দুর্বল কোম্পানি বাজারে প্রবেশ না করানোটাই ভাল: আজমত আলী

amjadশেয়ারবাজার রিপোর্ট: আজমত আলী মাল্টি সিকিউরিটিজ অ্যান্ড সার্ভিস লিমিটেডের মাধ্যমে ২০০৮ সালের শেষের দিকে শেয়ার ব্যবসায় শুরু করেন। তার বিও অ্যাকউন্ট নং: ১২০২৮৩০০১৯০১৬৯৬৩। অল্প পুঁজি নিয়ে শেয়ার ব্যবসার শুরু করে ভালোই লাভের মুখ দেখেছেন তিনি। কৌশলগত বিনিয়োগের কারণে শেয়ারবাজারের মন্দাবস্থায়ও তার তেমন ক্ষতি হয়নি। এছাড়া বর্তমান বাজার পরিস্থিতি আগের যেকোনো সময়ের তুলনায় ভালো বলে মনে করেন আজমত আলী। তবে সাম্প্রতিক পুঁজিবাজারে দুর্বল কোম্পানির প্রবেশকে তিনি নেতিবাচক দৃষ্টিতে দেখছেন। সম্প্রতি শেয়ারবাজার নিউজ ডট কমের সাথে এক একান্ত সাক্ষাতকারে  এসব মন্তব্য করেন আজমত আলী। সাক্ষাতকারটির চুম্বক অংশ পাঠকদের উদ্দেশ্যে নি¤েœ তুলে ধরা হলো :

শেয়ারবাজার নিউজ :  শেয়ার ব্যবসায় আসলেন কেন ?
আজমত আলী: ২০০৮ সালের দিকে অনেকের মুখে শুনতাম শেয়ার ব্যবসা একটি লাভজনক মানসম্মত ব্যবসা। এখানে অল্পপুঁজি বিনিয়োগ করে ভাল মুনাফা অর্জন করা যায়। পরবর্তীতে আমি  ব্যবসাটি সম্পর্কে জেনে ২০০৮ সালের শেষের দিকে বিও অ্যাকাউন্ট খুলে প্রথমে ৫০ হাজার টাকা বিনিয়োগ করি। ব্যবসায় ভাল লাভ হওয়ায় পরবর্তীতে বিভিন্ন কোম্পানিতে ৩ লাখ টাকা বিনিয়োগ করি।
শেয়ারবাজার নিউজ : সু-সময় কবে ছিল ?
আজমত আলী: যখন নতুন ব্যবসা করি তখন বেশ ভালোই ছিল। ২০০৯ সালের বাজার বেশ ভাল ছিল তাই বলা যায় ওই সময়টা সু-সময়ে কেটেছে। তখন প্রায় এক লাখ বিশ হাজার টাকা লাভ হয়েছে ।
শেয়ারবাজার নিউজ : খারাপ কখন কেটেছে ?
আজমত আলী: ২০১০ সালে বাজারের আবস্থা মন্দা ছিল তখনকার সময়টাকে বেশ দুঃসময় বলা যায়। তবে তেমন একটা লোকসান হয়নি। বাজারের অবস্থা যখন মন্দার দিকে ঠিক তখনই বাজার থেকে বেরিয়ে পড়ি। বাজার মন্দা থাকার কারণে বেশ কিছু দিন বিনিয়োগ থেকে বিরত ছিলাম। এতে করে বেশি লোকসান গুনতে হয়নি।
শেয়ারবাজার নিউজ : বর্তমানে বাজার পরিস্থিতি কেমন যাচ্ছে ?
আজমত আলী: গত বছরের শেষভাগে বাজার পরিস্থিতি কিছুটা খারাপ ছিল। নানা কারণে এমনটি হয়েছে। তবে এই অবস্থা বেশি দিন থাকবে না। বর্তমান বাজার পরিস্থিতির পূর্বের তুলনায় অনেকটা ভাল বলা যায়। বাজার পরিস্থিতি যে অবস্থায় এতে করে নতুন বিনিয়োগকারীদের জন্য খুব ভাল। স্বল্প মেয়াদে বাজার খারাপের দিকে গেলেও দীর্ঘ মেয়াদে এই পরিস্থিতির উন্নতি হবে। এ বাজারে রয়েছে অনেক সম্ভাবনা। এক সময় এটি মূলধন যোগানের প্রধান উৎসে পরিণত হতে পারে।

শেয়ারবাজার নিউজ : বর্তমান প্রাইমারি মার্কেটের অবস্থা সম্পর্কে কিছু বলুন।
আজমত আলী: সেকেন্ডারি মার্কেটের তুলনায় বর্তমান প্রাইমারি মার্কেট অনেক চাঙ্গাভাব বিরাজ করছে। প্রতিমাসেই একাধিক কোম্পানির প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) আবেদন চলছে। বিনিয়োগকারীরা লেনদেনের শুরুতে এসব কোম্পানি থেকে ভালো মুনাফা অর্জন করছে। তবে গণহারে এতো আইপিওর অনুমোদনের মধ্য দিয়ে পুঁজিবাজারে দুর্বল কোম্পানি প্রবেশের সুযোগ পাচ্ছে। এসব কোম্পানিকে বাজারে প্রবেশ না করানোটাই ভাল। বেশকিছু কোম্পানি বাজারে উচ্চ প্রিমিয়াম নিয়ে যাত্রা শুরু করে কিন্তু পরবর্তীতে বাজার দর কমে গেলে আমাদের মত বিনিয়োগকারীরা ক্ষতির মুখে পরে যায়। দেশে অনেক ভাল কোম্পানি রয়েছে। নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) উচিত এসব কোম্পানিকে পুঁজিবাজারে নিয়ে আসার ব্যবস্থা করা।
শেয়ারবাজার নিউজ : আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ
আজমত আলী: আপনাকেও

শেয়ারবাজার/মু/অ

আপনার মন্তব্য

Top