক বিনিয়োগ জ্ঞান অর্জন করে নিজেরা লাভবান হতে পারেন সেজন্য যাবতীয় কাজ হাতে নেয়া হয়েছে। বিএসইসির যুগপোযোগী এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়ে শেয়ারবাজারনিউজ ডটকম পত্রিকা ফিন্যান্সিয়াল লিটারেসির বিভিন্ন বিষয় প্রকাশ করছে।

আজ প্রকাশিত হলো ৬ষ্ঠ পর্ব: পুঁজিবাজারের কিছু মৌলিক শব্দের ব্যাখা।

১। “বুল” এবং ‘বিয়ার মার্কেট” কি?
যদি কোন ব্যক্তি আশাবাদী হয় এবং বিশ্বাস করে যে, স্টকের মূল্য উচ্চপর্যায়ে যাবে তবে তাকে “বুল” বলা হয়ে থাকে এবং এই অবস্থাকে “বুলিশ আউটলুক” বলা হয়ে থাকে। খারাপ অর্থনীতি, মন্দার আশংকা এবং স্টকের মুল্য পতনশীল অবস্থাকে “বিয়ার মার্কেট” বলা হয়ে থাকে। এই অবস্থায় বিনিয়োগকারীদের জন্য লাভজনক স্টক বাছাই করা কঠিন হয়ে পড়ে।

২। রেকর্ড তারিখ কি?
রেকর্ড তারিখ হল কোম্পানি প্রতিষ্ঠিত একটি তারিখ যার মধ্যে কোম্পানিকে এঁর শেয়ারহোল্ডারদের মধ্যে কারা লভ্যাংশ বা বন্টন পাওয়ার যোগ্য তা বাছাই করতে হয়। রেকর্ড নির্ধারণ করা হয় যেন ওই তারিখে উক্ত কোম্পানির শেয়ারহোল্ডাররা কারা তা চিহ্নিত করা যায়, কারণ একটি সক্রিয়ভাবে কার্যকর স্টকের শেয়ারহোল্ডাররা ক্রমাগত পরিবর্তনশীল। রেকর্ড তারিখ হিসাবে রেকর্ড শেয়ারহোল্ডাররা কোম্পানি ঘোষিত লভ্যাংশ বা বন্টনের অধিকারী হবেন।

৩। “বুক ক্লোজার” কি?
একটি সময়কাল যার মাঝে কোম্পানি তাঁর রেজিস্টার সমন্বয় বা শেয়ার হস্তান্তর করবে না। “বুক ক্লোজার” তারিখ ব্যবহ্রত হয় কাট-অফ তারিখ সনাক্ত করার জন্য, যা কোন কোন রেকর্ডকৃত বিনিয়োগকারীদের একটি প্রদত্ত লভ্যাংশ প্রদান করা হবে তা নির্ধারণ করা হয়। বিনিয়োগকারীদের শেয়ার ক্রয়-বিক্রয়ের কারণে পাবলিক-ট্রেডকারী কোম্পানির স্টক দৈনিক হাতবদল হয়। এই কারণে, যখন একটি কোম্পানি লভ্যাংশ প্রদানের ঘোষণা করে, তখন তাঁরা একটি নির্দিষ্ট তারিখ ঠিক করেন যে তারিখে শেয়ারহোল্ডার রেকর্ড বই বন্ধ হবে এবং ওই তারিখের শেয়ারধারী বিনিয়োগকারীদের লভ্যাংশ প্রদানে অঙ্গীকার করেন।

৪। নিষ্পত্তির সময়সীমা কি?
একটি নিষ্পত্তির সময়সীমা হল যা হল নিষ্পত্তির তারিখ এবং লেনদেনের তারিখের মাঝে লেনদেন অংশগ্রহণকারীদের প্রদানকৃত একটি নির্দিষ্ট সময় যার মাঝে লেনদেনের প্রতিশ্রুতি পুরণ করতে হয়। ক্রেতা অবশ্যই নিষ্পত্তির সময়সীমার মধ্যে টাকা পরিশোধ করবেন, একইভাবে বিক্রেতা এই সময়ের মাঝে ক্রয়কৃত সিকিউরিটি প্রদান করবেন।
T+1, T+2 এবং T+3 কি?
T+1, T+2 এবং T+3 নির্দেশ করে সিকিউরিটি লেনদেনের নিষ্পত্তির তারিখের প্রতি এবং বোঝায় নিস্পত্তি হবে লেনদেন তারিখের যথাক্রমে ১, ২ ও ৩ দিন পরে।

৫। লভ্যাংশ কি?
একটি নির্দিষ্ট অঙ্কের অর্থ/স্টক যা একটি প্রতিষ্ঠান নিয়মিতভাবে (সাধারণত ত্রৈমাসিক) তাদের লাভ (অথবা তহবিল) হতে শেয়ারহোল্ডারদেরকে প্রদান করে থাকেন।

৬। বি ও আকাউন্ট কি?
বি ও অ্যাকাউন্টের পূর্ণরূপ হচ্ছে বেনেফিসিয়ারি ওনার্স অ্যাকাউন্ট। এটি একটি ডিপোজিটরি পার্টিসিপ্যান্টের দ্বারা সেন্ট্রাল ডিপোজিটরি বাংলাদেশ লিমিটেডের সাথে খোলা হয়।

৭। অথরাইজড রিপ্রেজেন্টেটিভ কে?
অথরাইজড রিপ্রেজেন্টেটিভ বা অনুমোদিত প্রতিনিধি হচ্ছে একজন অনুমোদিত ব্যক্তি যিনি ট্রেডিং ওয়ার্ক স্টেশন চালনা করতে পারবেন।

৮। ডেরিভেটিভস কি?
ডেরিভেটিভস হচ্ছে দুই বা ততোধিক পক্ষের মাঝে চুক্তি যার মূল্য নির্ভর করে একটি সর্বস্বীকৃত অন্তর্নিহিত আর্থিক সম্পদ, ইনডেক্স বা সিকিউরিটি। সাধারণ অন্তর্নিহিত উপকরণসমূহ হলঃ বন্ড, পণ্যদ্রব্য, মুদ্রা, সুদের হার, বাঁজার ইনডেক্স এবং স্টক।

৯। ইনডেক্স কি?
স্টক ইনডেক্স অথবা স্টক মার্কেট ইনডেক্স হচ্ছে স্টক মার্কেটের একটি অংশের মুল্যের পরিমাপ। এটি নির্বাচিত কিছুসংখ্যক স্টকের দাম হতে পরিমাপ করা হয়ে থাকে (সাধারণত একটি ভরযুক্ত গড়)। এটি বিনিয়োগকারী এবং আর্থিক ব্যবস্থাপকদের দ্বারা ব্যবহৃত একটি উপায় বিশেষ যা দ্বারা মার্কেট বর্ণনা করা হয় এবং নির্দিষ্ট কিছু বিনিয়োগের মধ্যে আয় পর্যালোচনা করতে ব্যবহার করা হয়।

১০। সঞ্চয় ও বিনিয়োগ বলতে কি বোঝায়?
সঞ্চয়ঃ- আয়ের যে অংশ ব্যয় করার পর উদ্বৃত্ত থাকে তাকে সঞ্চয় বলা হয়।
বিনিয়োগঃ- ভবিষ্যত প্রাপ্তির উদ্দেশ্যে বর্তমানে লগ্নিকরনকে বিনিয়োগ বলা হয়।

১১। বাংলাদেশ পুঁজিবাজারে আয়কর সংক্রান্ত সুবিধাদি কী?
• বিনিয়োগের উপর ১৫% পর্যন্ত কর রেয়াত
• ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীর মুলধনী মুনাফা (Capital Gain) সম্পূর্ণ করমুক্ত
• শেয়ার হতে প্রাপ্ত ডিভিডেন্ড বাবদ আয়ের করমুক্ত সীমা ২৫,০০০/- টাকা
• মিউচ্যুয়াল ফান্ড ইউনিট হতে প্রাপ্ত ডিভিডেন্ড বাবদ আয়ের করমুক্ত সীমা ২৫,০০০/- টাকা
• স্টক ডিভিডেন্ড বাবদ প্রাপ্ত আয় সম্পূর্ণ করমুক্ত

১২। বিনিয়োগ পণ্য বলতে কী বোঝায়?
বিনিয়োগ পণ্য বলতে বোঝায়ঃ
• ইক্যুইটি/শেয়ার
• মিউচ্যুয়াল ফান্ড
• ডিবেঞ্চার
• বন্ড- কপোরেট, জিরো কুপন ও ট্রেজারী
• সম্পদ ভিত্তিক সিকিউরিটিজ
• অল্টারনেটিভ ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড-প্রাইভেট ইক্যুইটি/ভেঞ্চার ক্যাপিটাল ও ইমপ্যাক্ট ফান্ড
• ডেরিভেটিভস

১৩। Investor Protection Fund কী?
বিনিয়োগকারীগনের স্বার্থ সংরক্ষনের জন্য Dhaka/Chittagong Stock Exchange Investor Protection Fund Regulations, ১৯৯৯ এর অধীন উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে Investor Protection Fund এর ব্যবস্থা রয়েছে। কোন স্টক ব্রোকার যদি আদালত কর্তৃক দেউলিয়া (insolvent) ঘোষিত কিংবা স্বেচ্ছাকৃত বা অন্য কোন কারনে উহার অবলুপ্তির ফলে গ্রাহকের পাওনা পরিশোধে ব্যার্থ হয় সেক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট স্টক এক্সচেঞ্জ উক্ত তহবিল থেকে ক্ষতিগ্রস্থ বিনিয়োগকারীদের ক্ষতিপুরনের ব্যবস্থা করে থাকে।

১৪। মার্চেন্ট ব্যাংক কি?
মার্চেন্ট ব্যাংক হচ্ছে একটি প্রতিষ্ঠান যা অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের জন্য আন্তর্জাতিক অর্থায়ন, ব্যবসায়িক ঋণ প্রদান করে এবং দায়গ্রহণ করে। এসকল ব্যাংক আন্তর্জাতিক বাণিজ্য ক্ষেত্রে বিশেষভাবে পারদর্শী, যা তাদেরকে বহুজাতিক কর্পোরেশন সংশ্লিষ্ট কর্মকাণ্ডে বিশেষজ্ঞ করে তুলেছে। মার্চেন্ট ব্যাংক অন্যান্য সকল বিনিয়োগ ব্যাংকের মত সুবিধা প্রদান করতে পারে, কিন্তু সাধারণ জনগণের কাছে নিয়মিত ব্যাংকিং সুবিধা প্রদান করে না।

১৫। মিউচ্যুয়াল ফান্ড কি?
মিউচ্যুয়াল ফান্ড হচ্ছে বহুসংখ্যক বিনিয়োগে ইচ্ছুক বিনিয়োগকারীদের হতে সংগ্রহিত একটি তহবিল। নিজস্বভাবে পৃথক স্টক এবং বন্ড ক্রয়-বিক্রয়ের চেয়ে মিউচ্যুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ অধিক সহজ।

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

 

Tags , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , , ,

আপনার মন্তব্য

*

*

Top