উত্থান ধরে রেখেছে আর্থিক খাতে

bazarশেয়ারবাজার রিপোর্ট: সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের ইতিবাচক প্রবণতায় লেনদেন শেষ হয়েছে। এইদিন শুরুতে উত্থান থাকলেও ২৫ মিনিট পর বাজারে  ব্যাংকসহ অন্যান্য খাতের নেতিবাচক প্রভাব দেখা যায়। তবে শেষ পর্যন্ত আর্থিক খাতের ক্রয় প্রেসারে উত্থানের ধারাবাহিকতা অব্যহত থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় নতুন রেকর্ড গড়লো ডিএসই। সোমবার সূচক কিছুটা বাড়লেও কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর। তবে আগের দিনের তুলনায় টাকার অংকে লেনদেন কিছুটা বেড়েছে। আজ দিন শেষে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ১৫৮ কোটি টাকা।

এদিকে আজ আর্থিক খাতের ক্রয় প্রেসারে কারণে সূচকে নতুন রেকর্ড গড়লো ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স। ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স ১২ পয়েন্ট বেড়ে ৬ হাজার ৩১৯ পয়েন্টে অবস্থান করছে। যা ডিএসইর সর্বোচ্চ। আর ডিএসইর লেনদেন ১১‘শ কোটিতে থাকাটা ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা।

দিনশেষে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ১২ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৬৩১৯  পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৯ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১৩৯২ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ২২৮৬ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩২৪টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১২৭টির, কমেছে ১৬১টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৬টি কোম্পানির শেয়ার দর। যা টাকায় লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ১৫৮ কোটি ৪৯ লাখ ৬৩ হাজার টাকা।

এর আগে রোববার ডিএসই ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ২৪ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ৬৩০৬ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৭ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ১৩৮৩ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১০ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ২২৯০ পয়েন্টে। ওইদিন লেনদেন হয় ৯৭০ কোটি ৭৮ লাখ ৮৮ হাজার টাকা। সে হিসেবে আজ ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ১৮৭ কোটি ৭০ লাখ ৭৫ হাজার টাকা।

এদিকে দিনশেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সিএসইএক্স ৪ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১১ হাজার ৮৩৫ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২৫৩টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১০৮টির কমেছে ১২০টির ও দর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৫টির। যা টাকায় লেনদেন হয়েছে ৬৮ কোটি ৯৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

শেয়ারবাজারনিউজ/মু

আপনার মন্তব্য

*

*

Top