‘সেফ’ এর ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন ডিএসই’র এমডি

unnamedশেয়ারবাজার ডেস্ক: সাউথ এশিয়ান ফেডারেশন অব এক্সচেঞ্জ (সেফ) দক্ষিণ এশিয়ান অঞ্চলের ২৮ সদস্যের একটি ফোরাম যা এশিয়াভুক্ত দেশসমূহের পুঁজিবাজারের উন্নয়নের জন্য কাজ করছে। এই ফোরামের মাধ্যমে সদস্য দেশগুলো এক্সচেঞ্জের প্রযুক্তি ব্যবহার, আন্তর্জাতিক হিসাব মান, ক্রস বর্ডার লিস্টিং কে উৎসাহিতকরণ, পুঁজিবাজারে সর্বোত্তম লেনদেন ব্যবস্থা প্রচলন, মানব সম্পদ উন্নয়নে সহযোগিতসহ পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে কাজ করছে।

সেফ সার্কের একটি স্বীকৃত সংস্থা। দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের এই সংস্থাটি গত এক দশকের অধিক সময় যাবৎ দক্ষিণ এশিয়ার আর্থিক বাজারের উন্নয়নের জন্য সিকিউরিটিজ মার্কেটের উপর বিভিন্ন সম্মেলনের আয়োজন করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় মে ১১-১২, ২০১৭ তারিখে মুম্বাইতে অনুষ্ঠিত সাউথ এশিয়ান ফেডারেশন অফ এক্সচেঞ্জের ১৩তম বার্ষিক সাধারণ সভা এবং বার্ষিক সম্মেলনে ডিএসই’র পরিচালক অধ্যাপক ড. মোঃ মাসুদুর রহমান, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবুল মনসুর মোঃ আশরাফ খান, এনডিসি, পিএসসি এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক কে এ এম মাজেদুর রহমান অংশগ্রহণ করেন।

সেফ-এর বার্ষিক সাধারণ সভায় ২০১৭-২০১৯ সাল মেয়াদে বিএসই লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আশিষ চৌহানকে নতুন চেয়ারম্যান এবং কে.এ.এম.মাজেদুর রহমান ও রাজিভা বন্দরনায়েক কে নতুন ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত করা হয়।

বোম্বে স্টক এক্সচেঞ্জ লিঃ প্রথমবারের মত সেফ এর সভাপতি নির্বাচিত হয়ে সেবি, অন্যান্য নিয়ন্ত্রক সংস্থা এবং সেফ সদস্যদের সহায়তায় দক্ষিণ এশিয়ার পুঁজিবাজার উন্নয়নে কাজ করতে অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছে। সেফ এর পরবর্তী সম্মেলন ঢাকায় করার প্রস্তাব করা হয়।

সম্মেলনে মিউচ্যুয়াল ফান্ড, সমষ্ঠিগত বিনিয়োগ প্রকল্প, বেসরকারী ইকুইটি বিনিয়োগ, ক্ষদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তা, বিনিয়োগ ট্রাস্ট ইত্যাদির উপর প্যানেল আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। প্যানেল আলোচনার মধ্যে ছিলেন ভারতের আর্থিক সেবা শিল্পের বিশিষ্ট পেশাজীবী এবং সেফ সদস্যগন। ডিএসই ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিউচ্যুয়াল ফান্ড সেশন প্যানেলের একজন সদস্য হিসেবে অন্তর্ভূক্ত ছিলেন। সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ বোর্ড অব ইন্ডিয়া (সেবি) এর পূর্বকালীন সদস্য মাধবী পুরী বুচ।

পরে ডিএসই প্রতিনিধি দল সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ বোর্ড অব ইন্ডিয়ার আমন্ত্রণে ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব সিকিউরিটিজ মার্কেট (এনআইএসএম) পরিদর্শন করেন। এছাড়াও উক্ত সম্মেলনে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ লিঃ ও বিএসই লিঃ উভয় দেশের পুঁজিবাজার উন্নয়নে নিয়মিত নলেজ শেয়ারিং ও বাজার উন্নয়ন উদ্যোগ বিষয়ে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। এই সমঝোতা স্মারকে ডিএসই’র পক্ষে স্বাক্ষর করেন ব্যবস্থাপনা পরিচালক কে এ এম মাজেদুর রহমান এবং বিএসই লিঃ এর পক্ষে স্বাক্ষর করেন ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও আশিষ চৌহান। উক্ত সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর শেষে ডিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক বলেন, নিকটতম আন্তর্জাতিক স্টক এক্সচেঞ্জ হিসেবে বিএসই লিঃ এর শতাব্দী প্রাচীন অভিজ্ঞতা আন্তঃবিনিময়ের মাধ্যমে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ উপকৃত হবে। মূলত সহযোগীতার মাধ্যমে পারস্পরিক সুবিধার স্বার্থে এই সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় পৌঁছাবে।

সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে সেবি’র স্থায়ী সদস্য এবং ভারত সরকারের অর্থ মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব উপস্থিত ছিলেন। সেফ এর সম্মেলনে যোগদান করে ডিএসই দক্ষিণ এশিয়ার পুঁজিবাজার প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে একটি সম্মানজনক অবস্থান অর্জন করেছে। সম্মেলনে যোগদান, প্রাথমিক সদস্য নির্বাচন ও সেফ-এর ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচনের মাধ্যমে বাংলাদেশের পুঁজিবাজার এ অঞ্চলের পুঁজিবাজারগুলোর সাথে আন্তঃ সহযোগিতামূলক সম্পর্ক স্থাপন করেছে যা বাংলাদেশের পুঁজিবাজারকে আরও উন্নত ও টেকসই করবে।

শেয়ারবাজারনিউজ/আ

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top