চার কোম্পানির প্রান্তিক প্রতিবেদন প্রকাশ

Arthik Protibadon Reportশেয়ারবাজার ডেস্ক: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত চার কোম্পানি তাদের প্রথম প্রান্তিক আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। কোম্পানিগুলো হলো: সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্স, বিজিআইসি, ঢাকা ইন্স্যুরেন্স এবং উত্তরা ফাইন্যান্স লিমিটেড। নিম্নে কোম্পানিগুলোর প্রান্তিক প্রতিবেদনের বিস্তারিত তুলে ধরা হলো:

 সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি

প্রথম প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ ১৭) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বীমা খাতের সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড। প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৬৭ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.৫৩ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৩.৪৯ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৬৪ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ০.৬৭ টাকা এবং এনএভিপিএস ছিল ২২.৭৪ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.০৩ টাকা।

বাংলাদেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বীমা খাতের বাংলাদেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের (বিজিআইসি) প্রথম প্রান্তিক (জানুয়ারি’১৭-মার্চ’১৭) আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) বেড়েছে। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ০.৮৯ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ০.৮৩ টাকা। শেয়ার প্রতি নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.০৮ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১ টাকা। এছাড়া শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ২০.৭৭ টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ১৯.৪৮ টাকা।

ঢাকা ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড

প্রথম প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ ১৭) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বীমা খাতের কোম্পানি ঢাকা ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড। প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে ঢাকা ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৩৬ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.১৯ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৮.২১ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৩৫ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ০.০৫ টাকা এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ পর্যন্ত এনএভিপিএস ছিল ১৭.৮৫ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.০১ টাকা।

উত্তরা ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট

প্রথম প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ ১৭) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত আর্থিক খাতের কোম্পানি উত্তরা ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটের। প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ১১.৪৪ শতাংশ। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, প্রথম প্রান্তিকে উত্তরা ফাইন্যান্সের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.২৪ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকরী নগদ প্রবাহের পরিমাণ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ৩৩.০৫ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদের পরিমাণ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৪৭.৭৩ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২.০১ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ২৪.৯৪ টাকা এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ পর্যন্ত এনএভিপিএস ছিল ৪৫.৪৯ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.২৩ টাকা বা ১১.৪৪ শতাংশ।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

One Comment;

  1. MD. Jahangir Alam said:

    Pls. We know that 15 May 2017 Fas Finance 1st quarter board meeting. Pls what is the meeting decision ? Thanks

Leave a Reply to MD. Jahangir Alam Cancel reply

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top