আজ: সোমবার, ১৭ মে ২০২১ইং, ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা শাওয়াল, ১৪৪২ হিজরি

সর্বশেষ আপডেট:

০১ নভেম্বর ২০১৭, বুধবার |


শাহবাজপুর গ্যাসক্ষেত্র থেকে পরীক্ষামূলক গ্যাস উত্তোলন শুরু

gasশেয়ারবাজার ডেস্ক: ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলায় শাহবাজপুরে আবিষ্কৃত নতুন গ্যাসক্ষেত্রের কূপ থেকে পরীক্ষামূলক গ্যাস উত্তোলন শুরু হয়েছে।

বুধবার (১ নভেম্বর) সকাল ১০টার দিকে কূপটির প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে ‘ড্রিল স্টেম টেস্ট’ এর মাধ্যমে গ্যাস উত্তোলন শুরু হয়। এসময় গ্যাসের চাপ ছিল প্রায় পাঁচ হাজার পিএসআই।

এর আগে, গত ২৩ অক্টোবর এই গ্যাসক্ষেত্রের সন্ধান পাওয়া যায়। নতুন গ্যাসক্ষেত্রটির অবস্থান বোরহানউদ্দিন উপজেলার শাহবাজপুরের বর্তমান গ্যাসক্ষেত্র থেকে প্রায় সাড়ে তিন কিলোমিটার পূর্ব দিকে।

বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম এক্সপ্লোরেশন অ্যান্ড প্রোডাকশন কোম্পানির (বাপেক্স) উপপরিচালক জসিমউদ্দিন জানান, কূপটির সব পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষ করা হয়েছে। এখন ওই কূপ থেকে গ্যাস উত্তোলন করে সরবরাহ সম্ভব। এই গ্যাস ক্ষেত্রে ৭২০ বিলিয়ন ঘনফুট গ্যাসের মজুদ রয়েছে বলে ধারণা করছে বাপেক্স কর্মকর্তারা।

বাপেক্স সূত্র মতে, নতুন কূপে ৩৫৫০ মিটার গভীরতা পর্যন্ত খনন চালানো হয়েছে। এর মধ্যে ৩৪০০ থেকে ৩৪৭০ মিটারের মধ্যে তিনটি স্তরে গ্যাসের অস্তিত্ব রয়েছে।

শাহবাজপুর গ্যাসক্ষেত্রের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) মো. হাসানুজ্জামান জানান, ভোলার শাহবাজপুর গ্যাস ক্ষেত্র থেকে ২০০৯ সালের ১১ মে গ্যাস উত্তোলন শুরু করে বাপেক্স। এখানে চারটি কূপের মধ্যে তিনটি থেকে প্রতিদিন প্রায় ৩৫ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস তোলা হচ্ছে। শাহবাজপুরে মোট ৩৫ বিলিয়ন ঘনফুটের বেশি গ্যাস মজুদ রয়েছে বলে জানান এই ডিজিএম।

ভোলার বোরহানউদ্দিনের কাচিয়া ইউনিয়নে প্রথম ১৯৮৯ সালে গ্যাসের অস্তিত্ব লক্ষ করা যায়।

রাষ্ট্রায়ত্ত তেল, গ্যাস ও খনিজসম্পদ কর্পোরেশনের হিসাব অনুযায়ী, দেশের ২৬টি গ্যাসক্ষেত্রে ২০১৬ সালে ১ জানুয়ারি পর্যন্ত প্রমাণিত গ্যাসের মজুদ ছিল ১৩ দশমিক ৬০ ট্রিলিয়ন ঘনফুট।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.