নতুন কোম্পানিতে লেনদেন বেড়েছে

n category companyশেয়ারবাজার রিপোর্ট: দেশের শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর মধ্যে বিনিয়োগকারীদের সবচেয়ে বেশি আগ্রহ বাড়ছে নতুন কোম্পানিরগুলোর প্রতি। গেল সপ্তাহে নতুন কোম্পানি অর্থাৎ ‘এন’ ক্যাটাগরির লেনদেন অন্যান্য ক্যাটাগরির তুলনায় সবচেয়ে বেশি বেড়েছে। সপ্তাহজুড়ে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক একচেঞ্জে (ডিএসই) ‘এন’ ক্যাটাগরিতে লেনদেন বেড়েছে ৭৯.৩৮ শতাংশ। গত সপ্তাহে ‘এন’ ক্যাটাগরির টার্নওভার বেড়েছে ১১২ কোটি ৮৮ লাখ ৫২ হাজার টাকা। ডিএসইর সাপ্তাহিক বাজার বিশ্লেষণে এ তথ্য বেরিয়ে এসেছে।

সূত্র মতে, গত সপ্তাহে ‘এন’ ক্যাটাগরির লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২৫৫ কোটি ৮ লাখ ১৫ হাজার টাকা। তার আগের সপ্তাহে যার পরিমাণ ছিল ১৪২ কোটি ১৯ লাখ ৬৩ হাজার টাকা। এদিকে গত সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) যে পরিমাণ লেনদেন হয়েছে তার ৬.৯৫ শতাংশ অবদান রেখেছে ‘এন’ ক্যাটাগরি।

ডিএসইতে বর্তমানে এন ক্যাটাগরিতে ৬ কোম্পানি রয়েছে। এগুলো হলো- আমরা নেটওর্য়াক, বিবিএস ক্যাবলস, ফরচুর সুজ, নূরানী ডাইং, প্যাসিফিক ডেনিমস এবং শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। এর মধ্যে আমরা নেটওর্য়াকস গত সপ্তাহের ২ অক্টোবর শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হয়েছে। আর লেনদেনের প্রথম দিনেই ২৫৮.৯৭ শতাংশ মুনাফা পেয়েছেন এ কোম্পানির বিনিয়োগকারীরা। ওদিন এ কোম্পানির শেয়ারের দর শেয়ার দর ৮১.২০ টাকায় ওপেন হলেও সর্বোচ্চ লেনদেনটি হয় ১৫০ টাকায়।

এদিকে, গেল সপ্তাহে ডিএসইতে নতুন কোম্পানির মধ্যে সবচেয়ে বেশি শেয়ার দর  বেড়েছে আমরা নেটওর্য়াকসের।  এমনকি কোম্পানিটি সাপ্তাহিক লেনদেনের তালিকার দ্বিতীয় স্থান দখল করে আছে। কোম্পানির সাপ্তাহিক দর বাড়ার পরিমাণ ৩.৯৯ শতাংশ। গত সপ্তাহজুড়ে এ কোম্পানির ১ কোটি ১০ লাখ ৭৫ হাজার ৭৪০টি শেয়ার লেনদেন হয়। যার বাজার মূল্য ১৪৬ কোটি ২৫ লাখ ৭৩ হাজার টাকা।

বিদায়ী সপ্তাহে এন ক্যাটাগরিতে থাকা অন্যান্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে বিবিএস ক্যাবলসের ৮.৯৩ শতাংশ, ফরচুর সুজের ১.৯৪ শতাংশ, নূরানী ডাইংয়ের ৪.৬১ শতংশ, প্যাসিফিক ডেনিমসের ২.৩৩ শতাংশ এবং শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজের ৬.৯৭ শতাংশ শেয়ার দর বেড়েছে।

শেয়ারবাজারনিউজ/এম.আর

আপনার মন্তব্য

*

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top