শেয়ার বিক্রি বেড়েছে বিদেশিদের

DSE-শেয়ারবাজার রিপোর্ট: দেশের প্রধান এক্সচেঞ্জ ডিএসই’র প্রধান সূচক রেকর্ড অবস্থানে রয়েছে। জুলাই মাসেই সূচক বেড়েছে ২০৬ পয়েন্ট। আর এসময়ে বিদেশিরা শেয়ার বিক্রি করেছেন বেশি।

অপরদিকে সূচকের উত্থানের সময় তারা প্রকৃত বিনিয়োগ কম করেছেন। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, মে ও জুন মাসে সূচক নিচের দিকে ছিল। সেই সময় বিদেশিদের প্রকৃত বিনিয়োগ বেড়েছে। জুলাই মাসে সূচক ২০৬ পয়েন্ট বেড়েছে। এ ধারা আগস্টেও রয়েছে। আর এই সময় বিদেশিরা পুঁজিবাজার থেকে ধাপে ধাপে মুনাফা তুলে নিচ্ছেন। দেখা যাচ্ছে তারা যথাসময়ে বিনিয়োগ করছেন এবং মুনাফা তুলছেন।

ডিএসই জানায়, চলতি বছরের জুলাই মাসে প্রবাসি ও বিদেশি বিনিয়োগকারীদের পোর্টফোলিওতে মোট ৪২৪ কোটি ৭১ লাখ টাকার শেয়ার বিক্রি হয়েছে। জুন মাসে এর পরিমাণ ছিল ৩৪১ কোটি ১৫ লাখ টাকা। সেই হিসেবে শেয়ার বিক্রি বেড়েছে ৮৩ কোটি ৫৬ লাখ টাকা বা ২৪.৪৯ শতাংশ।

এদিকে জুলাইয়ে প্রকৃত বিনিয়োগ হয়েছে ২০০ কোটি ৩৬ লাখ টাকা। এর আগের মাস জুনে ছিল ৩৯০ কোটি ৩১ লাখ টাকা। প্রকৃত বিনিয়োগ কমেছে ১৯০ কোটি টাকা বা ৪৮.৬৬ শতাংশ।  মে মাসে বিদেশিদের ১৫৩ কোটি টাকা এবং এপ্রিলে ৭০ কোটি টাকার শেয়ার কেনা বেড়েছিল।

গত মাসে বিদেশিরা ৬২৫ কোটি ৮ লাখ টাকার শেয়ার কিনেছেন। অথচ জুন মাসে তারা ৭৩১ কোটি ৪৭ লাখ টাকার শেয়ার কিনেছিলেন। সেই হিসেবে জুলাই মাসে শেয়ার কেনার হার কমেছে ১৪.৫৪ শতাংশ বা ১০৬ কোটি ৩৯ লাখ টাকা। মে মাসে বিদেশিদের ১৫৩ কোটি টাকা এবং এপ্রিলে ৭০ কোটি টাকার শেয়ার কেনা বেড়েছিল।

ডিএসই প্রধান সূচক জুলাই মাসের ১৩ তারিখে সর্বোচ্চ ৫৮৬০ পয়েন্ট হয়েছিল। কিন্তু ৩০ জুলাই সূচক ৫৮৬০ পয়েন্ট ছাড়িয়ে যায়। গতকাল বুধবার ডিএসই সূচক ৫৮৯১ পয়েন্ট নিয়ে সর্বোচ্চ অবস্থানে রয়েছে।

২০১৬-১৭ অর্থবছরে ডিএসইতে বিদেশিদের প্রকৃত বিনিয়োগের পরিমাণ ২ হাজার ২৬৮ কোটি ৪৬ লাখ টাকা। এর আগের অর্থবছরে এর পরিমাণ ছিল ৪৫১ কোটি ৬৪ লাখ টাকা। প্রকৃত বিনিয়োগের পরিমাণ ৪০২ শতাংশ বেড়েছে।

শেয়ারবাজারনিউজ/আ

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top