ভারতের পুঁজিবাজার রেকর্ডে কেক কেটে উৎসব

indiaশেয়ারবাজার ডেস্ক: ভারতের পুঁজিবাজারে সূচকের রেকর্ড হওয়ায় কেট কেটে উৎসব করেছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা। এর আগে ৩০ হাজারের কাছাকাছি গিয়েছে সেনসেক্স। একবার ৩০ হাজার ছুঁয়ে নেমেও এসেছে। কিন্তু বুধবার শেয়ার বাজারে ঢালাও লগ্নি ও বিশ্ব জুড়ে সূচকের উত্থানের দৌলতে এই প্রথম ৩০ হাজার পেরিয়ে দৌড় শেষ করল বিএসই-র সূচক। যার অপেক্ষায় হা-পিত্যেশ করে বসেছিলেন লগ্নিকারীরা।

এ দিন সেনসেক্স উঠেছে ১৯০.১১ পয়েন্ট। ৩০,১৩৩.৩৫ অঙ্কে থেমে ঘাঁটি গেড়েছে নতুন শিখরে। শিরোপা উঠেছে এনএসই-র সূচক নিফ্‌টির মাথাতেও। ৪৫.২৫ পয়েন্ট এগিয়ে তার দিন শেষ হয়েছে ৯,৩৫১.৮৫ অঙ্কে। যা সর্বকালীন রেকর্ড।

দিনটা একই রকম পয়মন্ত ছিল মুদ্রা বাজারের জন্য। শেয়ার বাজারের সঙ্গে তাল মিলিয়েই বুধবার ডলারে ১৫ পয়সা ওঠে টাকার দাম। এক ডলার দাঁড়ায় ৬৪.১১ টাকা। ২১ মাসের সর্বোচ্চ অঙ্ক ছোঁয় টাকা। এর আগে ২০১৫ সালের ১০ অগস্ট ডলার স্পর্শ করেছিল ৬৩.৮৭ টাকা।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ দিন সূচকের উত্থানের কারণ মূলত দু’টি: • লগ্নিকারীদের শেয়ার কেনার ঝোঁক। যার পেছনে হাত রয়েছে দিল্লি পুরভোটের ফলাফলের। যেখানে বিপুল ভোটে জয়ী হয়েছে বিজেপি। বাজারের একাংশের দাবি, এতে কেন্দ্রীয় সরকারের পায়ের তলার জমি আরও পোক্ত হল মনে করেই আশ্বস্ত লগ্নিকারীরা।

• এশিয়া, আমেরিকা, ইউরোপ— সর্বত্র বেশির ভাগ শেয়ার বাজারের ঊর্ধ্বমুখী গতি। যার কারণ, মার্কিন মুলুকের আর্থিক বৃদ্ধি ভাল হওয়ার সম্ভাবনা। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কর সংস্কার কর্মসূচি ঘিরে আশা। ইউরো-অঞ্চলের রাজনৈতিক ঝুঁকির কিছুটা মাথা নোয়ানো। ফরাসি প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রথম দফার ফলাফলে এমানুয়েল ম্যাক্রনের জয়।

এ দিন বাজার বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই সমস্ত কারণে বিদেশি লগ্নি সংস্থাগুলিও ভারতে শেয়ার কিনছে। গত কাল তা ছিল নিট ১৭৮.৮২ কোটি টাকা। যদিও বাজার এখন এদের উপর পুরো নির্ভরশীল নয়। কারণ দেশীয় লগ্নিকারী সংস্থাগুলি আর এক কাঠি উপরে উঠে শেয়ার কিনেছে ৯৯৮.২৬ কোটি টাকার শেয়ার।

এর আগে গত ২০১৫-র ৪ মার্চ প্রথম বার ৩০,০২৪.৭৪ অঙ্ক ছুঁয়েছিল সেনসেক্স। এর পরে গত ৫ এপ্রিল নতুন শিখরে পা রাখে (২৯,৯৭৪.২৪)। বুধবার এক সময়ে সূচকটি অবশ্য ছুঁয়ে ফেলেছিল ৩০,১৬৭.০৯ অঙ্ক। এ বার শুরু হল সেই নজির ভাঙার অপেক্ষাও।

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

*

*

Top