ব্যাংক বীমার সকল শাখার লাইসেন্স ও চাকুরি বিধিমালা অনুমোদন নিতে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের নির্দেশ

govtশেয়ারবাজার রিপোর্ট: বাণিজ্যিক ব্যাংক ও বীমা প্রতিষ্ঠানের প্রধান কার্যালয় সহ দেশব্যাপি ছড়িয়ে থাকা সকল শাখার লাইসেন্স প্রাপ্তির জন্য কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরে (ডিআইএফই) প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সহ আবেদন করার নির্দেশ দিয়েছে সংস্থাটি। পাশাপাশি এসকল প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব চাকুরি বিধিমালা অনুমোদনের জন্যও আবেদন করতে বলা হয়েছে।

সম্প্রতি সংস্থাটির মহাপরিদর্শক মো: সামছুজ্জামান ভূইয়া স্বাক্ষরিত চিঠির মাধ্যমে এমন নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ব্যাংক বীমার পাশাপাশি দেশের সকল কারখানা, শিল্প প্রতিষ্ঠান, বাণিজ্য প্রতিষ্ঠানগুলোকেও একই নির্দেশনা সহ চিঠি দেওয়া হয়েছে।

ডিআইএফই জানায়, বাংলাদেশ শ্রম আইন-২০০৬ এবং বাংলাদেশ শ্রম বিধিমালা-২০১৫ এর সুষ্ঠু বাস্তবায়ন এবং শ্রমবান্ধব পরিবেশ নিশ্চিতের জন্য এমন নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

লাইসেন্স গ্রহণ সংক্রান্ত চিঠিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ শ্রম আইন-২০০৬ এবং বাংলাদেশ শ্রম বিধিমালা-২০১৫ অনুযায়ী সকল কারখানা, শিল্প প্রতিষ্ঠান, বাণিজ্য প্রতিষ্ঠান, বাণিজ্যিক ব্যাংক ও বীমা প্রতিষ্ঠান, দোকান ও ঠিকাদার সংস্থা সহ তাদের সকল শাখার জন্য কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের কাছ থেকে রেজিষ্ট্রেশন গ্রহণ করতে হবে। তাই প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সহ সংস্থাটির প্রধান কার্যলয়ে আবেদন করতে বলা হয়েছে।

প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব চাকুরি বিধিমালা অনুমোদন প্রসঙ্গে অন্য এক চিঠিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ শ্রম আইন-২০০৬ এর ৩২৬ ধারা এবং বাংলাদেশ শ্রম বিধিমালা-২০১৫ এর ৩৫৪ বিধি অনুযায়ী সকল কারখানা, শিল্প প্রতিষ্ঠান, বাণিজ্য প্রতিষ্ঠান, বাণিজ্যিক ব্যাংক ও বীমা প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স গ্রহণের বিধান রয়েছে। পাশাপাশি উল্লেখিত প্রতিষ্ঠানগুলির শ্রমিক অথবা কর্মচারি নিয়োগ ও এসংক্রান্ত আনুষাঙ্গিক অন্যান্য বিষয়াদি অর্থাৎ শ্রকিদের বা বিশেষ শ্রেণির শ্রমিকদের চাকুরি নিয়ন্ত্রণের উদ্দেশ্যে একই আইনের ধারা-৩ ও বিধি-৩ অনুযায়ী নিজস্ব চাকুরি বিধির অনুমোদন গ্রহণেরও বিধান রয়েছে। তাই কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর থেকে প্রতিষ্ঠানগুলোকে নিজস্ব চাকুরি বিধিমালা অনুমোদন গ্রহণের জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/আ

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top