৩ প্রতিষ্ঠানকে সর্তক করলো বিএসইসি

BSECশেয়ারবাজার রিপোর্ট: সিকিউরিটিজ আইন অমান্য করায় ৩ প্রতিষ্ঠানকে  গত অক্টোবর মাসে সতর্ক করেছে শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। এছাড়া সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জে অর্ডিন্যান্স, ১৯৬৯ এর ২২ ধারা লংঘন করায় ১ কোম্পানির কর্মকর্তা এবং এক সিকিউরিটিজ হাউজকে জরিমানা করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা। বিএসইসির এনফোর্সমেন্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, অলটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজের ডিপুটি ম্যানেজার (হিসাব) মো. নজরুল ইসলাম সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জে অর্ডিন্যান্স, ১৯৬৯ এর ২২ ধারা লংঘন করেছে।  এর ফলে বিএসইসি তাকে ১০ লক্ষ টাকা জরিমানা ধার্য্য করেছে। যা আগামী ১৫ দিনের মধ্যে তাকে পরিশোধ করতে বলেছেন।

এদিকে, আজম সিকিউরিটিজ লিমিটেড কর্মচারী ও তাদের আত্মীয়দের মার্জিন ঋণ সুবিধা দেয়া হয়েছে। নন মার্জিনেবল ‘জেড’ ক্যাটাগরির শেয়ার ক্রয়ে মার্জিন ঋণ প্রদান করেছে আজম সিকিউরিটিজ।

এছাড়া সিকিউরিটিজ ও এক্সচেঞ্জ কমিশন (স্টক-ডিলার,স্টক-ব্রোকার ও অনুমোদিত প্রতিনিধি) বিধিমালা,২০০০ এর আচরণ বিধি লঙ্ঘন করেছে আজম সিকিউরিটিজ। এ কারণে হাউজটিকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা। পরে গত ৩০ অক্টোবর হাউজটি নিজের ভুল স্বীকার করে বিএসইসির কাছে জরিামানা থেকে অব্যাবহতি চায়। যা বিএসইসির কাছে গ্রহণযোগ্য হয়নি। তাই  সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জে অর্ডিন্যান্স, ১৯৬৯ এর ২২ ধারা অনুযায়ী আজম সিকিউরিটিজকে ৫ লাখ টাকা করে জরিমানা করে। পাশাপাশি তাদের উক্ত জরিমানা ১৫ দিনের মধ্যে পরিশোধ করতে আদেশ দেওয়া হয়।

এদিকে গত মাসে ২ কোম্পানি ও এক সিকিউরিটজ হাউজকে সতর্ক করেছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। এগুলো হলো- ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ, ইফাদ অটোস এবং এম সিকিউরিটিজ লিমিটেড।

জানা যায়, সিকিউরিটিজ আইন লঙ্ঘন করায় প্রতিষ্ঠানগুলোকে  সর্তক করেছে কমিশন।

শেয়ারবাজারনিউজ/এম.আর

আপনার মন্তব্য

Top