সূচক বাড়লেও লেনদেন কমেছে

bazarশেয়ারবাজার রিপোর্ট: দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গত সপ্তাহের  ৫ কার্যদিবসের মধ্যে ৩ দিনই বেড়েছে সূচক। আর উত্থানের মাত্রা ছিলো সামান্য। তাই গত সপ্তাহে (৬-১০ আগস্ট) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) মূল্য সূচক বেড়েছে। তবে তৃতীয় ও চতুর্থ কার্যদিবসে দিবসে কিছুটা কারেকশন হয়েছে সূচকে। এদিকে সূচক বাড়লেও কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর। আর গত সপ্তাহে লেনদেনের পরিমানও কমেছে। আলোচিত সপ্তাহটিতে লেনদেন কমেছে ৮.৩১ শতাংশ। তবে প্রধান সূচক বেড়েছে ০.৩৬ শতাংশ।

সমাপ্ত সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সব ধরণের মূল্য সূচক বেড়েছে। সপ্তাহশেষে ডিএসই ব্রড ইনডেক্স বা ডিএসইএক্স সূচক বেড়েছে দশমিক ৩৬ শতাংশ বা ২১.৩৬ পয়েন্ট। সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসই৩০ সূচক বেড়েছে দশমিক ১২ শতাংশ বা ২.৬০ পয়েন্ট। অপরদিকে, শরীয়াহ বা ডিএসইএস সূচক বেড়েছে দশমিক ২২ শতাংশ বা ২.৯১ পয়েন্টে।

সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে তালিকাভুক্ত মোট ৩৩৫টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১২৯টি কোম্পানির। আর দর কমেছে ১৮৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২০টির। আর লেনদেন হয়নি ১টি কোম্পানির শেয়ার। এগুলোর ওপর ভর করে গত সপ্তাহে লেনদেন হয় ৪ হাজার ৮৭৯ কোটি ৪৫ লাখ টাকার শেয়ার। যা এর আগের সপ্তাহে ছিলো ৫ হাজার ৩২১ কোটি ৯২ লাখ টাকার শেয়ার। সেই হিসাবে গত সপ্তাহে লেনদেন কমেছে ৪৪২ কোটি ৪৭ লাখ টাকা বা ৮.৩১ শতাংশ।

সমাপ্ত সপ্তাহে ‘এ’ ক্যাটাগরির কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৮৮ দশমিক ৯৫ শতাংশ। ‘বি’ ক্যাটাগরির কোম্পানির লেনদেন হয়েছে ৩ দশমিক ২০ শতাংশ। ‘এন’ ক্যাটাগরির কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৬ দশমিক ৫৫ শতাংশ। ‘জেড’ ক্যাটাগরির লেনদেন হয়েছে ১ দশমিক ৩১ শতাংশ।

এদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সেচঞ্জের (সিএসই)সার্বিক সূচক বেড়েছে দশমিক ৩৯ শতাংশ। সপ্তাহজুড়ে সিএসইতে তালিকাভুক্ত মোট ২৮৭টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১০৬টি কোম্পানির। আর দর কমেছে ১৭০টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১১টির। আর সপ্তাহশেষে লেনদেন হয়েছে ২৯৩ কোটি ২৬ লাখ টাকা। যদিও আগের সপ্তাহে বাজারটিতে ৩২২ কোটি ৪৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

*

*

Top