স্টক এক্সচেঞ্জের লেনদেনের সময় বাড়বে: আগামী কমিশন সভায় চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত

dse-cse-aameranew-logo_6154_6429-copyশেয়ারবাজার রিপোর্ট: দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে লেনদেনের সময় বাড়াতে স্টক এক্সচেঞ্জের পক্ষ থেকে বারবার বলা হচ্ছে। এতে লেনদেনের সময় ৩০ মিনিট বাড়াতে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) সম্মত হয়েছে। আগামী কমিশন সভায় এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হতে পারে বলে জানিয়েছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)।

বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বলেন, লেনদেনের সময় বাড়াতে দেশের দুই এক্সচেঞ্জ সহ স্টেক হোল্ডারদের দাবী রয়েছে। তাছাড়া বিষয়টি বর্তমান প্রেক্ষাপটে যৌক্তিক। তাই দাবী-টি কমিশনের সম্মতিতে রয়েছে। আগামী কমিশন সভায় এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসতে পারে বলে তারা জানান।

এ বিষয়ে ডিএসই’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাজেদুর রহমান শেয়ারবাজারনিউজ ডটকমকে বলেন, স্টক এক্সচেঞ্জের পক্ষ থেকে লেনদেন ৩০ মিনিট বাড়ানোর দাবী জানানো হয়েছে। কমিশনেও বিষয়টি চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের অপেক্ষায়। আশা করা হচ্ছে আগামী কমিশন সভায় চূড়ান্ত অনুমোদন পাওয়া যাবে। কমিশনের অনুমোদন পেলে লেনদেন ৪ ঘন্টার স্থানে সাড়ে ৪ ঘন্টা হবে।

ডিএসই’র কর্মকর্তারা জানান, দৈনন্দিন সাড়ে ১০টায় লেনদেন শুরুর আগে ১৫ মিনিট প্রি-ওপেনিং সেশন এবং লেনদেন শেষ হওয়ার পর ১৫ মিনিট পোস্ট-ক্লোজার সেশন।

তারা আরো জানায়, প্রি-ওপেনিং সেশনে বিনিয়োগকারীরা শুধু শেয়ার ক্রয় বা বিক্রয়ের আদেশ দিতে পারবেন। এ সময়ে লেনদেন সম্পন্ন হবে না। লেনদেন সম্পন্ন হবে পোস্ট-ক্লোজিং সেশনে। সেখানে শেয়ারের সমাপনি মূল্যে লেনদেন সম্পন্ন হবে। ৩০ মিনিট বাড়তি লেনদেনের জন্য প্রয়োজনীয় কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে বলে জানান ডিএসই’র কর্মকর্তারা। সিএসই একই দাবী করেছে।

জানা যায়, ইন্ডিয়া স্টক এক্সচেঞ্জে ৬ ঘন্টা লেনদেন হয়। অথচ বাংলাদেশে হয় ৪ ঘন্টা।

এর আগে বিভিন্ন সভায় ডিএসই ব্রোকার্স এসোসিয়েশন (ডিবিএ) লেনদেনের সময় বাড়ানোর দাবী জানিয়ে আসছে। এছাড়া সম্প্রতি ডিএসই এবং সিএসই লিখিত আকারে কমিশনের কাছে প্রস্তাব দিয়েছে। তাতে কমিশনের সম্মতিও রয়েছে। আর এতে পুঁজিবাজারে লেনদেন আরো বাড়বে বলে মনে করছেন তারা।

শেয়ারবাজারনিউজ/আ

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top