১০ কোম্পানিকে ডিএসইর শোকজ

dseশেয়ারবাজার রিপোর্ট: শেয়ার দরে অস্বাভাবিক উল্লম্ফনের পেছনে কারসাজি বা বিধি বহির্ভুতভাবে মূল্য সংবেদনশীল তথ্য প্রকাশ হয়েছে কিনা জানতে চেয়ে (১৩ জুলাই-২০ জুলাই) পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ১০ কোম্পানিকে শোকজ করেছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)। কোম্পানিগুলো হলো- জুট স্পির্নাস, সিমটেক্স, ইমাম বাটন, দুলামিয়া কটন, পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স, ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন, রহিমা ফুড, সায়হাম কটন, বিডি অটোকার্স এবং তুং হাই নিটিং লিমিটেড। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, গত কয়েক কার্যদিবসে ধরে এসব কোম্পানির শেয়ার দর অস্বাভাবিকভাবে বাড়তে  দেখা গেছে। আর তাই কোম্পানিগুলোর কাছে দর বাড়ার কারণ জানতে চায় ডিএসই। তারই প্রেক্ষিতে দর বাড়ার কোন মূল্যসংবেদনশীল তথ্য নেই বলে জানিয়েছেন কোম্পানিগুলোর কর্তৃপক্ষ।

জুট স্পির্নাস: গত ২ জুলাই এ শেয়ারের দর ছিলো ৬০.৪০ টাকা। আর ১৯ জুলাই এ শেয়ারের লেনদেন হয়েছে ৮৪.৯০ টাকায়। এ সময়ে জুট স্পিনার্সের শেয়ার দর বেড়েছে ২৪.৫০ টাকা বা ৪০.৫৬ শতাংশ।

সিমটেক্স: গত ২ জুলাই কোম্পানি শেয়ারের দর ছিল ২৮.৭০ টাকা। যা ১৮ জুলাই দর বেড়ে লেনদেন হয় ৩৪ টাকায়। এই সময়ে এ কোম্পানিটির শেয়ার দর বেড়েছে ৫.৩০ টাকা বা ১৮.৪৬ শতাংশ।

ইমাম বাটন: গত ৯ জুলাই কোম্পানি শেয়ারের দর ছিল ১৬ টাকা। এরপর গত ১৭ জুলাই দর বেড়ে লেনদেন হয় ১৮.১০ টাকায়। এই সময়ে এ কোম্পানিটির শেয়ার দর বেড়েছে ০ টাকা ২.১০ বা ১৩.১২ শতাংশ।

দুলামিয়া কটন: গত ১২ জুলাই থেকে বাড়ছে। এ সময়ে শেয়ারটির দর ৯ টাকা ৫০ পয়সা থেকেবেড়ে সর্বশেষ ১১ টাকা ২০ পয়সা পর্যন্ত হয়। অর্থাৎ এ সময়ে শেয়ারটির দর বেড়েছে ১ টাকা ৭০ বা ১৪ দশমিক ৮৯ শতাংশ।

পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স:  গত ১১ জুলাই থেকে বাড়ছে। এ সময়ে শেয়ারটির দর ১০.৬০ টাকা থেকে বেড়ে সর্বশেষ ১২.১০ টাকা পর্যন্ত হয়। অর্থাৎ এ সময়ে শেয়ারটির দর বেড়েছে ১ টাকা ৫০ বা ১৪ দশমিক ১৫ শতাংশ।

ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন: গত ১০ জুলাই থেকে বেড়ে চলেছে। এ সময়ে শেয়ারটির দর ১৮১.৩০ টাকা থেকে বেড়ে সর্বশেষ ১৩ জুলাই পর্যন্ত ১৯০ টাকা পর্যন্ত লেনদেন হয়। অর্থাৎ এ সময়ে শেয়ারটির দর বেড়েছে ৮ টাকা ৭০ বা ৪ দশমিক ৭৯ শতাংশ।

রহিমা ফুড: গত ১৩ জুলাই থেকে বেড়েই চলেছে। এ সময়ে শেয়ারটির দর ১৬২ টাকা থেকে বেড়েসর্বশেষ ১৭২ টাকা ১০ পয়সা পর্যন্ত হয়। অর্থাৎ এ সময়ে শেয়ারটির দর বেড়েছে ১০ টাকা ১০ বা ৬ দশমিক ২৩ শতাংশ।

সায়হাম কটন: গত ১২ জুলাই থেকে বাড়ছে। এ সময়ে শেয়ারটির দর ২০.৮০ টাকা থেকে বেড়ে সর্বশেষ ২১.৬০ টাকায় পর্যন্ত  উটে। অর্থাৎ এ সময়ে শেয়ারটির দর বেড়েছে ০.৮০ টাকা বা ৩.৮৪ শতাংশ।

বিডি অটোকার্স:  গত ২৯ জুন কোম্পানি শেয়ারের দর ছিল ৮০.০০ টাকা। এরপর গত ১৩ জুলাই দর বেড়ে লেনদেন হয় ১০১.৮০ টাকায়। এই সময়ে এ কোম্পানিটির শেয়ার দর বেড়েছে ২১.৮০ টাকা বা ২৭.২৫ শতাংশ।

তুং হাই নিটিং: দুই সপ্তাহের ব্যবধানে তুংহাই নিটিংয়ের শেয়ারদর বেড়েছে ২৬.৩৯ শতাংশ। ২২ জুন কোম্পানিটির শেয়ারদর ছিল ১৪.৪০ টাকা। ১২ জুলাই তা ১৮.২০ টাকায় উন্নীত হয়। আর শেয়ারটির এই দর বাড়াকে অস্বাভাবিক বলে মনে করছে ডিএসই কর্তৃপক্ষ।

শেয়ারবাজারনিউজ/এম.আর

আপনার মন্তব্য

Top