১৩ কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ

Arthik Protibadon Reportশেয়ারবাজার রিপোর্ট: দ্বিতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-জুন’১৭) অনিরীক্ষিত  করেছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত । নিম্নে এগুলোর আর্থিক প্রতিবেদনের চিত্র তুলে ধরা হলো।

আইএফআইসি ব্যাংক:

অর্ধবার্ষিকে আইএফআইসি ব্যাংকের শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৪৮ টাকা, শেয়ার প্রতি সমন্বিত কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ৭.৭০ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৬.৩৩ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১.৪৪ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ৫.৬৪ টাকা এবং ৩০ জুন ২০১৬, সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ২৬.০৮ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.০৪ টাকা।

এছাড়া গত তিন মাসে অর্থাৎ দ্বিতীয় প্রান্তিকে (এপ্রিল-জুন ১৭) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৯২ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ০.৯৩ টাকা।

নিটল ইন্স্যুরেন্স:

অর্ধবার্ষিকে র শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৪০ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ১.৯৮ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২২.৮০ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১.১১ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ১.৭৪ টাকা এবং ৩০ জুন ২০১৬, সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ২২.৫২ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে ০.২৯ টাকা বা ২৬.১৩ শতাংশ।

এছাড়া গত তিন মাসে অর্থাৎ দ্বিতীয় প্রান্তিকে (এপ্রিল-জুন ১৭) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৮৬ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ০.৬০ টাকা।

ইস্টল্যান্ড ইন্স্যুরেন্স

অর্ধবার্ষিকে কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.০২ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ০.২২ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২২.৭৮ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৫৮ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ০.১১ টাকা এবং ৩০ জুন ২০১৬, সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ২০.৪৩ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.৪৪ টাকা বা ৭৫.৮৬ শতাংশ।

এছাড়া গত তিন মাসে অর্থাৎ দ্বিতীয় প্রান্তিকে (এপ্রিল-জুন ১৭) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৫৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ০.২৮ টাকা।

প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড

অর্ধবার্ষিকে (জানুয়ারি’১৭-জুন’১৭) ব্যাংকটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৩০ টাকা, শেয়ার প্রতি সমন্বিত নেট অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ১.৫৪ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৮.৩৯ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ০.৪০ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ১.০০ টাকা এবং এনএভিপিএস ছিল ১৫.৭১ টাকা।

এদিকে গত তিন মাসে অর্থাৎ দ্বিতীয় প্রান্তিকে (এপ্রিল-জুন১৬) ব্যাংকটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৬০ টাকা। আগের বছর একই সময় চিল ০.২৪ টাকা।

ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড

অর্ধবার্ষিকে (জানুয়ারি’১৭-জুন’১৭) ইস্টার্ন ব্যাংকের শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৩১ টাকা, শেয়ার প্রতি সমন্বিত কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ১.৯৮ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৮.৬৪ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২.২১ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ২৭.৪১ টাকা এবং এনএভিপিএস ছিল ২৬.৭৩ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.১০ টাকা।

এদিকে গত তিন মাসে অর্থাৎ দ্বিতীয় প্রান্তিকে (এপ্রিল-জুন১৬) ব্যাংকটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.০৪ টাকা। আগের বছর একই সময় চিল ১.০৪ টাকা।

রূপালী ইন্স্যুরেন্স

অর্ধবার্ষিকে (জানুয়ারি’১৭-জুন’১৭) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৩৫ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ১.৩৪ টাকা।

এদিকে গত তিন মাসে অর্থাৎ দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির ই্পিএস হয়েছে ০.৭০ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ০.৭১ টাকা।

এছাড়া অর্ধবার্ষিক শেষে শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৩.৯৩ টাকা এবং শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ০.৫৯ টাকা।

মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেড

অর্ধবার্ষিকে (জানুয়ারি’১৭-জুন’১৭) মার্কেন্টাইল ব্যাংকের শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.০৩ টাকা, শেয়ার প্রতি সমন্বিত কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ১৫.৩০ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২১.১৮ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১.৩৩ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ৩.২৭ টাকা এবং ৩০ জুন ২০১৬, সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ২১.০১ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.৭০ টাকা।

পূবালী ব্যাংক লিমিটেড

অর্ধবার্ষিকে (জানুয়ারি’১৭-জুন’১৭) ব্যাংকটির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.২০ টাকা এবং এককভাবে ০.৯২ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল যথাক্রমে ০.৭৮ টাকা এবং ০.৭৪ টাকা।

এছাড়া শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৬.৫১ টাকা এবং শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ৮.৫০ টাকা।

লংকা বাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেড

অর্ধবার্ষিকে (জানুয়ারি’১৭-জুন’১৭) লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৭১ টাকা (একক) । আগের বছর একই সময় ছিল ১.২৯ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় বেড়েছে ০.৪২ টাকা বা ৩২.৫৫ শতাংশ। এছাড়া  সমন্বিতভাবে এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.০০ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ০.৮৯ টাকা।

এছাড়া আলোচিত সময়ে কোম্পানির এককভাবে শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ০.৬২ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৯.৭৯ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে এনওসিএফপিএস ছিল ৬.১৬ টাকা (নেগেটিভ) এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬, সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ১৯.৩৯ টাকা।

ডাচ-বাংলা ব্যাংক লিমিটেড

অর্ধবার্ষিকে ব্যাংকটির ইপিএস ২৬ শতাংশ বেড়েছে। আর গত তিন মাসে ইপিএস বেড়েছে ৮০ শতাংশ। ব্যাংকটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭.১০ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ৫.৬২ টাকা। ইপিএস ২৬ শতাংশ বেড়েছে।

এদিকে গত তিন মাসে অর্থাৎ দ্বিতীয় প্রান্তিকে (এপ্রিল-জুন) ব্যাংকটির ইপিএস হয়েছে ৪.১৮ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ২.৩২ টাকা। ইপিএস বেড়েছে ৮০ শতাংশ।

এছাড়া শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ৯২.১৪ টাকা এবং শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ৫৭.৪১ টাকা।

নর্দার্ণ ইন্স্যুরেন্স: অর্ধবার্ষিকে (জানুয়ারি’১৭-জুন’১৭) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৬৭ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ১.৬৫ টাকা।

এদিকে গত তিন মাসে অর্থাৎ দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির ই্পিএস হয়েছে ০.৭৫ টাকা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ০.৬৫ টাকা।

এছাড়া শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ২০ টাকা এবং শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ০.৬০ টাকা।

উত্তরা ব্যাংক: অর্ধবার্ষিকে উত্তরা ব্যাংকের শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.০৩ টাকা, শেয়ার প্রতি সমন্বিত কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ৩.৪৬ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সমন্বিত সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ৩৩.৬০ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২.০৭ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ৮.৭৭ টাকা এবং ৩০ জুন ২০১৬, সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ৩২.৮৫ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে ০.০৪ টাকা।

এছাড়া গত তিন মাসে অর্থাৎ দ্বিতীয় প্রান্তিকে (এপ্রিল-জুন ১৭) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৩২ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ১.৩৩ টাকা।

বাংলাদেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্স: অর্ধবার্ষিকে (জানুয়ারি’১৭-জুন’১৭) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.১৬ টাকা, শেয়ার প্রতি কার্যকারী নগদ প্রবাহের পরিমাণ হয়েছে (এনওসিএফপিএস) ০.৩২ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) হয়েছে ২০.৬৮ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ১.২৩ টাকা, এনওসিএফপিএস ছিল ২.২৯ টাকা এবং ৩০ জুন ২০১৬, সমাপ্ত অর্থবছরে এনএভিপিএস ছিল ২০.৮৪ টাকা। সে হিসেবে কোম্পানিটির ইপিএস কমেছে ০.০৭ টাকা।

এছাড়া গত তিন মাসে অর্থাৎ দ্বিতীয় প্রান্তিকে (এপ্রিল-জুন ১৭) এ কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.২৭ টাকা। যা আগের বছরে একই সময়ে আয় ছিল ০.৪০ টাকা।

শেয়ারবাজারনিউজ/এম.আর

আপনার মন্তব্য

Top