ভারতের শেয়ারবাজারে বাধ্যতামূলক হচ্ছে আধার কার্ড

sebiশেয়ারবাজার ডেস্ক: ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন অথরিটি অব ইন্ডিয়া (উইদাই) দেশের প্রতিটি নাগরিককে পরিচয়পত্র হিসেবে ১২ ডিজিটের কার্ড প্রদান করে যাকে আধার কার্ড বলা হয়। কার্ডটি ভারতের স্থায়ী নাগরিক হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেয়। বিভিন্ন কাজে-কর্মে এই আধার কার্ড ব্যবহার হয়ে থাকে। তবে এবার শেয়ার বাজারে লেনদেনের ক্ষেত্রে বাধ্যতামূলক হতে পারে আধার কার্ড। কালো টাকার কারবারিদের রুখতে এই পদক্ষেপ করার কথা চিন্তা-ভাবনা করছে সরকার ও বাজার নিয়ন্ত্রক সেবি। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা।

নতুন নিয়ম জারি হলে মিউচ্যুয়াল ফান্ড বা শেয়ার কেনাবেচার জন্যও আধার নম্বর জানাতে হবে দেশের নাগরিকদের। কালো টাকাকে বৈধ করার জন্য শেয়ার বাজারের অপব্যবহার রুখতেই এই উদ্যোগ নিতে পারে সরকার ও সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ বোর্ড অব ইন্ডিয়া (সেবি)।

এত দিন শেয়ার কেনাবেচা বা মিউচ্যুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগের জন্য প্যান কার্ড থাকাটা বাধ্যতামূলক ছিল। তার সঙ্গে এ বার জুড়তে চলেছে আধার কার্ডের তথ্যসমূহও। গত ১ জুলাই থেকে করদাতাদের ক্ষেত্রে প্যান-এর সঙ্গে আধার নম্বর যুক্ত করা বাধ্যতামূলক করেছে কেন্দ্র। এ ছাড়া, প্যান কার্ড তৈরি করতে হলেও আধার নম্বর জরুরি বলে জানিয়েছে সরকার। এ নিয়ে কর সংক্রান্ত আইনে প্রয়োজনীয় সংশোধন করেছে কেন্দ্র।

অর্থ মন্ত্রনালয় সূত্রে খবর, প্যান কার্ড বাধ্যতামূলক করলেও তা কর ফাঁকি রোধে যথেষ্ট নয়। শেয়ার বাজারের এক সংস্থার এক শীর্ষ কর্তার মতে, “আধার কার্ড বাধ্যতামূলক করাটা কেবলমাত্র সময়ের অপেক্ষা।” তবে শেয়ার বাজারে লেনদেনের ক্ষেত্রে শেষমেশ প্যান কার্ড‌ের বদলে কেবলমাত্র আধার কার্ডই জরুরি হবে কি না তা স্পষ্ট করে জানাননি তিনি।

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

*

*

Top