বার্ষিক প্রতিবেদন তৈরিতে ব্যয় কমাতে বিএসইসির নির্দেশনা আসছে

BSECশেয়ারবাজার রিপোর্ট: কোম্পানির বার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদন তৈরিতে ব্যয় কমাতে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) নতুন নির্দেশনা আসছে। কোম্পানির শেয়ারহোল্ডারদের বার্ষিক প্রতিবেদন প্রিন্ট কপি কুরিয়ার সার্ভিসেস মাধ্যমে না পাঠিয়ে কোম্পানির ওয়েবসাইটে পুরো অ্যানুয়াল রিপোর্ট পিডিএফ ফাইল করে আপলোড দেয়ার নির্দেশনা শিগগিরই নিয়ন্ত্রক সংস্থা জারি করবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

জানা যায়, কোম্পানিগুলোর বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হওয়ার ন্যূনতম ১৫ দিন আগে শেয়ারহোল্ডারদের কাছে বার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদনের প্রিন্ট কপি পাঠানো হয়। কোনো কোম্পানির শেয়ারহোল্ডার যদি পাঁচ হাজার হয়ে থাকে তাহলে সর্বনিম্ন তিন হাজার হলেও কাগজের প্রতিবেদন ছাপিয়ে সংশ্লিষ্ট শেয়ারহোল্ডাদের ঠিকানায় কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে পাঠিয়ে দেয়। কিছু কিছু ব্যাংক,নন-ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বড় কোম্পানি বার্ষিক প্রতিবেদন তৈরির পেছনে অনেক অর্থ ব্যয় করে যাচ্ছে। আবার অনেক শেয়ারহোল্ডাররা বার্ষিক প্রতিবেদন পান না বলে প্রায়ই অভিযোগ করেন। তাই তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে এসব ঝামেলা এড়াতে কোম্পানি তাদের অ্যানুয়াল রিপোর্ট ওয়েবসাইটে তুলে ধরবে। এতে শেয়ারহোল্ডারসহ সকলেই কোম্পানির বার্ষিক প্রতিবেদন পেয়ে যাবে। আবার কোম্পানির এ সংক্রান্ত ব্যয়ও কমে যাবে। যার ফলাফল বিনিয়োগকারীরাই ভোগ করবে।

এ ব্যাপারে বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো: সাইফুর রহমান শেয়ারবাজারনিউজ ডটকমকে জানান, ইতিমধ্যে বিভিন্ন কোম্পানির শেয়ারহোল্ডারদের কাছ থেকে অভিযোগ এসেছে যে তারা যথাসময়ে বার্ষিক প্রতিবেদন পান না। তাই কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে প্রিন্ট কপি পাঠানোর পদ্ধতি বাদ দিয়ে অনলাইনে প্রকাশের জন্য কোম্পানিগুলোকে নির্দেশনা দেয়া হবে। এ নিয়ে বিএসইসি কাজ করছে। তবে কোম্পানিগুলোর একান্ত প্রয়োজনে প্রিন্ট কপি করতে পারে বলে জানান তিনি।

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

 

আপনার মন্তব্য

*

*

Top