২৫০ রানে অলআউট পাকিস্তান

বাংলাদেশ টিমশেয়ারবাজার ডেস্ক: বাংলাদেশ বনাম পাকিস্তান  সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তানের ক্যাপটিন আজহার আলী  আজ বুধবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে  বেলা আড়াইটায় খেলা শুরু হয়। পাকিস্তানের পক্ষে ইনিংস ওপেন করতে নামলেন আজহার আলি এবং অভিষিক্ত সামি আসলাম।

বাংলাদেশের পক্ষ হতে বল হাতে ইনিংস ওপেন করলেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। এক অধিনায়ককে বোলিং করলেন আরেক অধিনায়ক। প্রথম চার বল ডট দিলেন মাশরাফি। পঞ্চম বলে এসে ২ রান নিয়ে পাকিস্তানের ইনিংসের খাতা খোলেন আজহার। এরপর শেষ বলে এসে আরও এক রান নেন তিনি। প্রথম ওভারে ৩ রান নিয়ে পাকিস্তানের পক্ষে সূচনা এনে দেন আজহার-সামি জুটি। ওপেনিং জুটির ওপর ভর করে সূচনাটা দুর্দান্ত ছিল পাকিস্তানের। ১৮ ওভারেই ৯১ রানের জুটি গড়ে ফেলেন এ দু’জন। অবেশেষে নাসির হোসেনের বলে বিচ্ছিন্ন হলো এই জুটি। ৪৫ রান করা সামি আসলামকে উইকেট রক্ষক মুশফিকের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফিরিয়ে পাঠান নাসির হোসেন।

ওপেনিং জুটি ভাঙার পর ক্রিজে নামেন মোহাম্মদ হাফিজ। আইসিসি থেকে অ্যাকশন ক্লিয়ারিং পাওয়ার পর এটাই তার প্রথম ম্যাচ। তবে ব্যাট হাতে আগের দুই ম্যাচের ধারাবাহিকতারই প্রমান দিলেন। ১৫ বল খেলে মাত্র ৪ রান করে আরাফাত সানির বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফিরে যান মোহাম্মদ হাফিজ। ১০৫ রানে ঘটে পাকিস্তানের দ্বিতীয় উইকেটের পতন।

দ্বিতীয় উইকেট পতনের পর ক্রিজে নামেন হারিজ সোহেল। আজহার আলী এবং হারিজ সোহেল পাকিসন্তানকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন। তবে আর বেশিক্ষণ আর টিকে থাকতে পারলো না তাদের জুটি। ৩৮ ওভার করতে আসা সাকিবের বলে বল্ড আউট করে আজহারেরি আলিকে ১০১ রানে আউট করে সাজঘরে ফিরে পাঠান। আজহারের উইকেট কাটতে না কাটতে কাটতে আরেকটি উইকেটের পতন ঘটায় মাশরাফি। ৪০ ওভার করতে আসা মাসরাফির বলে উইকেট রক্ষক মুশফিকের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফিরে যান ৫৮ বলে ৫৩ রান করা হারিজ। তবে পরের জুটি রেজওয়ান ও  ফাহাদ রেজা, তারাও তাদের জুটি টিকে রাখতে পারলেন না। সাকিবের বলে তার হাতেই কেচ দিয়ে চলে  ৪ রান করে সাজঘরে চলে যান রেজওয়ান।

তারপর থেকে ক্রিজে কেউ টিকে থাকতে পারলেন না। একের পর এক উইকেটের পতন ঘটে চলেছে মাঠে। ৪১ ওভারের পর থেকেই কেউ স্থায়ী হতে পারেন নাই। ৪৩ ওভার করা মাসরাফির বলে নাসিরের কাছে কেচ দিয়ে ৯ বলে ৪ রান করে মাঠ ত্যাগ করেন ফাহাদ আলম। তারপর মাঠে নামেন ওহাব রিয়াজ। তিনিও ৪ রান করে মাঠ ত্যাগ করেন রুবেলেন বলে। এরপর মাঠে নামেন উমর গুল। ৪৭ ওভারে  তাসজিন আহমেদের কাছে কেচ দিয়ে মাঠ থেকে চলে যান ২২ রান করা সাহাদ নিজাম। শেষ উইকেট নামা জুনায়েদ খান ও কিছু করতে পারেন নি, তিনি  আরাফাত সানির বলে ৪ রান করে বল্ড হন। জুনায়েদ সানির সাথে সাথে শেষ হয়ে যায় পাকিস্তানের দোর। পাকিস্তান ৪৯ ওভারে ২৫০ রান করেন।

শেয়ারবাজারনিউজ/রা

আপনার মন্তব্য

Top