বিশ্বের সবচেয়ে ভয়ানক ৯টি ট্রেনপথ!

শেয়ারবাজার ডেস্ক: বিশ্বের প্রায় সব দেশেই রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা রয়েছে। গণ পরিবহণ হোক অথবা পণ্য পরিবহণ, রেলের জুড়ি মেলা ভার। রেলপথ আবিষ্কারের ফলে যোগাযোগ ব্যবস্থায় বিপ্লব এসেছে সন্দেহ নেই। পৃথিবীর এমন কয়েকটি দেশ রয়েছে যেখানে কিছু জায়গায় রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা অত্যন্ত দুর্গম। সেই সমস্ত জায়গা কোথায় কোথায় রয়েছে তা দেখে নেওয়া যাক একনজরে।

১। মায়েকলং রেলওয়ে মার্কেট, থাইল্যান্ডঃ বিশ্বের সবচেয়ে ভয়ঙ্কর রেললাইনের মধ্যে অন্যতম থাইল্যান্ডের মায়েরলং রেলওয়ে মার্কেট। বাজার এলাকার একেবারে বুক চিরে রেললাইন চলে গিয়েছে। থাইল্যান্ডের অন্যতম বড় ও তাজা সি-ফুড বাজার এটি। রেল যখন আসে, তখন বাজারের সব মানুষ সরে যায় আবার রেল যখন চলে যায় তখন আবার তারা বাজারে ফিরে আসে।

২। বার্মা রেলওয়ে, থাইল্যান্ডঃ বার্মার এই রেলওয়ে মৃত্যুফাঁদ বলেও পরিচিত। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়ে জাপানের সম্রাটরা এই রেলওয়ে তৈরি করেন। ২৫৮ মাইল লম্বা এই রেলওয়ে তৈরি করতে গিয়ে ১ লক্ষ ১০ হাজার মানুষের প্রাণ গিয়েছিল।

৩। ভারতীয় রেলওয়ে, ভারতঃ ভারতে সারা পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে বেশি মানুষ ট্রেনে যাতায়াত করেন। নানা এলাকায় দুর্গম রেলপথ রয়েছে এদেশে। এছাড়া প্রতিবছর ২৫ হাজার মানুষ ভারতে রেলের কারণে মারা যান।

৪। বাংলাদেশ রেলওয়ে, বাংলাদেশঃ এশিয়ার দেশগুলিতে ট্রেনের ছাদে চেপে সফর করা খুব কমন ব্যাপার। ট্রেনে বেশি যাত্রী পরিবহণ করতে হয় যে এমন যাতায়াত ঝুঁকিপূর্ণ ও বেআইনি হলেও সরকারের তরফে কোনও শাস্তিমূলক ব্যবস্থা সেভাবে নেওয়া হয় না। বাংলাদেশে বহুমানুষ এভাবে যাতায়াত করেন এবং অনেকে মারাও যান।

৫। ইকুয়েডর রেলওয়ে, ইকুয়েডরঃ দ্য নারিজ দেল দায়াবলো রেলপথ ইকুয়েডরে রয়েছে। এই রেলপথ অত্যন্ত দুর্গম। তা নির্মাণ করা শুরু হয় ১৮৯৯ সালে। রেলপথ তৈরি করতে গিয়ে বহু মানুষ প্রাণ হারান। এর সর্বোচ্চ উচ্চতা ১১৮৪১ ফুট। ভয়ঙ্করতম রেলপথের মধ্যে এটি অন্যতম।

৬। পাম্বান সেতু, ভারতঃ রামেশ্বরমে পাম্বান সেতু ৬৭৭৬ ফুট দীর্ঘ। সমুদ্রের উপরে তৈরি এই সেতু দিয়ে ভারতীয় রেল যাত্রা করে। ঘূর্ণিঝড় প্রবণ এই এলাকায় প্রচণ্ড জোরে বাতাস বয়। যার ফলে রেল চলাচল করা অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ।

৭। কুরান্দা রেলওয়ে, অস্ট্রেলিয়াঃ বিশ্বের সবচেয়ে দুর্গম রেলপথের মধ্যে অন্যতম অস্ট্রেলিয়ার এই কুরান্দা রেলওয়ে। ১৮৮২ সালে খনির কাজে সুবিধায় জন্য এর নির্মাণ শুরু হয়। বহু মানুষ প্রাণ হারিয়েছে এর নির্মাণকাজের সময়ে।

৮। জেলমারবান ফুনিকুলার, সুইজারল্যান্ডঃ ফিতের মতো রেলপথ অত্যন্ত দুর্গম। বিশ্বের দ্বিতীয় সবচেয়ে সরু রেলপথ এটি। এই পথে রেল চড়লে মনে হবে রোলার-কোস্টার রাইড চড়ানো হচ্ছে।

৯। য়ুকোন রুট, আলাস্কাঃ আলাস্কার ভয়ঙ্কর হোয়াইট পাস ও য়ুকুন রুটে রেল যাত্রাও অত্যন্ত ভয়ঙ্কর। তিন হাজার ফুট উঁচুতে ১৮.৬ মাইলের একটি স্টিলের ব্রিজ রয়েছে। এটি ১৯৬৯ সাল পর্যন্ত বিশ্বের সবচেয়ে উচ্চতম কান্টিলিভার ব্রিজ ছিল। ১৮৯৮ সালে তা তৈরি শুরু হয়, কাজ শেষ হয় ১৯০৬ সালে।

আপনার মন্তব্য

*

*

Top