এসি বিস্ফোরণে প্রবাসীর স্ত্রী ও চার সন্তান নিহত

jubayer 1শেয়ারবাজার ডেস্ক: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার কান্দিগাঁও গ্রামের কুয়েত প্রবাসী জুনাইদ আহমেদের পুরো পরিবার এসি বিস্ফোরণে নিহত হয়। গত ১৬ অক্টোবর সোমবার কুয়েত সিটির সালমিয়াত এলাকার বাসভবনে এসি বিস্ফোরণে জুনাইদ আহমদের স্ত্রী রোকেয়া বেগম (৩৩), মেয়ে জামিলা (১৫) ও নাবিলা (৯) এবং ছেলে ইমাদ (১২) ও ফাহাদ (৫) মারা যান। ওই সময় রোকেয়ার স্বামী জুনাইদ আহমদ বাসায় ছিলেন না। জুনাইদ কুয়েত সেনাবাহিনীতে বেসামরিক পদে চাকরি করেন। পরিবার নিয়ে দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে তিনি কুয়েতে বসবাস করছিলেন। জুনাইদের অপর দুই ভাইয়ের মধ্যে এক ভাই সপরিবারে যুক্তরাষ্ট্র ও অন্য ভাই সপরিবারে যুক্তরাজ্যে বসবাস করছেন। jubAYER

গত বৃহস্পতিবার রাতে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার কান্দিগাঁও গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে জুনাইদের স্ত্রী ও চার শিশু ছেলেমেয়েকে দাফন করা হয়। এর আগে সকাল ৯টায় লাশ বহনকারী একটি ফ্লাইট ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছায় বিমানবন্দরে উপস্থিত হয়ে মরদেহ গ্রহণ করেন সাবেক চিফ হুইপ ও কমলগঞ্জ-শ্রীমঙ্গল এলাকার সংসদ সদস্য আলহাজ উপাধ্যক্ষ মো. আবদুস শহীদ। মরদেহ দেখতে মৌলভীবাজারের বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজারো মানুষ কান্দিগাঁও গ্রামের বাড়িতে ভিড় করে। নিহতদের স্বজনদের মধ্যে কান্নার রোল পড়ে। নিহত পাঁচজনের জানাজা রাত সাড়ে ৮টায় কমলগঞ্জের ভানুগাছ বাজারসংলগ্ন সফাত আলী সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসা মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। এরপর কান্দিগাঁও গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে পাশাপাশি পাঁচটি কবরে দাফন করা হয়।

 

শেয়ারবাজারনিউজ/ম.সা

আপনার মন্তব্য

Top