পুঁজিবাজারে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের খবরদারি: দিনভর নাটকে শেষ বেলায় স্বস্তি

bazarশেয়ারবাজার রিপোর্ট: পুঁজিবাজারের উত্থানে ব্যাংকগুলোর এক্সপোজার ইস্যুতে নজরদারি বাড়িয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। বরাবরের মতোই কেন্দ্রীয় ব্যাংক পুঁজিবাজারে হস্তক্ষেপ করে তখন বাজারে নেতিবাচক প্রভাব পড়ে। আজো সেইরকমেরই চিত্র দিনের শুরুতে হয়েছিল। সকাল পৌনে ১১ টা থেকে সাড়ে ১১ টা পর্যন্ত একটানা সূচকের পতন হয়। তারপর আবার উত্থানে ফিরে সূচক। তারপর আবার দুপুর ১টা থেকে পৌনে ২টা পর্যন্ত সূচকের ফের পতন হয়। অবশেষে শেষবেলায় সূচকের উত্থানে স্বস্তি ফিরে পায় বিনিয়োগকারীরা।

সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবসে বেশিরভাগ দেশের উভয় শেয়ারবাজারে সূচকের নিম্নমুখী প্রবণতায় লেনদেন শেষ হয়েছে। এদিন শুরুতে উত্থান-পতন থাকলেও শেষ ভাগের সেল প্রেসারে কমতে থাকে সূচক। মঙ্গলবার সূচকের পাশাপাশি কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর। তবে টাকার অংকে লেনদেন আগের দিনের তুলনায় কিছুটা বেড়েছে। আজ দিন শেষে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ২০৩ কোটি টাকা।

দিনশেষে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৬১৪৯ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৩৬৫ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৮ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ২২০০ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৩২টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১২৭টির, কমেছে ১৫৭টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৮টি কোম্পানির শেয়ার দর। যা টাকায় লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ২০৩ কোটি ৪৭ লাখ ১ হাজার টাকা।

এর আগে সোমবার ডিএসই ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ১৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৬১৫১ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ১৩৭১ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৭ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ২২০৮ পয়েন্টে। ওইদিন লেনদেন হয় ১ হাজার ১৫২ কোটি ৩৪ লাখ ৪২ টাকা। সে হিসেবে আজ ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৫১ কোটি ১২ লাখ ৫৯ হাজার টাকা।

এদিকে দিনশেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) ব্রড ইনডেক্স ১২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১১ হাজার ৫২০ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২৫৪টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১১১টির কমেছে ১১৪টির ও দর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৯টির। যা টাকায় লেনদেন হয়েছে ৫৮ কোটি ৭১ লাখ ৬৫ হাজার টাকা।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু/ম.সা

আপনার মন্তব্য

*

*

Top