বাজার চাঙ্গা করতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাছে সুবিধা চাইবে বিএসইসি

bsec-bbশেয়ারবাজার রিপোর্ট: পুঁজিবাজারকে চাঙ্গা করতে অর্থের যোগান বাড়াতে হবে। এর জন্য ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর বিনিয়োগ আরো বাড়ানো প্রয়োজন। আর তা সম্ভব বে-মেয়াদি মিউচ্যুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগের মাধ্যমে।

শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) মতে আইন অনুযায়ী পুঁজিবাজার এক্সপোজার লিমিট (বিনিয়োগ সীমা) এড়িয়ে বে-মেয়াদি মিউচ্যুয়াল ফান্ডে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বিনিয়োগ বাড়ানো সম্ভব। এর জন্য প্রয়োজন বাংলাদেশ ব্যাংকের নীতি সহায়তা। কারণ তারা বর্তমানে বে-মেয়াদি ফান্ডের বিনিয়োগকেও এক্সপোজার লিমিটেডের মধ্যে গণনা করছে। আর আইনে  বে-মেয়াদি ফান্ডের বিনিয়োগ এক্সপোজার লিমিটেডের বাইরে রাখার সুযোগ রয়েছে।

ব্যাংক কোম্পানি আইন অনুযায়ী পুঁজিবাজারে ব্যাংকের বিনিয়োগ তার ক্যাপিটালের ২৫ শতাংশের বেশি হতে পারবে না।

গত ফেব্রুয়ারি মাসে অনুষ্ঠিত আর্থিক খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থাদের সমন্বয় সভায় এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সঙ্গে বিএসইসি’র আলোচনা হয়েছে। বৈঠকে এ বিষয়ে বিএসইসি-কে সু-নির্দিষ্ট প্রস্তাবনা পাঠানোর অনুরোধ করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

এর প্রেক্ষিতে বিএসইসি পুঁজিবাজারের স্বার্থে প্রস্তাবনা তৈরির কাজ করছে। বিএসইসি’র এক কমিশনার শেয়ারবাজারনিউজ ডটকমকে এ বিষয়ে বলেন, ইতিমধ্যে প্রস্তাবনা তৈরির কাজ প্রায় চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। শিগগিরই কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নরের কাছে প্রস্তাবনাটি পাঠানো হবে।

তিনি আরো বলেন, ব্যাংক কোম্পানি অ্যাক্ট, ২০১৩ এর ধারা ২৬(ক) এ বলা হয়েছে পুঁজিবাজারে অন্যান্য উপাদানের পাশাপাশি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের বাজার মূল্যে ব্যাংকগুলোকে এক্সপোজার লিমিটে গণনা করতে হবে। কিন্তু বে-মেয়াদি ফান্ডে বিনিয়োগ বাজার মূল্যে গণনার সুযোগ নেই। কারণ তারা স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত নয়। তাই এ খাতে ব্যাংকের পাশাপাশি আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর বিনিয়োগ এক্সপোজার লিমিটের বাইরে রাখার প্রস্তাব দেওয়া হবে।

আর মিউচ্যুয়াল ফান্ড আইন অনুযায়ী ফান্ডগুলোর বিনিয়োগ উপযো্গী অর্থের একটি নির্দিষ্ট অংশ শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করতে হয়। আর ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বে-মেয়াদি ফান্ডে সক্রিয় হলে এ খাতে বিনিয়োগ বাড়বে। পাশাপাশি শেয়ারবাজারে ইকুইটি সহয়তাও বাড়বে।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/আ

আপনার মন্তব্য

One Comment;

  1. আতাউর said:

    শেয়ার বাজারের টুটি চেপে ধরার এমন প্রচেহটা নজিরবিহীন।

*

*

Top