২ শতাংশ সুদ দিয়ে রিটার্ন জমা দেওয়া যাবে

NBR20160808112502শেয়ারবাজার রিপোর্ট: গত বৃহস্পতিবার শেষ হয়েছে ব্যক্তিশ্রেণির করদাতাদের বার্ষিক আয়কর বিবরণী বা রিটার্ন জমা দেওয়ার সময়। শেষ দিনে অর্থাৎ ৩০ নভেম্বর রাত পর্যন্ত করদাতারা বিভিন্ন কর কার্যালয়ে গিয়ে রিটার্ন জমা দেন। দিনজুড়েই বিভিন্ন কর কার্যালয়ে ছিল বেশ ভিড়।

তবে যাঁরা নির্ধারিত সময়ে রিটার্ন দিতে পারেননি, তাঁদের সব শেষ হয়ে গেল, তা নয়। নির্ধারিত করের ওপর মাসে ২ শতাংশ হারে সুদ দিলেই কর কর্মকর্তারা রিটার্ন জমা নিয়ে নেবেন।

এখন কর বিবরণী জমার সময় আর বাড়ানো হয় না। জুলাই থেকে নভেম্বর মাস পর্যন্ত রিটার্ন জমার নির্ধারিত সময়। আগে এই সময় সেপ্টেম্বর পর্যন্ত থাকলেও প্রতিবারই এক বা একাধিকবার সময় বৃদ্ধি করতে হতো। গত বছর থেকে সময় বৃদ্ধির সুযোগটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তাই বিকল্প হিসেবে করের ওপর সুদ বসানোর বিধান করা হয়েছে।

৩০ নভেম্বরের পর বার্ষিক আয়কর বিবরণী বা রিটার্ন জমা দিলে নির্ধারিত করের ওপর সুদ দিতে হবে—গত অর্থবছরের বাজেটে বিদ্যমান আয়কর অধ্যাদেশে ৭৩এ নামে এ–সংক্রান্ত নতুন একটি ধারা সংযোজন করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, নির্ধারিত সময়ে কোনো করদাতা বার্ষিক আয়কর বিবরণী জমা দিতে ব্যর্থ হলে ওই ব্যক্তির করের ওপর মাসিক ২ শতাংশ হারে বিলম্ব সুদ দিতে হবে। তবে সুদ নির্ধারণ হবে সারা বছরে ওই করদাতা যে উৎসে কর ও অগ্রিম কর দিয়েছেন, তা বাদ দিয়ে আয়করের ওপর। তবে বিলম্ব সুদ দিয়ে রিটার্ন দিতে হলে করদাতাকে যৌক্তিক কারণ দেখিয়ে আবেদন করতে হবে।

শেয়ারবাজারনিউজ/এম.আর

আপনার মন্তব্য

*

*

Top